Web bengali.cri.cn   
রোববারের আলাপন-200209
  2020-02-09 17:22:48  cri

আকাশ: সুপ্রিয় শ্রোতা, সবাইকে স্বাগত জানাচ্ছি চীন আন্তর্জাতিক বেতারের বাংলা অনুষ্ঠানে। আপনাদের আন্তরিক প্রীতি ও শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি আমাদের সাপ্তাহিক আয়োজন 'রোববারের আলাপন'। আপনাদের সঙ্গে আছি আলিম এবং শিয়েনান আকাশ।

আলিম: আকাশ, চীনের বসন্ত উত্সব সম্পর্কিত আমার একটি প্রশ্ন আছে। চীনাদের বসন্ত উত্সব পালনের রীতিনীতি কি সময়ের বিবর্তনে কিছুটা পরিবর্তন হয়েছে?

আকাশ: আসলে এখন আগের চেয়ে রীতিনীতিতে সত্যিই কিছু পরিবর্তন এসেছে। আমি আগে বলেছি, পরিবেশ সংরক্ষণের জন্য এখন চীনের প্রায় সব শহরে আতশবাজি ফুটানো নিষেধ। এ ছাড়া, আমি আরও বলেছি, আগে ছু ইয়ের সময়, মানে চীনের নববর্ষের প্রথম দিনে, আমরা সবাই আত্মিয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব ও প্রতিবেশীদের বাসায় গিয়ে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানাতাম। এখনও আমরা তাদের বাসায় যাই। তবে, এখন আরেকটি নতুন উপায় আছে। আপনি জানেন সেটা কী?

আলিম: উইচ্যাটের মাধ্যমে?

আকাশ: ঠিক বলেছেন। এখন অনেকে দেশের বিভিন্ন জায়গায়, এমনকি দেশের বাইরে থাকেন। বিভিন্ন কারণে দেশের বাড়িতে ফিরে আসতে পারেন না। এজন্য তারা মোবাইলে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

আলিম: আসলে এ উপায় আমার অনেক ভাল লাগে। খুব সুবিধাজনক।

আকাশ: আজকাল লোকজন বসন্ত উত্সব উপলক্ষ্যে পরিবার নিয়ে দেশের ভিতরে অন্য জায়গায় বা বিদেশেও বেড়াতে যায়। গত বছর, মানে ২০১৯ সালের বসন্ত উত্সবের সময়, চীনের মোট সাড়ে ৪১ একচল্লিশ কোটি মানুষ দেশের ভিতরে বা বিদেশে ভ্রমণ করেছেন। তারা বিশ্বের ৯৭টি সাতানব্বই দেশ ও অঞ্চল সফর করেছেন।

আলিম: এতো বেশি লোক?! ওরে বাবা!

আকাশ: কারণ এক সপ্তাহের ছুটিতে গোটা পরিবারের একত্রিত হওয়ার সুযোগ খুবই কম। এই সুযোগটা অনেকেই কাজে লাগান। পরিবার-পরিজন নিয়ে ভ্রমণে বেড়িয়ে পড়েন। এটা একটা পরিবর্তন। আচ্ছা, বড় ভাই, বাংলাদেশে ঈদ বা নববর্ষ পালনের রীতিনীতিতে কি আধুনিক কালে কোনো পরিবর্তন এসেছে

আলিম:...

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040