Web bengali.cri.cn   
লি ইয়ু কাং
  2019-05-28 19:20:22  cri

লি ইয়ু কাং, চীনের যুব শিল্পী। তিনি চায়না অপেরা এ্যান্ড ড্যান্স-ড্রামা থিয়েটার এর দেশের প্রথম শ্রেণীর অভিনেতা। ১৯৭৮ সালের ২৩ জুলাই চীনের চিলিন প্রদেশের কুং জু লিং শহরে জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৯৬ সালে লি ইয়ু কাং উচ্চ বিদ্যালয় পাসের পর শ্রেষ্ঠ ফলাফল নিয়ে চিলিন প্রদেশের চিলিন কলেজ অব আর্টস-এ ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করেন। তবে পরিবারের আর্থিক অবস্থা খুব খারাপ থাকায় টাকার অভাবে লি ইয়ু কাং বাধ্য হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ছেড়ে দেন। ১৯ বছর বয়সী লি ইয়ু কাং বাবা মাকে একটি চিঠি লিখে ২ শ ইউয়ান নিয়ে ছাং ছুন শহরে চাকরি করার জন্য যান।

লি ইয়ু কাং চীনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের এক ছোট গ্রাম থেকে ছাং ছুন শহরে যান। তিনি রেস্তরাঁর সেবক, ছোট পানশালায় গান গাওয়াসহ বিভিন্ন কাজ করেন। ২০০০ সালে তিনি শেন চেন শহরে একটি ছোট কোম্পানি চালু করেন, কিন্তু অল্প সময় পর কোম্পানিটি বন্ধ হয়ে যায়।

ব্যবসায় ব্যর্থ হয়ে লি ইয়ু কাং আবার শিল্পের পথে ফিরে আসেন। এ সময় তার একটি রেকর্ডার কেনার টাকাও ছিলোনা, তাই লি ইয়ু কাং সিডির দোকানে চাকরি করেন, কাজের পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন সিডি শুনে গান গাওয়ার পদ্ধতি শিখে ফেলেন। তার পর রাতে তিনি পানশালায় গান গেয়ে টাকা পয়সা পান।

একবার পানশালায় লি ইয়ু কাং এবং অন্য একজন গায়িকার একসাথে 'কার জন্য' নামে গান গাওয়ার কথা ছিল, কিন্তু সেই গায়িকা আসতে পারেন নি, তাদের অনুষ্ঠান বাতিল হয়ে যাওয়ার কথা, এই সময় লি ইয়ু কাং বলেন, আমি নিজেই পুরুষ এবং নারীর কন্ঠে গাইতে পারি, আমি একাই এই গান গাইবো। তার পর তিনি নিখুঁতভাবে পুরুষ এবং নারীর কন্ঠে এই গান পরিবেশন করেন এবং সবার প্রশংসা ও স্বীকৃতি পান। ঠিক এই সুযোগে লি ইয়ু কাং আবিষ্কার করেন যে নারীর কন্ঠে তিনি গান গাইতে পারেন এবং এটা খুব বিশেষ এক পদ্ধতি।

২০০৬ সালে লি ইয়ু কাং বেইজিংয়ে চীনের কেন্দ্রীয় টেলিভিশন সিসিটিভির আয়োজিত সঙ্গীতানুষ্ঠান 'সিংকুয়াংতাতাও'-এ যোগ দেন এবং সেই বছরের তৃতীয় পুরস্কার পান। এর মাধ্যমে তিনি চীনা দর্শকদের কাছে পরিচিত হন এবং বিখ্যাত হয়ে উঠেন।

২০০৭ সালে লি ইয়ু কাং বেইজিংয়ে 'ফুলের সীমানা নেই' নামে সঙ্গীতানুষ্ঠান পরিবেশন করেন। ২০০৯ সালে তিনি অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে আরেকটি সঙ্গীতানুষ্ঠান আয়োজন করেন এবং সিডনি সরকারের 'সংস্কৃতি স্বর্ণ পদক' লাভ করেন। একই বছর তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে চায়না অপেরা এ্যান্ড ড্যান্স-ড্রামা থিয়েটারে যোগ দেন।

২০১০ সালে লি ইয়ু কাং-এর 'জিংহুয়াসুইইয়ে' নামে সঙ্গীতানুষ্ঠান আয়োজিত হয়। সারা বিশ্বে তার মোট ৩০টি সঙ্গীতানুষ্ঠান আয়োজিত হয়। ২০১২ সালে লি ইয়ু কাং প্রথমবারের মত চীনের সিসিটিভির বসন্ত উত্সবের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মঞ্চে উঠে গান পরিবেশন করেন।

প্রিয় শ্রোতাবন্ধুরা, আজকের অনুষ্ঠানে মূলত আপনাদেরকে চীনের জনপ্রিয় গায়ক লি ইয়ু কাং-এর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিলাম এবং তার কণ্ঠে কয়েকটি সুন্দর গান শোনালাম। আশা করি গানগুলো আপনাদের ভালো লেগেছে।

আজকের অনুষ্ঠান এখানেই শেষ হলো। সবাই ভালো থাকুন, সুন্দর থাকুন। পরের আসরে আবার কথা হবে।

(শুয়েই/টুটুল/সুবর্ণা)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040