Web bengali.cri.cn   
চীনের আধুনিক পেশাগত শিক্ষার উন্নয়ন ও দরিদ্র এলাকার শিক্ষার্থীদের শিক্ষাদান
  2019-04-01 19:10:05  cri

 


চীনের জাতীয় গণকংগ্রেস (এনপিসি) ও জাতীয় গণরাজনৈতিক পরামর্শ সম্মেলন (সিপিপিসিসি)-র দুই অধিবেশন সম্প্রতি বেইজিংয়ে সমাপ্ত হয়েছে। এতে বিভিন্ন সদস্য ও প্রতিনিধি চীনের শিক্ষা ব্যবস্থার সংস্কার ও উন্নয়নে ব্যাপক প্রস্তাব ও পরামর্শ দিয়েছেন। আজকের অনুষ্ঠানে চীনের আধুনিক পেশাগত শিক্ষার উন্নয়ন ও দরিদ্র এলাকার শিক্ষার্থীদের শিক্ষাদান সম্পর্কে কিছু তথ্য তুলে ধরবো।

পেশাগত দক্ষতার উন্নয়নে আধুনিক পেশাগত শিক্ষার উন্নয়ন করা হবে

দুই অধিবেশনে উত্থাপিত চীনের সরকারি কর্ম-বিবরণীতে বলা হয়, চলতি বছর পেশাগত দক্ষতার উন্নয়নে বেকারত্ব বীমা তহবিল থেকে ১০০ বিলিয়ন ইউয়ান বরাদ্দ দেওয়া হবে। এই অর্থ ১.৫ কোটি শ্রমিকদের পেশাগত দক্ষতার প্রশিক্ষণ ও পেশা পরিবর্তনের প্রশিক্ষণে প্রয়োগ করা হবে বলে উল্লেখ করা হয়।

এনপিসি'র কয়েকজন প্রতিনিধি মনে করেন, প্রবীণদের যত্ন, পারিবারিক সেবাসহ বিভিন্ন শিল্পে প্রচুর দক্ষ ব্যক্তি প্রয়োজন, বিভিন্ন প্রযুক্তিগত দক্ষ ব্যক্তিদের প্রশিক্ষণ দ্রুত করবে চীন সরকার।

এনপিসি'র প্রতিনিধি ও চীনের শিক্ষা ও বিজ্ঞান গবেষণাগারের গবেষক ম্যাডাম ছেন ইউয়ুন ইং সরকারি কর্ম-বিবরণী পর্যালোচনাকালে মনে করেন, চীনের অর্থনীতি রূপান্তরিত হচ্ছে, বিভিন্ন শিল্পে প্রযুক্তিগত দক্ষ ব্যক্তির অভাব দেখা দিয়েছে। ২০১৮ সালে চীনের অর্থনীতির উন্নয়নে পরিসেবা শিল্প ৬০ শতাংশে দাঁড়িয়েছে, তাই পেশাগত দক্ষতার প্রশিক্ষণের ভবিষ্যত সুউজ্জ্বল। প্রবীণদের যত্ন ও পারিবারিক সেবাসহ বিভিন্ন খাতে পেশাগত দক্ষ ব্যক্তি প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি। ম্যাডাম ছেন ইউয়ুন ইং বলেন,

'দু'টি পেশার দক্ষ ব্যক্তিদের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে, প্রথমত, প্রচুর দক্ষ পাচক দরকার। অনেক পরিবারের পক্ষে অর্থ দিয়ে নার্সের সেবা পাওয়া সম্ভব নয়। তবে বাসার কাছে রেস্তোরাঁয় খাবার খেতে পারলে তাদের আর নার্সের সেবার দরকার হবে না। তাছাড়া পেশাগত নার্সিং কর্মীদের অভাব। তাদের মধ্যে কেউ কেউ বয়স্কদের যত্ন নেন, কেউ কেউ অসুস্থ বা প্রতিবন্ধীদের যত্ন নেন এবং কেউ কেউ শুধু প্রবীণ ও বাচ্চাদের যত্নে সহায়তা করেন। নার্সিং বিষয়ে সহজ জ্ঞান শিখলে প্রবীণ ও বাচ্চাদের দেখাশোনা করতে সক্ষম।'

২০১৯ সালে আধুনিক পেশাগত শিক্ষা জোরদারে বিভিন্ন স্কুলের ভর্তি পদ্ধতি পূরণ করার সাথে সাথে উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, অবসরপ্রাপ্ত সেনা, বেকার কর্মী ও কৃষকদের প্রশিক্ষণে উত্সাহ দেবে চীন সরকার।

এনপিসি'র প্রতিনিধি লিয়াও হাই ইং বলেন, পেশাগত শিক্ষা জোরদারে বিভিন্ন শিল্পে দক্ষ প্রযুক্তিগত ব্যক্তি থাকবে বলে আশা করা যায়। তিনি বলেন,

'এবার সরকারি কর্ম-বিবরণীতে ব্যাপকভাবে পেশাগত শিক্ষার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। তা থেকে বোঝা যায় চীনের শিল্পগত কাঠামোতে ব্যাপক পরিবর্তন ও সংস্কার ঘটেছে, প্রযুক্তিবিষয়ক কর্মীদের দক্ষতার চাহিদা অনেক বেড়ে গেছে। আমাদের মূল উদ্দেশ্য বিভিন্ন শিল্প ও চাকরিতে শ্রেষ্ঠ দক্ষ ব্যক্তি পাওয়া ।'

ফেব্রুয়ারি মাসে প্রকাশিত চীনের রাষ্ট্রীয় পেশাগত শিক্ষা সংস্কার প্রস্তাবে ঘোষণা দেওয়া হয় যে, উপযোগী শিল্পপ্রতিষ্ঠান বিশেষ করে বড় শিল্পপ্রতিষ্ঠানে গুণগতমানসম্পন্ন পেশাগত প্রশিক্ষণ আয়োজনে বিভিন্ন পর্যায়ের সরকার যথাযথ সমর্থন দেবে।

২০২০ সালে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পপ্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণে প্রাথমিকভাবে ৩০০টি পরীক্ষামূলক পেশাগত শিক্ষা গ্রুপ স্থাপন করা হবে। মাঝারি পর্যায়ের পেশাগত শিক্ষা বৃত্তি স্থাপন করা আর শিল্পপ্রতিষ্ঠান ও সামাজিক শক্তির উদ্যোগে পেশাগত শিক্ষার আয়োজনে সমর্থন দেওয়া হবে। চীনের মানবসম্পদ ও সামাজিক নিশ্চয়তা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী চাং জি নান বলেন, পেশাগত দক্ষতার প্রশিক্ষণ জোরদার করা কর্মসংস্থান ও কর্মসংস্থানের দক্ষতা উন্নীত করার সাথে সাথে মানবসম্পদের গুণ ও মানের উন্নয়নের জন্য সহায়ক। তিনি বলেন,

'বাজারে দক্ষ ব্যক্তির ব্যাপক অভাব, একজন শ্রেষ্ঠ দক্ষ ব্যক্তির কমপক্ষে দু'টি কর্মসংস্থানের সুযোগ থাকবে। তাই ব্যাপকভাবে পেশাগত দক্ষতার প্রশিক্ষণ জোরদার করতে হবে। বেকারত্ব বীমার অতিরিক্ত আয় থেকে ১০০ বিলিয়ন ইউয়ান নিয়ে ১৫ কোটি লোককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে বলে ঘোষণা দেওয়া হয় সরকারি কর্ম-বিবরণীতে। শ্রমিকদের প্রযুক্তিগত দক্ষতা থাকলে তা থেকে তারা সারাজীবন উপকৃত হবে।'

চাং আরো বলেন, মানবসম্পদ ও সামাজিক নিশ্চয়তা মন্ত্রণালয় নির্দিষ্টভাবে কর্মসংস্থান নিয়ে কাজ করবে। স্নাতক, কৃষি শ্রমিক, অবসরপ্রাপ্ত সেনা ও বেকার কর্মীদের কর্মসংস্থানে সহায়তা দেবে।


1  2  
© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040