Web bengali.cri.cn   
প্রসঙ্গ: তৃতীয় পক্ষের বাজারসংশ্লিষ্ট সহযোগিতা গাইড ও কেসস্টাডি
  2019-09-05 11:15:42  cri
সম্প্রতি চীনের জাতীয় উন্নয়ন ও সংস্কার কমিশন চীনা ও ইংরেজি ভাষায় 'তৃতীয় পক্ষের বাজারসংশ্লিষ্ট সহযোগিতা গাইড ও কেসস্টাডি' প্রকাশ করে। কেসস্টাডিগুলো রেলপথ, রাসায়নিক শিল্প, তেল ও গ্যাস, বিদ্যুৎ ও অর্থসহ বিভিন্ন ক্ষেত্র এবং জাপান ও ব্রিটেনসহ বিভিন্ন অংশীদারদের সঙ্গে সম্পর্কিত। তা ছাড়া, ইন্দোনেশিয়া ও ইথিওপিয়াসহ বিভিন্ন দেশে চীনের সহযোগিতাপ্রকল্পগুলোও কেসস্টাডি হিসেবে স্থান পেয়েছে। দেশি-বিদেশি শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে যারা তৃতীয় পক্ষের বাজারসংশ্লিষ্ট সহযোগিতা চালাতে ইচ্ছুক, তাদের কাছে চীনের এই 'তৃতীয় পক্ষের বাজারসংশ্লিষ্ট সহযোগিতা গাইড ও কেসস্টাডির' রেফারেন্স-মূল্য আছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

'তৃতীয় পক্ষের বাজারসংশ্লিষ্ট সহযোগিতা' মানে সংশ্লিষ্ট দেশের শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে চীনা শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলোর তৃতীয় কোনো দেশে অর্থনৈতিক সহযোগিতা চালানো। চীনের প্রকাশিত এই 'গাইড ও কেসস্টাডি'-তে তৃতীয় পক্ষের বাজারসংশ্লিষ্ট সহযোগিতার বিষয়, ধারণা ও নীতি তুলে ধরা হয়েছে। এতে তৃতীয় পক্ষের বাজারসংশ্লিষ্ট সহযোগিতার ব্যবস্থা ও প্লাটফর্মও ব্যাখ্যা করা হয়েছে।

গত বছরের নভেম্বর মাসে মোজাম্বিকের মাপুতো সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হয়। এটি এ ধরনের সহযোগিতার একটি উদাহরণ। এ প্রকল্পটি চীনা কোম্পানির উদ্যোগে নির্মিত হয়। আর জার্মানির গুয়াফ পরামর্শক কোম্পানি এই প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও তত্ত্বাবধানসেবা সরবরাহ করে। চীন পক্ষের দায়িত্বশীল কর্মকর্তা ওয়াং লি চুন বলেন, এ প্রকল্পটি বাস্তবায়নের ফলে এখন সংশ্লিষ্ট সাগর অতিক্রমের সময় দুই-তিন ঘন্টা থেকে ১০ মিনিটে কমিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে। পাশাপাশি এই প্রকল্প স্থানীয়দের জন্য দুই সহস্রাধিক কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে। এতে স্থানীয় পরিবহন-ব্যবস্থারও ব্যাপক উন্নয়ন ঘটে। ওয়াং লি চুন বলেন,

"আমরা এ ধরনের তৃতীয় পক্ষসংশ্লিষ্ট সহযোগিতাকে প্রাধান্য দিচ্ছি। প্রকল্পে পুরোপুরিভাবে চীনের সেতু নির্মাণের প্রযুক্তি এবং জার্মানির তুলনামূলক কঠোর নিরাপত্তা-ব্যবস্থার সমন্বয় ঘটানো হয়েছে। ফলে প্রকল্পটি আন্তর্জাতিকভাবে ব্যাপক স্বীকৃতিও পেয়েছে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে জার্মানি ও চীনা কোম্পানিদ্বয় পরস্পরের কাছ থেকে শিখেছে এবং উপকৃত হয়েছে।"

'গাইড ও কেসস্টাডি' থেকে জানা গেছে, চীন চলতি বছরের জুন মাস পর্যন্ত ফ্রান্স, জাপান, ইতালি ও ব্রিটেনসহ ১৪টি দেশের সঙ্গে তৃতীয় পক্ষের বাজারসংশ্লিষ্ট সহযোগিতাচুক্তি স্বাক্ষর করেছে। চীনের জাতীয় উন্নয়ন ও সংস্কার কমিশনের বিদেশি পুঁজি বিভাগের উপ-প্রধান উ হোং লিয়াং বলেন, সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর সঙ্গে চীনের তৃতীয় পক্ষের বাজারসংশ্লিষ্ট সহযোগিতার কার্যকারিতা দিন দিন বাড়ছে। তিনি বলেন,

"বলা যায়, চীনের শিল্পপ্রতিষ্ঠান, সহযোগী বিদেশি শিল্পপ্রতিষ্ঠান এবং যেখানে প্রকল্প বাস্তবায়িত হয় সেখানকার শিল্পপ্রতিষ্ঠান ও জনগণ এ ধরনের সহযোগিতা থেকে উপকৃত হচ্ছে।"

তৃতীয় পক্ষের বাজারসংশ্লিষ্ট সহযোগিতাকে অর্থনীতির বিশ্বায়নের ঐতিহাসিক প্রবণতার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ আখ্যায়িত করে উ হোং লিয়াং আরও বলেন, ভবিষ্যতে চীন যৌথভাবে 'এক অঞ্চল, এক পথ' উদ্যোগের আওতায় যৌথ আলোচনা, নির্মাণ ও সমন্বিত অর্জন এবং উন্মুক্ত, সবুজ ধারণা ও নীতির ভিত্তিতে এ ধরনের সহযোগিতা জোরদার করবে। চীন সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর সঙ্গে একযোগে তৃতীয় পক্ষের বাজারসংশ্লিষ্ট সহযোগিতার অব্যাহত উন্নয়নকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবে। তিনি বলেন,

"ভবিষ্যতে এ ধরনের সহযোগিতায় অংশীদারের সংখ্যা বাড়বে, সহযোগিতার ক্ষেত্র সম্প্রসারিত হবে, উন্নয়নের নতুন সম্ভাবনা খুঁজে বের করা হবে, এবং এক্ষেত্রে সেবার মান উন্নত করা হবে।" (লিলি/আলিম)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040