Web bengali.cri.cn   
সুরের ধারায়---গরমকালে ঠাণ্ডা গান শুনুন
  2019-07-25 18:52:38  cri


বন্ধুরা, গ্রীষ্মের গরমে আপনি কীভাবে আরাম করবেন? রুমে বসে এয়ার কন্ডিশনার উপভোগ করে? শীতল পানিতে সাঁতার কেটে? নাকি আইসক্রিম খেয়ে? চীনা ভাষায় এক কথায় বলা হয়: মন শান্ত হলে, শরীর ঠাণ্ডা থাকে।

বন্ধুরা, আজকের অনুষ্ঠানে আমরা একসঙ্গে কিছু ঠাণ্ডা গান শুনবো। আশা করি, গরমের মধ্যে আপনার মনও শান্ত হয়ে যাবে।

এখন চীনে সবচেয়ে গরমের সময় চলছে। প্রাচীনকালে চীনারা চান্দ্রপঞ্জিকা অনুসারে জুন ও অগাস্টের ৪০ দিন 'সান ফু থিয়ান' অর্থাত 'চরম গরম দিন' নির্ধারণ করে। গরমকাল পড়লেই লোকেরা 'সান ফু থিয়ানের' জন্য প্রস্তুতি নেয়। তারা বাড়িতে প্রয়োজনীয় ওষুধ রাখে, মাদুর ও গরমের কাপড় কেনে, শীতল খাবার প্রস্তুত করে ইত্যাদি। আর, খাবারের কথা বললে গরমকালে ঠাণ্ডা সোডাওয়াটার পান করা খুব উপভোগ্য ব্যাপার। বন্ধুরা, এখন একটি সুন্দর গান 'কমলা সোডাওয়াটার' শুনবো।

গরমকালে এক ধরনের পোকা দেখা যায়-ঘুর্ঘুরে পোকা। এর শব্দ শুনলে বোঝা যায়- বাইরে কত গরম! অনেকে এর শব্দে খুব বিরক্ত হন। তবে চীনে এর অন্য অর্থ আছে। চীনা ভাষায় ঘুর্ঘুরে পোকার একটি নাম 'ছান'। এর উচ্চারণ 'Zen'-এর কাছাকাছি। প্রাচীন চীনারা মনে করতো, ঘুর্ঘুরে পোকার বিরক্তিকর শব্দ 'Zen'-এর এক ধরনের অবস্থা। অর্থাৎ, বাইরে যাই হোক, মন শান্ত থাকতে হবে। বন্ধুরা, এখন চীনা গান 'ঘুর্ঘুরে পোকার গান' শুনবো এবং গরমকালে মন শান্ত রখাবো।

গরমকালের ঘুর্ঘুরে পোকার পাশাপাশি আরও একটি পোকা দেখা যায়। সেটি জোনাকি পোকা! রাতে নদী পুকুরে আলো ছড়ায় জোনাকি। জোনাকি নিয়ে রোমান্টিক গল্প কল্পনা করতো প্রাচীন চীনের মানুষ। তখন লোকেরা জানতো না- জোনাকি কোথা থেকে আসে! শুধু জানতো, নদী ও পুকুরের পাশে গাছপালায় এগুলো দেখা যায়। লোকেরা মনে করত, পচা ঘাস থেকে জোনাকির জন্ম হয়, জোনাকি মরে গেলে আবার ঘাস সমৃদ্ধ হয়। বন্ধুরা, এখন শুনুন রোমান্টিক কল্পনা অনুসারে রচিত চীনা বৈশিষ্ট্যময় একটি সুন্দর গান—'পচা ঘাস ও জোনাকি'।

বন্ধুরা, এবার আমরা শুনবো, চীনা গায়ক চৌ শেনের গান 'বড় মাছ'। চৌ শেন তার স্পষ্ট কণ্ঠের জন্য বিখ্যাত। এই গানে তিনি কণ্ঠশৈলী প্রদর্শন করে সমুদ্র, মাছ ও মানুষ সম্পর্কে একটি রোমান্টিক গল্প বলেছেন। বন্ধুরা, এখন সুন্দর গান 'বড় মাছ' শুনবো। আশা করি, গায়কের স্পষ্ট কণ্ঠ গরম পরিবেশে আপনার মন শান্ত করবে।

চীনা সংস্কৃতিতে বিশেষ করে প্রাচীন কবিতায় উল্লেখিত জলধারা, বাঁশবন, পদ্মফুল, বনের মধ্যে দিয়ে বয়ে যাওয়া বাতাস লোকদের মনে ঠাণ্ডা ও শীতল অনুভূতি দেয়। গরমকাল সম্পর্কিত প্রাচীন কবিতায় এসব জিনিসের বর্ণনা দেখা যায়। কল্পনা করুন, বনের ঘন গাছ তীব্র সূর্যালোক ঠেকিয়ে দিয়েছে, পায়ের পাশ দিয়ে বয়ে যাচ্ছে জলধারা, বনের বাতাস শীতল আবহাওয়া নিয়ে এসেছে। একটা ঠাণ্ডা অনুভূতি হচ্ছে, তাইনা বন্ধুরা? এখন চীনা বেশিষ্ট্যময় এ গানটি শুনবো।

গরম গ্রীষ্মকাল পানিতে খেলাধুলা করার ভালো সময়। এসময় সাঁতার কাটা, সার্ফিং, ড্রিফটিং খুবই আরামদায়ক। বন্ধুরা, এখন চীনা গান 'প্রবাহিত নদী' শুনবো।

অনুষ্ঠানের শেষে আমরা আরও একটি সুন্দর গান 'গরমকালের বাতাস' শুনবো। আশা করি, এসব গান শুনে মন শান্ত হবে, আপনারা সুষ্ঠুভাবে গ্রীষ্মকাল কাটাবেন।

 (তুহিনা/তৌহিদ/ওয়াং হাইমান)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040