Web bengali.cri.cn   
সংবাদ পর্যালোচনা প্রসঙ্গ: উপকারিতার ভিত্তিতে সহযোগিতা বৃদ্ধি চীন-যুক্তরাষ্ট্র আর্থ-বাণিজ্যিক সম্পর্কের ভবিষ্যত্ উজ্জ্বল করবে
  2019-07-11 14:56:33  cri

'চীন-যুক্তরাষ্ট্র আর্থ-বাণিজ্যিক সম্পর্ক: বর্তমান অবস্থা ও ভবিষ্যত্' শীর্ষক সেমিনার গত মঙ্গলবার ও বুধবার হংকংয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেমিনারে অংশগ্রহণকারী যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের বাণিজ্য সমিতির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জেফ মোসলি বলেছেন, চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সুসংবদ্ধ বাণিজ্যিক সহযোগিতার ভিত্তি রয়েছে। দু'দেশের শীর্ষনেতারা ওসাকা বৈঠকে গুরুত্বপূর্ণ মতৈক্যে পৌঁছেছেন। তিনি মনে করেন, উপকারিতার ভিত্তিতে সহযোগিতা বাড়ালে চীন-যুক্তরাষ্ট্র আর্থ-বাণিজ্যিক সম্পর্কের ভবিষ্যত্ উজ্জ্বল হবে।

জেফ মোসলি বলেন, ১৯৭৯ সালে দু'দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যিক সম্পর্ক দু'দেশের জনগণের জন্য কল্যাণকর হয়েছে।

তিনি বলেন, গত ৪০ বছরে দু'দেশের মধ্যে আর্থ-বাণিজ্যিক সম্পর্ক থেকে উভয় পক্ষ উপকৃত হয়েছে। আর্থ-বাণিজ্যিক সম্পর্ক সুষ্ঠু থাকলে দু'পক্ষই লাভবান হতে পারে। বলাই বাহুল্য, মার্কিন ক্রেতারা দ্বিপক্ষীয় আর্থ-বাণিজ্যিক সম্পর্ক থেকে অনেক উপকার পেয়েছে। সেই সঙ্গে, চীনের উন্নয়নে অনেকেই উপকৃত হয়েছে। দু'দেশের আর্থ-বাণিজ্যিক সম্পর্কের সুসংবদ্ধ ভিত্তি রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, দু'দেশের শীর্ষনেতাদের ওসাকা বৈঠকে গুরুত্বপূর্ণ মতৈক্য হয়েছে; আর্থ-বাণিজ্যিক বৈঠক পুনরায় শুরু করার বিষয়ে দু'পক্ষ একমত হয়েছে। এ মতৈক্য খুব উত্সাহব্যঞ্জক।

তিনি বলেন, দু'নেতার বৈঠক খুব উত্সাহব্যঞ্জক। ওসাকা বৈঠকের আগে দু'দেশের সম্পর্কে উত্তেজনা ছিলো। ওসাকা বৈঠকের পর আলোচনার মাধ্যমে আর্থ-বাণিজ্যিক বৈঠক আবারও শুরুর সিদ্ধান্ত হয়েছে। টেক্সাস রাজ্য এ বৈঠকের সফলতা কামনা করে।

জেফ মোসলি বলেন, টেক্সাস বর্তমান যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় রপ্তানিমূলক অঙ্গরাজ্য। চীন হচ্ছে টেক্সাসের তৃতীয় বৃহত্তম বাণিজ্যিক অংশীদার। ভবিষ্যতে তেল ও গ্যাসসহ জ্বালানি সম্পদ খাতে দু'দেশের মধ্যে আরও বেশি সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন তিনি। টেক্সাস বাণিজ্য সমিতির শত বছরের ইতিহাস রয়েছে। চীনের সঙ্গে বাণিজ্যিক সহযোগিতা স্থানীয় মানুষকে আরও বেশি কর্মসংস্থানের সুযোগ দিতে পারবে।

তিনি বলেন, আমাদের সমিতি ২০ বছর আগে চীনের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করেছে। চীনের সঙ্গে এই বাণিজ্যিক সম্পর্ক ও স্থানীয় কর্মসংস্থানের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে।

অবশেষে জেফ মোসলি দু'দেশের প্রতি শীর্ষনেতাদের গৃহীত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, উপকারিতার ভিত্তিতে সহযোগিতা সম্প্রসারণ করলে দু'দেশের আর্থ-বাণিজ্যিক সম্পর্কের ভবিষ্যত উজ্জ্বল হবে।

তিনি বলেন, দু'দেশের একটি 'উইন-উইন' চুক্তিতে পৌঁছানো উচিত। দু'দেশ এ সম্পর্ক থেকে উপকৃত হবে এ ব্যাপারকে অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত। আমাদের উদ্বেগ দূর হলে অভিন্ন স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো গুরুত্ব পাবে। এভাবে আমাদের ভবিষ্যত্ আরও উজ্জ্বল হতে পারে।

(স্বর্ণা/তৌহিদ/মুক্তা)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040