Web bengali.cri.cn   
কাও শেং মেই
  2019-06-11 18:23:43  cri

কাও শেং মেই, ১৯৬৯ সালের ২৭ জানুয়ারি চীনের তাইওয়ান প্রদেশের কাও সিয়োং শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি হলেন তাইওয়ানের বিখ্যাত গায়িকা।

চার ভাই-বোনের মধ্যে কাও শেং মেই হলেন পরিবারের সবচেয়ে ছোট মেয়ে।

১৯৭৭ সালে কাও শেং মেই কাও সুং শহরের 'কণ্ঠশিল্পী' প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে তৃতীয় পুরস্কার লাভ করেন। এরপর থেকে তিনি সবসময় স্কুলের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন।

১৯৮২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে কাও শেং মেই উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তি হন, এরপর তুমুল প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়ে কাও শেং মেই তাইওয়ানের 'সিটিএস টেলিভিশনের গায়ক প্রশিক্ষণ ক্লাসে' অংশ নেন।

১৯৮৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে, কাও শেং মেই-এর বন্ধু সংগীত কোম্পানিতে সাক্ষত্কার দেন, কাও শেং মেই বন্ধুর সঙ্গে সেখানে যান। তবে সংগীত কোম্পানি কাও শেং মেই-এর কণ্ঠে মুগ্ধ হয়ে তার সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করে। এরপর তার প্রথম অ্যালবাম 'বিশেষ সম্পর্ক' প্রকাশিত হয়। এই অ্যালবাম প্রকাশের মাধ্যমে কাও শেং মেই আনুষ্ঠানিকভাবে সংগীত মহলে যোগও দেন।

১৯৮৬ সালের জানুয়ারি মাসে কাও শেং মেই-এর আরেকটি অ্যালবাম 'আপনার সমৃদ্ধি কামনা করি' এবং 'পুরোনো গানের স্মৃতি' প্রকাশিত হয়।

১৯৮৭ সালে কাও শেং মেই-এর আরেকটি অ্যালবাম 'শেং শেং মান' বাজারে আসে এবং সে বছর থেকে চীনের মূল-ভূভাগে কাও শেং মেই আস্তে আস্তে পরিচিত হয়ে ওঠে।

১৯৮৭ সালে কাও শেং মেই-এর তৃতীয় অ্যালবাম 'পাহাড়ের প্রেমের গান' রিলিজ হয়। এই বছর এই অ্যালবাম বিক্রি হয় দশ লাখেরও বেশি কপি।

১৯৮৮ সালের জানুয়ারি মাসে, কাও শেং মেই-এর অ্যালবাম 'জ্বর', এপ্রিল মাসে তার অন্য একটি অ্যালবাম 'পাহাড়ের প্রেমের গান ৩' বাজারে আসে।

একই বছরের জুলাই মাসে তার আরেকটি অ্যালবাম 'অতীত জীবনে নির্ধারণ', নভেম্বর মাসে তার অ্যালবাম 'পুরোনো গানের স্মৃতি ১০' প্রকাশিত হয়।

১৯৮৮ সালের ডিসেম্বর মাসে, কাও শেং মেই-এর অ্যালবাম 'আমার স্বপ্ন বলা' প্রকাশিত হয়। প্রকাশের পর পরই এই অ্যালবাম তাইওয়ান প্রণালীর দু'তীরের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়। এর মাধ্যমে কাও শেং মেইকে 'নাম করা ব্যক্তিদের অভিধানে' অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

১৯৮৯ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে, কাও শেং মেই-এর অ্যালবাম 'গাংচিল ও রংধনু মেঘ' প্রকাশিত হয়। এই অ্যালবাম হল সেই বছর চীনের মূল-ভূভাগের বাজারে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া অ্যালবাম, তা মোট বিক্রি হয় ৬ লাখ কপি।

১৯৯০ সারের ফেব্রুয়ারি মাসে, কাও শেং মেই-এর অ্যালবাম 'ছয় স্বপ্ন' রিলিজ হয়। ১৯৯২ সালে কাও শেং মেই চীনের ছুংছিং শহরে সঙ্গীতানুষ্ঠান আয়োজন করেন। একই বছরের মার্চ মাসে তার অ্যালবাম 'কাও শেং মেই-এর শ্রেষ্ঠ গান' রিলিজ হয়।

১৯৯২ সালের ডিসেম্বর মাসে কাও শেং মেই-এর অ্যালবাম 'দ্যা লেজেন্ড অব হোয়াইট স্নেক' রিলিজ হয়, তা হল টিভি সিরিজ 'দ্যা লেজেন্ড অব হোয়াইট স্নেক'-এর গানের সংগ্রহ। এই টিভি সিরিজ তখন চীন, ইউরোপ এবং আমেরিকায় প্রবাসী চীনাদের জগতে অনেক অনেক জনপ্রিয়তা লাভ করে। কাও শেং মেই-এর গাওয়া এই টিভি সিরিজের গানও সবাই ব্যাপকভাবে পছন্দ করে।

১৯৯২ সালে কাও শেং মেই 'খু সা' গানটি নিয়ে তাইওয়ানের চতুর্থ গোল্ডেন ম্যালডি অ্যাওয়ার্ডের শ্রেষ্ঠ চীনা ভাষার গায়কের পুরস্কার জিতে নেন।

১৯৯৭ সালে তার অ্যালবাম 'ভালোবাসার রোগ' প্রকাশিত হয়।

সঙ্গীত মহলে যোগ দেয়া থেকে এই পর্যন্ত কাও শেং মেই-এর ৫৯টি অ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে, তার গানের সংখ্যা ৬ শতাধিক। ২০০৫ সালে কাও শেং মেই বেইজিংয়ে ব্যক্তিগত সঙ্গীতানুষ্ঠান আয়োজন করেন।

প্রিয় শ্রোতাবন্ধুরা, আজকের অনুষ্ঠানে মূলত আপনাদেরকে চীনের জনপ্রিয় গায়িকা কাও শেং মেই-এর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিলাম এবং তার কণ্ঠে কয়েকটি সুন্দর গান শোনালাম। আশা করি গানগুলো আপনাদের ভালো লেগেছে।

আজকের অনুষ্ঠান এখানেই শেষ হলো। সবাই ভালো থাকুন, সুন্দর থাকুন। পরের আসরে আবার কথা হবে। (শুয়েই/টুটুল/সুবর্ণা)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040