Web bengali.cri.cn   
নিউইয়র্কের লিঙ্কন সেন্টারে চীনা অপেরা 'চিয়ান চেংয়ের ইস্ট ক্রসিং' মঞ্চস্থ
  2019-07-02 09:35:34  cri

২২ জুন সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের লিঙ্কন সেন্টারে চীনের মৌলিক অপেরা 'চিয়ান চেংয়ের ইস্ট ক্রসিং' মঞ্চস্থ হয়েছে। পশ্চিমা অপেরা শিল্পের মোড়কে প্রাচ্য ইতিহাস এবং সংস্কৃতির গল্প বলা এবং পূর্ব ও পশ্চিমের মধ্যে সাংস্কৃতিক বিনিময়ের একটি উজ্জ্বল নিদর্শন এটি।

আমেরিকার সময় ২২ জুন সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের লিঙ্কন সেন্টারে ডেভিড ওয়াকার থিয়েটার রুমে এটি মঞ্চস্থ হয়। যুক্তরাষ্ট্র সফররত চীনের আধুনিক অপেরা 'চিয়ান চেংয়ের ইস্ট ক্রসিং'। অপেরায় চীনের থাং রাজবংশের বৌদ্ধভিক্ষু চিয়ান চেং ছয়বার জাপানে গিয়ে বৌদ্ধ সংস্কৃতি প্রচারের চেষ্টা করেন। তার কঠিন অভিজ্ঞতা এবং সাংস্কৃতিক বিনিময় উন্নয়নের কঠোর পরিশ্রমের গল্প এই অপেরা।

স্বতন্ত্র প্রাচ্য বৈশিষ্ট্যগুলির একটি মূল অপেরা হিসাবে, 'চিয়ান চেংয়ের ইস্ট ক্রসিং' পশ্চিমা ঐতিহ্যবাহী অপেরা ফর্মগুলির ভিত্তিতে চীনের চিয়াংসু প্রদেশের লোকসংগীত এবং বৌদ্ধ সংগীতের উপাদানগুলিকে একত্রিত করে। এটা পূর্বের ইতিহাস এবং মানবতার অনন্য জ্ঞান তুলে ধরেছে।

এ অপেরায় চিয়ান চেংয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন চীনের বিখ্যাত গায়ক থিয়েন হাও চিয়াং। তিনি বলেন, 'চিয়ান চেংয়ের ইস্ট ক্রসিং' তাঁর প্রথম অপেরা কর্ম। তিনি লিঙ্কন সেন্টারে চীনা ভাষায় গান গেয়েছিলেন। তিনি বলেন, একজন শিল্পী হিসাবে তিনি সংগীতের মাধ্যমে বিভিন্ন সংস্কৃতির মধ্যে বিনিময় করতে ইচ্ছুক। থিয়েন হাও চিয়াং বলেন,

"এই শিল্পকর্মটি আসলে চীনকে আরও ভালোভাবে বোঝার জন্য পশ্চিমা দর্শক এবং আমেরিকান দর্শকদের সুযোগ দিয়েছে। ইতিহাস, সংস্কৃতি এবং সংগীতের দৃষ্টিকোণ থেকেও তারা চীনকে আরও ভালোভাবে বুঝতে পারবে। সংগীত মানুষের মনের সঙ্গে যোগাযোগের সেরা উপায়। আমি খুব খুশি যে, 'চিয়ান চেংয়ের ইস্ট ক্রসিং' লিঙ্কন সেন্টারে পরিবেশন করা হয়েছে। আমি মনে করি, দর্শকরা এর কথা কখনও ভুলতে পারবেন না।"

'চিয়ান চেংয়ের ইস্ট ক্রসিং'-এর প্রযোজক বলেন, যদিও চিয়ান চেং গল্পটি চীনের থাং রাজবংশের সময়ের ঘটনা; তারপরও আজকের দিনে এটি অনেক অনুপ্রেরণা দেয় এবং এর ব্যবহারিক তাত্পর্য আছে। হাজার বছর আগে, বৌদ্ধভিক্ষু চিয়ান চেং সাংস্কৃতিক বিনিময়ের একটি সেতু তৈরি করেছিলেন। হাজার বছর পর আজ, অপেরা 'চিয়ান চেংয়ের ইস্ট ক্রসিং' আবার সংগীত ও গানের মাধ্যমে পূর্ব ও পশ্চিমের মধ্যে সাংস্কৃতিক বিনিময়ের একটি সেতু স্থাপন করেছে।

অপেরার পরিচালক সিং সি মিয়াও এক সাক্ষাত্কারে বলেন, তিনি আশা করেন, চীনের সংস্কৃতি বিভিন্ন দেশে ও বিশ্বের মানুষের কাছে যাবে এবং মানুষের স্বাভাবিক অনুভূতির ওপর ভিত্তি করে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক পটভূমিতে বোঝাপড়া বাড়বে।

তিনি বলেন,

"মানুষের অনুভূতিগুলি আসলে একই রকম, তাই যোগাযোগ সহজ; সেই সঙ্গে সাদৃশ্য, বিশুদ্ধতা ও প্রতিশ্রুতি একই রকম। মানুষের অনুভূতির কোনো সীমানা নেই। আমি মনে করি পশ্চিম বা পূর্ব দেশের দর্শক চিয়ান চেংয়ের গল্পটি শুনে মুগ্ধ হবেন।"

নিউইয়র্কে চীনের কনসাল হুয়াং ভিং অপেরার আগে দেওয়া এক বক্তৃতায় বলেন, অপেরা 'চিয়ান চেংয়ের ইস্ট ক্রসিং' এবার নিউইয়র্ক সফরের সময় বিভিন্ন সংস্কৃতি ও সভ্যতার মধ্যে বিনিময় ও পারস্পরিক শিক্ষা অর্জনের বিষয়টি জোরদার করবে এবং চীন ও আমেরিকার জনগণের মধ্যে বোঝাপড়া ও বন্ধুত্ব আরও গভীর করতে সহায়তা করবে। তিনি বলেন,

"আমরা সভ্যতার মধ্যে পারস্পরিক বোঝাপড়াকে গুরুত্ব দিয়েছি। আমরা নিউইয়র্কে এই বিস্ময়কর গল্পটি নিয়ে এসেছি। সভ্যতার যোগাযোগের গুরুত্বকে চিত্রিত করতে আমরা এই গল্পটি ব্যবহার করতে চাই। এই অপেরাটি উপভোগের পর, দুই দেশের জনগণের মধ্যে বিনিময় শক্তিশালী করার ক্ষেত্রে আস্থা বাড়বে এবং দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক উন্নয়নের ভিত্তি দৃঢ় হবে।"

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040