Web bengali.cri.cn   
রোববারের আলাপন-190414
  2019-04-15 14:48:33  cri


টুটুল: ১৫তম বিশ্ব গ্রীষ্মকালীন বিশেষ অলিম্পিক গেমস স্থানীয় সময় ১৪ মার্চ সন্ধ্যায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবু ধাবিতে অনুষ্ঠিত হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চীনের একজন ডাউন সিনড্রোম ছেলে ও চীনের অলিম্পিক জিমনেস্টিক্সের চ্যাম্পিয়ন লি শিয়াও পেং হাতে হাত ধরে সামনে চলেন, তার পিছনে চীনের বিশেষ অলিম্পিক খেলোয়াড় দল স্টেডিয়ামে প্রবেশ করে। স্টেডিয়ামের সবাই তাদেরকে সমর্থন জানায়।

এ ১৫ বছর বয়সী ছেলের নাম লি শিয়াং। বয়স কম হলেও বিশেষ অলিম্পিক গেমসে অংশগ্রহণের তার অনেক অভিজ্ঞতা আছে। খেলাধুলার জীবন শুরুর পর, তার জীবনও চমত্কার হয়ে ওঠে।

আকাশ: তিনি বলেন, আমি খেলাধুলা পছন্দ করি, কারণ খেলাধুলা আমাকে শক্তি এবং উজ্জ্বলতা দিতে পারে।

টুটুল: ১৫ বছর আগে, লি শিয়াংয়ের জন্মের এক মাস পর চিকিত্সক পরীক্ষা করে জানতে পারেন যে, তিনি ডাউন সিন্ড্রোমে আক্রান্ত। তখন তার মা ইয়াং চিয়ান কল্পনা করতে পারেন নি যে, তাঁর ছেলে ১০ বছর পর অলিম্পিক গেমসের প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন।

আকাশ: তিনি বলেন, এই ঘটনা আমি মনে করতে চাই না। কিন্তু আমি এখনো আশা ছেড়ে দেইনি। আমি সবসময় চেষ্টা করি, তাকে একজন স্বাভাবিক মানুষের মতো একটি বিস্ময়কর ও সুন্দর জীবন উপহার দিতে।

টুটুল: মায়ের প্রচেষ্টা লি শিয়াংয়ের জীবনে গভীর প্রভাব ফেলে। দশ বছর বয়সে লি শিয়াং বিশেষ শিক্ষা স্কুলে জিমনেস্টিক্স প্রশিক্ষণ শুরু করে। কিন্তু, ডাউন সিনড্রোমের কারণে জিমনেস্টিক্সের জন্য যা শারীরিক যোগ্যতা দরকার পড়ে, তা তার ছিলো না। প্রতিটি কঠিন সময়ে তিনি নিজেকে সবসময় উত্সাহিত করতে থাকেন।

আকাশ: তিনি বলেন, "আমাকে প্রচেষ্টা চালাতে হবে, আমি ভীত নই, আমি পিছনে ফিরে যাবো না, আমাকে সামনে এগিয়ে যেতে হবে, তাহলে আমি আরো উড়তে পারবো।"

টুটুল:ঐ 'কখনো ছেড়ে না দেওয়া ছেলে' ২০১৫ সালে প্রথম লস অ্যাঞ্জেলেস বিশেষ অলিম্পিক গেমসে অংশ নেন। জিমনেস্টিক্সে তিনি একটি স্বর্ণ, দুটি রৌপ্য, দুটি ব্রোঞ্জ পদক লাভ করেন।

লস অ্যাঞ্জেলেস থেকে ফিরে আসার পর লি শিয়াং আইস স্পোর্টস শিখতে চান। কিন্তু শারীরিক কিছু সমস্যার কারণে তিনি এ স্পোর্টস শিখতে পারেন না। তবে তিনি আশা ছেড়ে দেন না। অনেক ব্যর্থতার পরেও অধ্যবসায়ের কারণে তিনি ২০১৭ সালে অস্ট্রিয়া শীতকালীন বিশেষ অলিম্পিক গেমসের চীনা প্রতিনিধি দলে কোয়ালিফাইড হন এবং অবশেষে শর্ট ট্র্যাক স্পিড স্কেটিং ইভেন্টে একটি ব্রোঞ্জ পদক লাভ করেন।

লি শিয়াংয়ের স্বপ্ন জয়ের সারা পথ তার মা নিজ চোখে দেখেছেন। লি শিয়াং'র অধ্যবসায় দ্বারা তার মা অনেক অনুপ্রাণিত হয়েছেন।

আকাশ: তিনি বলেন, আমি মনে করি, ডাউন সিনড্রোম বা কম আইকিউ'র ছেলেমেয়েদের তাদের স্বপ্নের দিকে এগিয়ে যেতে তাদের অধ্যবসায় সাধারণ মানুষের চেয়ে আরো শক্তিশালী।

টুটুল: এখন মা ইয়ান চিয়ান ইংও বিশেষ অলিম্পিক গেমসের ক্যারিয়ারে অংশ নিয়েছেন। তিনি মাঝে মাঝে গণমাধ্যমের কাছে দেওয়া সাক্ষাত্কারে নিজের জীবনের গল্প শেয়ার করেন, যাতে বিশ্বের আরো বেশি এই বিশেষ গ্রুপের ছেলেমেয়ে, পিতামাতা, উত্সাহিত হয়ে অলিম্পিকে অংশ নিতে পারেন এবং আরো বেশি লোক এই বিশেষ গ্রুপের লোকদের বুঝতে পারেন।

আকাশ: তিনি বলেন, ছেলেকে সঙ্গ দেওয়ার সময় আমি তার কাছ অনেক কিছু শিখেছি। আমি সৌভাগ্যবান যে, সে আমার সন্তান, আমি আরো সৌভাগ্যবান যে, আমি তাকে সঙ্গ দিতে পেরেছি।

টুটুল:এবারের ১৫তম বিশ্ব গ্রীষ্মকালীন বিশেষ অলিম্পিক গেমসে লি শিয়াং একসাথে ৭টি জিমনেস্টিক্স ইভেন্টে অংশ নেবেন। মা ইয়াং চিয়ান ইং সবসময় ছেলেকে উত্সাহিত করতে থাকেন। তাঁর চোখে তাঁর ছেলে অবেশেষে কয়টা পদক অর্জন করলো তা গুরুত্বপূর্ণ নয়, গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ছেলের স্বপ্ন আছে, এবং এ জন্য তাঁর ছেলে সবসময় সামনের দিকে উড়ছে।

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040