Web bengali.cri.cn   
'পাপড়ি বৃষ্টি'
  2019-05-27 15:18:36  cri


বন্ধুরা, আজকের অনুষ্ঠানের আমি প্রথমে আমি আপনাদেরকে চীনের তাইওয়ানের একজন কণ্ঠশিল্পীর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেবো। তিনি হলেন থং আন গে। তিনি ১৯৫৯ সালের ২৬ জুলাই তাইওয়ানের কাওসিয়াং শহরে জন্মগ্রহণ করেন। কিন্ডার গার্টেন থেকে তিনি গান গাওয়া শুরু করেন। গান গাওয়া ছাড়া তিনি খুব সুন্দর ছবিও আঁকাতে পারেন। ১৯৮০ সালে তিনি সেনাবাহিনীতে কাজ শুরু করেন। সেনাবাহিনীতে দুই বছরে তিনি প্রায় ৩০টি গান লিখেছেন। প্রথমে শোনাবো তাঁর কন্ঠে 'পাপড়ি বৃষ্টি' নামের গান। গানটি ১৯৯০ সালে রিলিজ হয়। আশা করি, আপনারা গানটি পছন্দ করবেন।

বন্ধুরা, শুনছিলেন থং আন গে'র কন্ঠে 'পাপড়ি বৃষ্টি' নামের গান। ১৯৮২ সালে তিনি একটি কার্টুন কোম্পানিতে কাজ করেন। এ বছর তিনি দু'টি গান প্রকাশ করেন। ১৯৮৩ সালে তিনি আরো কয়েকটি গান প্রকাশ করেন এবং একটি গান তখন তাইওয়ানে খুবই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। ১৯৮৫ সালে তিনি প্রথম অ্যালবাম প্রকাশ করেন। একই বছর তিনি টিভি সিরিজে পরিবেশনা শুরু করেন। ১৯৮৭ সালে তিনি নিজের চতুর্থ অ্যালবামের মাধ্যমে তাইওয়ানে সবচেয়ে জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পীর পুরস্কার লাভ করেন। এখন আমি আপনাদেরকে তাঁর কন্ঠে 'বিভক্ত করতে সক্ষম নয়' নামের গান শোনাবো।

বন্ধুরা, শুনছিলেন থং আন গে'র কন্ঠে 'বিভক্ত করতে সক্ষম নয়' নামের গান। এখন আমি থং আন গে'র কণ্ঠে 'আসলে তুমি আমার হৃদয় বোঝো না' নামের গান শোনাবো। গানটির কথা এমন: 'তুমি বল যে, আমি মেঘের মতো, বুঝতে পারো না। আসলে তুমি আমার হৃদয় বোঝো না। তুমি বল যে, আমি স্বপ্নের মতো, হয়তো দূর হয়তো কাছে; আসলে তুমি আমার হৃদয় বোঝো না। আসলে আমি পরোয়া না করে সত্যিই অনুভূতি লুকাই। আমার ভয় হয়, তোমাকে ভালোবাসতে আমি সক্ষম নই; তাই তোমার কাছাকাছি যেতে পারি না। তুমি বল যে, দূরে যাবে, গোপনে দুঃখ লাগে। আমি তোমাকে আমার অশ্রু দেখাবো না। আচ্ছা, বন্ধুরা, আমরা একসঙ্গে গানটি শুনবো।

বন্ধুরা, শুনছিলেন থং আন গে'র কন্ঠে কয়েকটি গান। এখন আমি আপনাদেরকে মালয়েশিয়ায় চীনা প্রবাসী কন্ঠশিল্পী গুয়াং লিয়াংয়ের কন্ঠে 'প্রথমবার' শীর্ষক গান শোনাবো। তিনি ১৯৭০ সালের ৩০ অগাষ্ট মালয়েশিয়ায় জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর আসল নাম ওয়াং গুয়াং লিয়াং। তিনি একজন কন্ঠশিল্পী, সুরকার, সংগীত-প্রযোজক ও অভিনেতা। তিনি ১৯৯৫ সালে অন্য এক কন্ঠশিল্পীর সঙ্গে একটি গ্রুপ গড়ে তুলে আনুষ্ঠানিকভাবে সংগীতজগতে প্রবেশ করেন। প্রথমে শোনাবো তাঁর কন্ঠে 'রূপকথা' নামের গান।

২০০০ সালে গ্রুপটি ভেঙ্গে যায়। ২০০১ সালে গুয়াং লিয়াং নিজের প্রথম অ্যালবাম প্রকাশ করেন। ২০০৫ সালে তাঁর প্রকাশিত অ্যালবাম সমগ্র এশিয়ায় সংগীত প্রতিযোগিতায় ২১টি পুরস্কার জয় করে। বিক্রির পরিমাণ ছিল ১২ লাখ কপি। এখন আপনাদেরকে 'প্রথমবার' নামের গান শোনাবো। গানটি ২০০১ সালে রিলিজ হয়। আশা করি, বন্ধুরা গানটি পছন্দ করবেন।

বন্ধুরা, শুনছিলেন গুয়াং লিয়াং'র কন্ঠে কয়েকটি গান। এখন আমি আপনাদের সামনে আরেকজন মালয়েশিয়ার কন্ঠশিল্পীর পরিচয় তুলে ধরবো। তিনি হলেন আনিউ। তাঁর আসল নাম ছেন ছিং স্যিয়াং। আনিউ ১৯৭৬ সালের ৩১ অগাস্ট জন্মগ্রহণ করেন। তিনি একজন কন্ঠশিল্পী, এডিটর ও অভিনেতা। ১৯৯৬ সালে তিনি মালয়েশিয়ার একটি প্রতিযোগিতায় শ্রেষ্ঠ 'সংগীত অ্যারেঞ্জার' পুরস্কার লাভ করেন। পরে তিনি নিজের গানগুলো দিয়ে চীনের তাইওয়ানের সংগীতজগতে প্রবেশ করেন এবং জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। আজকের অনুষ্ঠানে আমি আপনাদেরকে তাঁর রচিত ও কন্ঠে 'পীচ ফুল পৃথক পৃথকভাবে ফোটে' নামের গান শোনাবো। গানটির সুর খুবই চমত্কার। আশা করি, বন্ধুরা গানটি শুনে খুশি হবেন।

প্রিয় শ্রোতা, এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের সবাইকে জানাই অসংখ্য ধন্যবাদ। যদি আমাদের অনুষ্ঠানে আপনারা কোনো পছন্দের গান শুনতে চান, তাহলে জানাবেন। আমাদের ই-মেইল ঠিকানা ben@cri.com.cn। আর আমার নিজস্ব ইমেইল ঠিকানা caiyue@cri.com.cn। 'গানের অনুরোধ' আমার নিজস্ব ই-মেইল ঠিকানায় পাঠালে ভালো হয়। আজ তাহলে এ পর্যন্তই। আশা করি, আগামী সপ্তাহের একই দিন, একই সময়ে আবারো আপনাদের সঙ্গে কথা হবে। সে পর্যন্ত সবাই ভালো থাকুন, আনন্দে থাকুন। চাই চিয়ান। (ছাই/আলিম/সুবর্ণা)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040