বালিতে সি-বাইডেন বৈঠক প্রসঙ্গ
2022-11-15 20:43:20

নভেম্বর ১৫: গতকাল (সোমবার) চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং বিশেষ বিমানযোগে করে ইন্দোনেশিয়ার বালি দ্বীপে পৌঁছান। সিপিসি’র বিংশ জাতীয় কংগ্রেসের পর তাঁর এটিই প্রথম বিদেশ সফর। এবারের সফরের প্রথম গুরুত্বপুর্ণ কার্যক্রম ছিল মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সাথে বৈঠক। 


 

ইন্দোনেশিয়ার বালি দ্বীপে স্থানীয় জনগণ নাচ ও গান দিয়ে সি চিন পিংকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান


বৈঠকে সি চিন পিং বলেন, চীন-মার্কিন সম্পর্কের বতর্মান পরিস্থিতি দু’দেশ ও দু’দেশের জনগণের মৌলিক স্বার্থের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ নয়; আন্তর্জাতিক সমাজের প্রত্যাশার সাথেও সঙ্গতিপূর্ণ নয়। কিভাবে এ সমস্যা সমাধান করা যায়? সি চিন পিং এ ব্যাপারে দিক দেখিয়েছেন। আর তা হচ্ছে: চীন-মার্কিন সম্পর্ক আবারও সুস্থ্, স্থিতিশীল ও উন্নয়নের পথে ফিরিয়ে আনতে হবে।  

 

এ ভবনটিতে চীন-মার্কিন নেতৃবৃন্দের বৈঠক আয়োজন করা হয় 



সি চিন পিং বলেন, নতুন যুগে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের উচিত: পরস্পরকে সম্মান করা, শান্তিপুর্ণ সহাবস্থান করা, সহযোগিতা করা, ও জয়-জয় নীতির ভিত্তিতে এগিয়ে যাওয়া।  


তিনি বলেন, বিশ্ব এখন একটি গুরুত্বপুর্ণ ঐতিহাসিক টার্নিং পয়েন্টে রয়েছে। বিভিন্ন দেশের উচিত অভূতপূর্ব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করা এবং পাশাপাশি  অভূতপূর্ব সুযোগও গ্রহণ করা। চীন ও মার্কিন নেতৃবৃন্দের উচিত দু’দেশের সম্পর্ক উন্নয়নে দিক-নিদের্শনা দেওয়া।  


সি চিন পিং বলেন, চীনের সাফল্য বা যুক্তরাষ্ট্রের সাফল্য পরস্পরের জন্য সুযোগ, চ্যালেঞ্জ নয়। দু’পক্ষের উচিত সংলাপের পথে চলা ও জয়-জয় ধারণা বজায় রাখা।  


 

চীন-মার্কিন শীর্ষ সম্মেলন আয়োজনস্থল 


তাইওয়ান বিষয়ে সি চিন পিং জোর দিয়ে বলেন, তাইওয়ান হচ্ছে চীনের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও মৌলিক ইস্যু। এটি দু’দেশের রাজনৈতিক সম্পর্কের ভিত্তিও বটে। তাইওয়ান দু’দেশের সম্পর্কের মধ্যে প্রথম লাল রেখা। এ রেখা অতিক্রম করা যাবে না। 


সি চিন পিং বলেন, আন্তর্জাতিক সম্পর্কের মৌলিক নীতি ও তিনটি চীন-মার্কিন যৌথ ইশতাহার মেনে চলা হচ্ছে দু’পক্ষের বিতর্ক নিয়ন্ত্রণ করা ও সংঘর্ষ এড়ানোর মুখ্য উপায়। এতে দু’দেশের সম্পর্ক রক্ষা পাবে ও ক্রমশ উন্নত হবে।  

চীন ও মার্কিন নেতৃবৃন্দ এখানে ফটো সেশান করেন 

 

অধিবেশন ভবনের দরজার সামনের চিত্র 


দু’দেশের নেতৃবৃন্দ গুরুত্বপূর্ণ বৈশ্বিক ও আঞ্চলিক বিষয় নিয়ে আন্তরিক ও গভীরভাবে মত বিনিময় করেন। ইউক্রেন সংকট সম্পর্কে সি চিন পিং জো বাইডেনকে বলেন, চীন সবসময় শান্তির পক্ষে। রুশ-ইউক্রেন আলোচনা পুনরুদ্ধারকে চীন সমর্থন করে।  চীন আশা করে, যুক্তরাষ্ট্র, ন্যাটো, ইইউ রাশিয়ার সাথে সার্বিক সংলাপ চালাবে।  

(আকাশ/আলিম/জিনিয়া)