Web bengali.cri.cn   
ওয়েনচৌয়ের বেসরকারি খাতের উন্নয়নে সরকারি সহায়তা প্রসঙ্গ
  2019-06-22 16:59:14  cri
চীনের সংস্কার ও উন্মুক্তকরণ নীতি কার্যকর হওয়ার প্রথম দিকে ওয়েনচৌ বেসরকারি খাতের অর্থনীতির মান চীনের একেবারে পুরোভাগে ছিল। কিন্তু নতুন যুগে অন্যান্য শহরগুলো ওয়েনচৌকে বেসরকারি অর্থনীতির ক্ষেত্রে পিছনে ফেলে সামনে এগিয়ে গেছে। কারণ, সনাতন অর্থনৈতিক পদ্ধতি নতুন উন্নয়নের চাহিদা পূরণে সক্ষম নয়। ওয়েনচৌ'র অর্থনৈতিক উন্নয়নের পদ্ধতি নব্যতাপ্রবর্তন, প্রযুক্তিগত সংস্কার, শিল্পের আপগ্রেডেশান ইত্যাদি চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়।

পরিবর্তনে সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়া, প্রতিষ্ঠানের পরিচাল-ব্যয় কমানো, এবং কার্যকরভাবে প্রতিষ্ঠানের চালিকাশক্তি বাড়ানোর জন্য ওয়েনচৌ শহরের পৌর সরকার প্রথমে প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর চাপ হ্রাস করার ব্যবস্থা নেয়। ওয়েনচৌয়ের লেছিংয়ে হংছিয়াও থানার হ্যেসিং গাড়ী ইলেকট্রনিক্স কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান ও সিএফও চৌ রু চং এ সম্পর্কে বলেন, "গত এপ্রিল মাস থেকে মূল্য সংযোজন কর ১৬ শতাংশ থেকে ১৩ শতাংশে কমানো হয়েছো।"

ওয়েনচৌ শহরের পৌর সরকার গত বছর প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর থেকে ১৫.৩ বিলিয়ন ইউয়ানের চাপ হ্রাস করেছে। আর চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর থেকে ৩.৬২ বিলিয়ান ইউয়ান কর হ্রাস করা হয়েছে। এ ছাড়া, প্রযুক্তির ক্ষেত্রে ভর্তুকি দেওয়ার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানগুলোর কাঠামো উন্নয়নে সহায়তা দিয়েছে পৌর সরকার। এ সম্পর্কে তিনি আরো বলেন, "আমাদের পৌর সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিনিয়োগ ও প্রযুক্তিগত সংস্কারের জন্য ভর্তুকি দেয়। গত ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত এক বছরে আমরা এক কোটি ইউয়ান ভর্তুকি পেয়েছি।"

শুরু পৌর সরকারের ভর্তুকি আছে, তা নয়; গত এপ্রিল মাসে সামাজিক নিরাপত্তা ও পেনশন তহবিল চৌ রু চংয়ের কোর্পোরেশনকে ৭৫ লাখ ইউয়ান ভর্তুকি দিয়েছে। আসলে লেছিংয়ে হ্যেসিংয়ের মত ভর্তুকি পাওয়া বেসরকারি প্রতিষ্ঠান আরো আছে। জুনলাং ইলেক্ট্রিক কোম্পানির লি চি স্যিয়ং দশ বছর আগে চিয়াংসি থেকে লেছিংয়ে আসেন। তখন তিনি ছিলেন একজন তরুণ। প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার সময় তার নিবন্ধিত মূলধন ছিল মাত্র ৩ লাখ ইউয়ান। কিন্তু বর্তমানে তাঁর মূলধন ২০ কোটি ইউয়ান। তাঁর মনে হয়, নিজের পরিশ্রম ছাড়াও পৌর সরকারের নির্দেশনা ও সমর্থন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ সম্পর্কে তিনি বলেন, "আমার মনে হয়, সরকারের সমর্থনে এ বছর আমার মূলধন ৪০ কোটি ইউয়ানে দাঁড়াবে। সরকার আমাদেরকে বিনিয়োগ, কারখানা নির্মাণ ও প্রযুক্তিগত সংস্কারের ক্ষেত্রে সহায়তা দিয়েছে।"

বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর চাপ হ্রাস করা ছাড়াও, পৌর সরকার ঋণের সুদের হার কমানোসহ বিভিন্ন ব্যাংকিং ব্যবস্থা নেওয়ার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানগুলোর অর্থ সংগ্রহের কঠিন সমস্যা সমাধান করেছে। ২০১০ সালে লেছিং শহরের বৈদ্যুতিক শিল্পের অর্ধেকর বেশী প্রতিষ্ঠান অর্থের অভাবে উত্পাদন বন্ধ রাখে। লেছিং অর্থনীতি ও শিল্প কমিশনের পরিচালক ওয়াং শৌ গেন তখন ছিলেন মানদন্ড তত্ত্বাবধান ব্যুরোর পরিচালক। তখন তিনি জরুরি স্থানান্তর ঋণের জন্য বিশেষ তহবিলের প্রশাসনিক ব্যবস্থার কার্যকর কাজে অংশ নিয়েছিলেন। এ সম্পর্কে তিনি বলেন, "পৌর সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য ১৫ কোটি ইউয়ানের গ্যারান্টি ফান্ড গড়ে তোলে। পৌর সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যাংকঋণ পরিশোধ করে। ২০১৮ সালের শেষ দিক পর্যন্ত পৌর সরকার মোট ৩১৫টি প্রতিষ্ঠানকে ২৫৫৯ বার জরুরি স্থানান্তর ঋণ দিয়েছে, যার পরিমাণ ১৯৩৪.৪ কোটি ইউয়ান আরএমবি। এর মাধ্যমে কার্যকরভাবে প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যবসা-সমস্যার সমাধান করা হয়েছে।"

এ ছাড়াও, পৌর সরকার ব্যবসার পরিবেশ উন্নয়নের চেষ্টা অব্যাহত রাখে। পৌর সরকার আগের জটিল ১৭৮ ধরনের বিভিন্ন নীতি ও নিয়ম কমিয়ে কৃষি, শিল্প, সেবাশিল্প, উন্মুক্ত অর্থনীতি ও প্রতিভাবান ব্যক্তি—এই পাঁচটি শিল্পের আইন ও নিয়মে একত্রিত করে। এর ফলে ব্যাপকভাবে প্রশাসনিক জটিলতা কমে আসে। লেছিং শহরের অর্থনীতি ও প্রযুক্তি উন্নয়ন এলাকার ব্যবসা ও শিল্পপ্রতিষ্ঠান সেবাকেন্দ্রের প্রথম হল হচ্ছে সুবিধা ও সেবা হল। এলাকাটির পরিচালনা কমিশনের স্থায়ী উপপরিচালক চৌ ছাও রং বলেন, তাঁরা আবেদনের প্রক্রিয়া সহজায়ন করেছেন। এ সম্পর্কে তিনি বলেন, "উন্নয়ন এলাকাটির অনুমোদন-ব্যবস্থা সমন্বয় করা হয়েছে। আগে সংশ্লিষ্ট অনুমোদনের জন্য আবেদন থেকে শুরু করে নির্মাণ-পরিকল্পনা পর্যন্ত অর্ধেক বছর কেটে যেতো। কিন্তু বর্তমান এ প্রক্রিয়া মাত্র ৩০ দিনে শেষ হয়।"

লেছিং শহর বেসরকারি অর্থনীতি উন্নয়নের সুবিধা উন্নয়নের ভিত্তিতে পৌর সরকার উত্পাদন, জীবন, বাণিজ্য ও রাজনীতির পরিবেশ উন্নয়নের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে, যাতে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য আরো সুবিধাজনক পরিবেশ গড়ে তোলা যায়।

প্রতিষ্ঠানগুলোর কাঠামো পরিবর্তন অথবা পণ্যের মান উন্নয়ন জরুরি। লেছিং মূলত বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য নির্ধারিত অর্থনৈতিক এলাকা। অথচ এখানকার শিক্ষা-ব্যবস্থা এবং বসবাসের পরিবেশ উন্নত না। এতে প্রতিষ্ঠানগুলোতে কাজ করতে প্রতিভাবান ব্যক্তিবর্গ উত্সাহিত হন না। জুনলাং বৈদ্যুতিক কোম্পানির লি চি স্যিয়ং বলেন, "আমার মনে হয়, শিক্ষা-ব্যবস্থা উন্নয়নে সমর্থক-ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। প্রতিভাবান ব্যক্তিরা অর্থনীতি উন্নয়নের একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণা।"

প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে প্রতিভাবান ব্যক্তি দরকার। স্থানীয় পৌর সরকার গবেষণাকেন্দ্র ও উত্পাদন সদর দফতর আলাদা করেছে। এ সম্পর্কে লেছিং অর্থনীতি ও শিল্প কমিটির পরিচালক ওয়াং শৌ গেন বলেন, "হাংচৌ ও শাংহাই'র উপকূলবর্তী একাডেমি, গবেষণাকেন্দ্র ও উত্পাদন সদর দফতর আলাদা করা হয়েছে। পৌর সরকার ভর্তুকি দেয় এবং বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যৌথ পরীক্ষাগার গড়ে তুলেছে। এর মাধ্যমে নব্যতাপ্রবর্তন ও প্রতিভাবান ব্যক্তি খুঁজে বের করা সহজতর হয়েছে।"

সংস্কার ও উন্মুক্তকরণের বিভিন্ন সময়ে চীনা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো বিভিন্ন কঠিন সময় অতিক্রম করেছে। কিন্তু ওয়েনচৌতে যখন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো কঠিন পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়, তখন পৌর সরকার প্রয়োজিনী নীতি ও সম্পদ সরবরাহ করে তা সমাধানের ব্যবস্থা নেয়। ওয়াং শৌ গেন আস্থার সঙ্গে বলেন, ওয়েনচৌ'র অর্থনীতি একটি নতুন পর্যায়ে উন্নীত হবে।

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040