Web bengali.cri.cn   
চীনা চলচ্চিত্র শিল্পের দ্রুত গতির উন্নয়ন
  2019-09-05 09:25:55  cri

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে চীনা চলচ্চিত্র শিল্পের উন্নয়নের গতি অনেক দ্রুত। চলতি বছরের ২২তম শাংহাই আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উত্সব চলাকালে বেশ কয়েকজন দেশি-বিদেশি চলচ্চিত্র ব্যক্তি মনে করেন, বিগত ১০ বছরে চীনা চলচ্চিত্র শিল্পের উন্নয়ন অভ্যন্তরীণ চলচ্চিত্র ও বৈশ্বিক চলচ্চিত্রের জন্য বিশাল কল্যাণ বয়ে এনেছে। চীনা চলচ্চিত্র ধাপে ধাপে বৈশ্বিক চলচ্চিত্র শিল্পের ক্ষেত্রে স্থিতিশীলতা বজায় রাখার সঙ্গে সঙ্গে উন্নত হওয়ার গুরুত্বপূর্ণ শক্তি হয়ে ওঠে।

গত বছর চীনে চলচ্চিত্র উপভোগের মোট বক্সঅফিসের পরিসংখ্যান প্রথমবারের মতো ৬০০০ কোটি ইউয়ান রেনমিনপি ছাড়িয়ে যায়, এই সংখ্যা ৯০০ কোটি মার্কিন ডলারের সমান। গত বছর সারা বিশ্বে চলচ্চিত্রের মোট বক্সঅফিসের সংখ্যা ৪১১০ কোটি মার্কিন ডলার। সারা বিশ্বের মধ্যে চীনের বক্সঅফিসের প্রবৃদ্ধির গতি সবচেয়ে দ্রুত। এ প্রসঙ্গে আমেরিকান ফিল্ম অ্যাসোসিয়েশনের এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের মহাপরিচালক মিশেল এলিস বলেন, 'অনেক চলচ্চিত্রের কাছে চীনের বক্সঅফিস অতি গুরুত্বপূর্ণ। প্রতি বছর আমরা বিশ্লেষ করে থাকি, চীনে প্রদর্শিত কোন চলচ্চিত্রের বক্সঅফিস যুক্তরাষ্ট্রের তুলনায় ভালো। চীনা দর্শকেরা আমাদের চলচ্চিত্র পছন্দ করেন দেখে আমরা খুব খুশি। আমাদের শিল্পের জন্য চীন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। তা ছাড়া, সারা বিশ্বে চীনের ডোমেস্টিক ফিল্মের পারফর্মেন্সও খুব ভালো।'

এলিস খেয়াল করেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে চীনের শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। বক্সঅফিস ও আন্তর্জাতিক প্রভাবসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে চীনের চলচ্চিত্রগুলো ভালো ফলাফল অর্জন করে। ব্যাপক চীনা দর্শকেরাও মনে করেন, ডোমেস্টিক চলচ্চিত্র রচনার গুণগত মানও বাড়ছে এবং শ্রেষ্ঠ শিল্পকর্ম অব্যাহতভাবে দেখা দিচ্ছে। চলচ্চিত্রের ক্ষেত্রে বড় রাষ্ট্র থেকে শক্তিশালী রাষ্ট্রে রূপান্তরিত হচ্ছে চীন। গত বছর প্রদর্শিত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে ডোমেস্টিক চলচ্চিত্রের সংখ্যা মোট সংখ্যার ৬০ শতাংশ ছাড়িয়ে গেছে।

চীনা চলচ্চিত্র শিল্পের উন্নয়নের প্রাধান্য প্রসঙ্গে চীনের চলচ্চিত্র শিল্প ও বাজার গবেষণাবিষয়ক বিশেষজ্ঞ ম্যাডাম লিউ চিয়া বলেন, 'আমাদের প্রথম প্রাধান্য হলো, চীনের সংস্কার ও উন্মুক্ততার মৌলিক নীতি। এই নীতি আমাদের শিল্পের উন্নয়নে সহায়ক। দৃঢ় জাতীয় নীতি আমাদের চলচ্চিত্র শিল্পের উন্নয়নকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সহায়ক। দ্বিতীয় প্রাধান্য হলো, আমাদের দ্রুত গতিতে শহরায়নকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া। যা আমাদের চলচ্চিত্র শিল্পের উন্নয়নে সহায়ক। প্রতিটি শিল্পের উন্নয়নের একটি চক্র আছে। আমাদের চীনা চলচ্চিত্র ১০ বছরব্যাপী সোনালী সময়ের পর এখন বিশ্বের দ্বিতীয় স্থানে অন্তর্ভুক্ত হয়।'

বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম চলচ্চিত্র বাজার হিসেবে চীনের চলচ্চিত্র বাজার দিন দিন বহুমুখী হয়ে ওঠে। গত বছর চীনের আমদানিকৃত চলচ্চিত্র বাজার আরো উন্মুক্ত হয়ে ওঠে। সারা বছর ১৮টি দেশ ও অঞ্চলের ১১৮টি চলচ্চিত্র আমদানি করা হয়। এই সংখ্যা ২০১৭ সালের তুলনায় প্রায় ২০ শতাংশ বেশি।

ম্যাডাম লিউ চিয়া বলেন, 'আমাদের আমদানিকৃত চলচ্চিত্রের সংখ্যা এবং রূপ অব্যাহতভাবে বেড়ে যাচ্ছে। এ থেকে চীনের সংস্কার ও উন্মুক্ততার দৃঢ়প্রতিজ্ঞাও প্রতিফলিত হয়। চীনের বাজার বিশ্বের আমদানিকৃত চলচ্চিত্রের গুরুত্বপূর্ণ টিকিটের গুদামে পরিণত হয়। এতে চীনের বাজারের প্রাণবন্ত ভোক্তার ক্ষমতা প্রমাণিত হওয়া ছাড়াও, আমাদের বাজারের উন্মুক্ততা, সহনশীলতা ও বিবিধকরণও প্রতিফলিত হয়।'

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে চীন ও বিদেশের সহযোগিতায় নির্মিত চলচ্চিত্র সারা বিশ্বের দর্শক ও বাজারের স্বীকৃতি পাচ্ছে। 'দ্য মেগ' নামে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতায় নির্মিত চলচ্চিত্র সারা বিশ্বে ভালো বক্সঅফিস ও সমাদর পেয়েছে। চীনের আর্ট অ্যাকাডেমির গবেষক লিউ ফান মনে করেন, চীন ও বিদেশের সহযোগিতায় নির্মিত চলচ্চিত্রের বাজার পরিপক্ক হয়ে যাবে।

লিউ ফান বলেন, 'আমরা ইতোমধ্যেই ২২টি দেশের সঙ্গে সহযোগিতা করে চলচ্চিত্র শুটিং করার চুক্তি স্বাক্ষর করেছি। সর্বশেষ একটি চুক্তি তাজিকিস্তানের সঙ্গে স্বাক্ষরিত হয়। 'এক অঞ্চল, এক পথ' সংলগ্ন দেশের মধ্যে ভবিষ্যতে আমাদের সহযোগিতার সুযোগ বেড়ে যাবে। আমাদের বাজারের উন্নয়নের প্রবণতা অনুযায়ী আমাদের অন্য দেশের চলচ্চিত্র আমদানি করার সংখ্যাও বাড়বে।'

(লিলি/টুটুল)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040