Web bengali.cri.cn   
ফেংসিহ্যে জলাভূমি প্রাকৃতিক সুরক্ষা এলাকার বাইচিয়াসি রক্ষা স্টেশনে কাজ করা একটি পরিবারের গল্প
  2019-08-06 11:09:26  cri
বন্ধুরা, চীনের ছংছিং শহরের খাইচৌ এলাকা ইয়াংসি নদীর তিন গোর্জের কেন্দ্রীয় এলাকায় অবস্থিত। আজকের আসরে আমি আপনাদেরকে খাইচৌ জেলার ফেংসি নদী জলাভূমি প্রাকৃতিক সংরক্ষিত এলাকার বাইচিয়াসিতে জলাভূমিরক্ষী পরিবারের গল্প শোনাবো।

"আমার নাম চু হং পাও। আমি এ জলাভূমি'র পরিচালক ও রক্ষী। সে আমার স্ত্রী, তার নাম স্যু থিং চেন। সে, আমি ও আমার কর্মীদেরকে রান্না করে খাওয়ায়। এটা আমার ছেলে। সেও জলাভূমির একজন রক্ষী। সে স্থায়ীভাবে এখানে সুরক্ষার কাজ করে।"

চু হং পাও তেমন একটা লম্বা নন। সারাক্ষণ তার মুখে হাসি লেগে থাকে। তাঁর কন্ঠ উচ্চ। তিনি জলাভূমিরক্ষী পরিবারের কর্তা।

২০১২ সালে এ পরিবারের তিন জন সদস্য ফেংসি নদী জলাভূমি প্রাকৃতিক সুরক্ষা এলাকার বাইজিয়াসি স্টেশনে আসে। চু হং পাও'র ছেলে চু শি ফিং হলেন সুরক্ষা স্টেশনের একমাত্র রক্ষী। চু হং পাও'র স্ত্রী স্যু থিং চেন হলেন স্টেশনের রাঁধুনি। নিজেকে 'রক্ষী' বলে পরিচয় দেওয়া চু হং পাও আসলে একজন স্বেচ্ছাসেবী শ্রমিক । তাঁর কোনো বেতন নেই।

(ছবি ১: বাইচিয়াসি সুরক্ষা স্টেশনে 'জলাভূমিরক্ষী পরিবার')

ছংছিং শহরের খাইচৌ এলাকার বাইচিয়াসি খাইচৌর জলস্তর নিয়ন্ত্রণ বাঁধের নিচে এবং ফেংসি জলাভূমি প্রাকৃতিক রক্ষা এলাকায় অবস্থিত। বাইচিয়াসি হলো তিন গোর্জ রিসার্ভোয়ার এলাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থান। ফেংসি নদী জলাভূমি প্রাকৃতিক সুরক্ষা এলাকা হলো তিন গোর্জ রিসার্ভোয়ার এলাকার বৃহত্তম জলাভূমি। এলাকাটি জৈবসম্পদে সমৃদ্ধ। এলাকাটির অনেক পশু ও উদ্ভিদ জাতীয় সুরক্ষা নামতালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। সেজন্য এলাকাটি সুরক্ষা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু সুরক্ষা এলাকা নির্মাণের প্রথম দিকে পেশাদার রক্ষী ছিল না এবং কৃষিকাজ, গোচারণ ও অবৈধ শিকার তত্পরতা ছিল এন্তার।

চু হং পাও ছিলেন স্থানীয় গ্রামের চীনা কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিসি)-র কমিটির সম্পাদক। ২০১২ সালে ফেংসিহ্যে জলাভূমি প্রাকৃতিক সুরক্ষা এলাকার পরিচালনা ব্যুরোর প্রধান স্যিয়ং সেন চু হং পাওকে জলাভূমির জন্য একজন দায়িত্বশীল পরিচালক নির্বাচনের অনুরোধ জানান। চু হং পাও মনে করেন, তার নিজের ছেলে চু শি ফিং এ দায়িত্ব পালন করতে পারে।

তখন চু শি ফিংয়ের নিজের একটি ঘরোয়া যন্ত্রপাতি মেরামতের দোকান ছিল। তখন তাঁর মাসিক আয় ৫ থেকে ৬ হাজার ইউয়ান আরএমবি ছিল। তিনি জাহাজ চালাতে পারেন। সময় পেলে তিনি বন্ধুদের সঙ্গে মাছ ধরতে যান। তাঁর জীবনযাত্রার মান তখন কম উন্নত না। কিন্তু বাবা তাঁর জন্য একটি নতুন কাজ নিয়ে এলেন। তখন এ কাজের মাসিক বেতন মাত্র এক হাজার ইউয়ান।

একদিকে পরিবারের ব্যয় মিটানোর সমস্যা, অন্যদিকে তাঁর জন্মস্থান ফেংসিহ্যের পরিবেশ। চু শিং ফিং কঠিন সমস্যায় পড়লেন। কিন্তু তাঁর স্ত্রী তাঁকে পরিবেশ সুরক্ষার কাজে যোগ দিতে উত্সাহিত করেন।

বাইজিয়াসি পরিচালনা ও সুরক্ষা স্টেশনকে কেন্দ্র করে চার পাশের তিন কিলোমিটারের মধ্যে চু শি ফিং কাজ করেন। এ কাজ করার পর চু শি ফিং বুঝেছেন এ কাজ কত কঠিন। তিনি বলেন, "আমরা পরিবেশ সুরক্ষার জন্য অনেক কাজ করেছি। কিন্তু প্রথমে কেউ আমাদেরকে সমর্থন করেনি; আমাদের ভুল বুঝেছে।"

প্রতিবছর বসন্ত ও গ্রীষ্মকালে তিন গোর্জ জলাধারের পানির স্তর ১৭৫ থেকে ১৪৫ মিটার কম হয়। তখন পতন বেল্ট দেখা যায়। সেখানে গ্রামবাসীরা চাষ করেন। যখন নতুন ঘাস হয়, তখন গরু ও ছাগল সেগুলো খায়। চু শি ফিং স্থানীয় বাসিন্দাদেরকে এর বিপদ নিয়ে অনেক বার বলেছেন। কিন্তু তারা বোঝেনি।

এরপর তিনি স্থানীয় বাসিন্দাদের জন্য নতুন কাজ খোঁজার চেষ্টা শুরু করেন।

পতন বেল্ট রক্ষার জন্য প্রচুর গাছপালা রোপণ প্রয়োজন। এ কাজে বহু শ্রমিক প্রয়োজন। চু শি ফিং স্থানীয় বাসিন্দাদেরকে গাছ রোপণের কাজ করতে উত্সাহ দেন। একদিনের আয় একশো ইউয়ান। এর মাধ্যমে স্থানীয় বাসিন্দাদের আয় বৃদ্ধি পায়।

পতন বেল্ট রক্ষায় স্থানীয় বাসিন্দাদেরকে নিয়োগ করা হয়। এতে তাঁদের আয় বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি, চাষ ও গোচারণের সমস্যার সমাধানও হয়ে যায়।

নিজের ছেলে একা সুরক্ষা স্টেশনে কঠিন কাজ করে। চু হং বাও মাঝে মাঝে তাকে সাহায্য করেন। যখন সময় পান, তখন চু হং বাও স্টেশনে গিয়ে ছেলেকে সহায়তা করেন। আগে চু হং বাও ও তাঁর ছেলে প্রতিদিন খুবই ভোরে কাজে যেতেন এবং খুব রাতে বাড়ি ফিরতেন। তাঁরা সময়মতো খেতেও পারতেন না। তাই ফেংসিহ্যে জলাভূমি প্রাকৃতিক সুরক্ষা এলাকার পরিচালনা ব্যুরো স্টেশনের জন্য একজন রাঁধুনি নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নেয়। চু শি ফিংয়ের মা স্যু থিং চেন এ দায়িত্ব পালন করতে শুরু করেন। তাঁর মাসিক বেতন মাত্র ১২০০ ইউয়ান। চু হং বাও স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করেন এবং তাঁর কোন বেতন নেই।

যদিও পরিবারের তিনজন সদস্য স্টেশনে কাজ করেন, তবুও তাদের কাজ কঠিন। প্রতিদিন তাদের ক্লান্তিকর টহল দিতে হয়। চু শি ফিং বলেন, "গ্রীষ্মকালে মাত্র একবার টহল দিতে পাঁচ ঘন্টা লাগে। আমরা এক পরিবারের তিন জন এ বছর দশটিরও বেশি জুতা নষ্ট করেছি। অধিকাংশ জায়গায় কোনো সড়ক নেই। ঘাস মানুষের মতো লম্বা। আমাদের উচিত গামবুট পড়া। পানিতে সাপ আছে। শীতকালে অনেক ঠান্ডা। কিন্তু আমরা প্রতিদিন টহল দিই।"

পানিতে মাছ আছে। শীতকালে পাখিগুলোও উত্তর চীন থেকে আসে। টহলের দায়িত্ব আরও কঠিন হয় শীতকালে। সুরক্ষা এলাকা গ্রীষ্মকালে আর্দ্র ও গরম, কিন্তু শীতকালে ভীষণ ঠান্ডা। চোরা শিকার বা বেআইনি কাঠ কাটা প্রতিরোধও কঠিন কাজ। তাঁদের বেতন কম, কিন্তু দায়িত্ব ভারি। সুরক্ষার কাজ আসলে একটি ভাল চাকরি নয়। কিন্তু কেন এ পরিবারের সদস্যরা এখানে সাত বছর ধরে কাজ করছেন?

চু শি ফিং সরাসরি সাংবাদিকের এ প্রশ্নের জবাব দেননি। তিনি বলেন, "এখন সুরক্ষা এলাকায় পরিবেশ কার্যকরভাবে নিয়ন্ত্রিত হয়েছে। আরও বেশি গাছ রোপণ করা হয়েছে এবং প্রাকৃতিক ঘাস রক্ষা করা হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারা আমাদের কাজের গুরুত্ব বুঝতে শুরু করেছেন।"

(ছবি ২: 'জলাভূমি পরিবার' কর্তৃক রক্ষিত প্রকৃতি)

চু হং বাও হেসে বলেন, "এখন পরিবেশ আগের চেয়ে অনেক ভাল হয়েছে। এখন পানি পরিষ্কার হয়েছে, পানিতে মাছ পাওয়া যায়। প্রথম দিকে আমাদের রোপণ করা গাছগুলো এখন বড় হয়েছে। এখন এখানে পরিবেশ খুবই সুন্দর। আমরা গর্ব করি।"

স্যু থিং চেন হাসেন। তিনি রান্না ঘরে ছেলে ও স্বামীর জন্য রান্না করতে থাকেন।

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040