Web bengali.cri.cn   
সুরের ধারায়: ইয়ু খ্য ওয়েই এবং তার গান
  2019-03-22 10:05:37  cri


প্রিয় শ্রোতা, আশা করি ভাল আছেন। বেইজিং থেকে প্রচারিত চীন আন্তর্জাতিক বেতারের বাংলা অনুষ্ঠান 'সুরের ধারায়' আপনাদের সবাইকে আন্তরিক প্রীতি ও শুভেচ্ছা জানাচ্ছি আমি ইয়াং ওয়েই মিং স্বর্ণা।

সঙ্গীত কোনো দেশের সীমা মানে না। আপনি কি এখন গাড়ি চালাচ্ছেন, নাকি বাসার কোনো কাজ করছেন? আপনি এখন একা, নাকি সাথে সঙ্গী আছে? আপনার মন আজ বেইজিংয়ের শরত্কালের নীল আকাশের মতো স্বচ্ছ, নাকি ঢাকার কালবৈশাখী সময়ের মতো মেঘলা? যে যেখানে যেভাবেই থাকুন না কেন, আসুন সঙ্গীত উপভোগ করি। সঙ্গীতের জগতে ডুব দেওয়ার আনন্দই আলাদা। কী বলেন?

(গান ১,থিং নি শুও)

বন্ধুরা, আজকের অনুষ্ঠানে গায়িকা ইয়ু খ্য ওয়েই-এর কয়েকটি গান শোনাবো। ইয়ু খ্য ওয়েই ১৯৮৩ সালে চীনের সিছুয়ান প্রদেশের ছেংতু শহরে জন্মগ্রহণ করেন। ২০০৯ সালে তিনি হুনান টিভিতে একটি গান প্রতিযোগিতায় পুরষ্কার পান। ২০১০ সালে তার প্রথম অ্যালবাম প্রকাশিত হয়। এখন যে গানটি আপনারা শুনছেন, সেটা হল তার গাওয়া 'থিং নি শুও' গানটি। গানে বলা হয়, আমি খুব সুখী কারণ তোমার সাথে জীবনে প্রত্যেক সেকেন্ডের গল্প শেয়ার করতে পারি। খারাপ লাগার সময় তোমার কাঁধে হেলান দিলে মেঘলা আকাশ যেন আবার উজ্জ্বল হয়ে যায়। জীবনে তুমি না থাকলে আমি শুধু মোবাইল দেখতে পারি। আমরা পরস্পরের হাসিমুখ দেখতে চাই। কেউই আমার মত নয়, একা একা নীরবতা আর স্বাধীনতা পছন্দ করে। আমি যে স্বপ্ন দেখি তা শেষ পর্যন্ত দেখতে চাই। আমি গান গাই ভাল লাগার জন্যে। আমরা যা পছন্দ করি তা সত্যিকার পছন্দ করি। তোমার কথা শুনি, তোমার কথা শুনি। আমরা পরস্পরের সত্যিকার বন্ধু। আমরা সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত আলোচনা করি আমার জীবনের কথা। আমরা হয়তো সব সময় যোগাযোগ করি না, কিন্তু আমরা নিজের স্বপ্ন ধরে রেখেছি।

(গান ২,ব্রিসেনন)

এখন আরেকটি গান শুনুন। গানের নাম 'ব্রেসেনন' । তা কানাডার পরিবেশপ্রেমী সঙ্গীতশিল্পী মেথিউ কার্ল লেইনের রচিত একটি গান। এ গানে পরিবেশের সঙ্গে মানুষের মনের সংযোগের কথা বলা হয়। শুনুন গানটি।

(গান ৩,শিয়াং শিয়াও শি হৌ ই ইয়াং)

এখুন শুনুন গান 'শিয়াং শিয়াও শি হৌ ই ইয়াং'। গানটি একটি কার্টুন চলচ্চিত্রের জন্য রচিত হয়। গানে বলা হয়, শরত্কালীন বাতাস প্রবাহিত হয়। পাহাড়ের বন রঙিন হয়ে গেছে। চার ঋতু সময়ক্রমে আসে যায়। এ হলো সময়ের জাদু। গাছের ডালে যখন সব সাদা হয়ে যায় তখন বাসা থেকে রওনা দেওয়ার সময় এসেছে। ছোটবেলার মত তুমি আমার হাত ধরে বাসায় ফিরে যাও। প্রত্যেক মুহূর্তে তোমার সাথে সময়ের গল্প লিখতে চাই। এ পৃথিবী যত বড়, তোমার জন্য চিন্তা করার মন তত বড়। আমরা বিদায় দিলাম, তাই আবার দেখা হলে অত্যন্ত মূল্যবান মনে হয়। তুমি আমার জন্য অপেক্ষা করলে যত দূরে গেলেও মন তোমার কাছে থাকবে।

(গান ৪,ছিও নিয়াও)

এখন শুনুন 'ছিও নিয়াও' গানটি। গানে বলা হয়, আমি তোমার কারাগারে বন্দী হওয়া পাখি। ভুলে গেছি আকাশের কথা। যদি তোমার এ কেল্লা থেকে বের হই, জানি না আর কাকে নির্ভর করতে পারি। আমি তোমার কারাগারে বন্দী হওয়া পাকি। তোমার ভালবাসা দিন দিন কমে যাচ্ছে। তোমার হাসিমুখ অন্যের চোখে উজ্জ্বল হয়ে দেখেছি, কিন্তু আমি তোমার এক আলিঙ্গনও পাচ্ছি না। আমি একটি অসামান্য ছায়ার মত। তোমার মিথ্যা কথা শান্ত মনে শুনছি। এ নোংরা শহরে আমার প্রেম রাখা যায় না।

(গান ৫, শিয়াও শিয়াও থিয়ান ইয়া)

এখন শুনুন আরেকটি গান 'শিয়াও শিয়াও থিয়ান ইয়া' বা ছোট পৃথিবী। গানে বলা হয়েছে: একাই এ পৃথিবীতে এসেছি। মনের আশার আলো উজ্জ্বল আবার নিভে যায়। সত্যিকার প্রেমের জন্য অপেক্ষা করছি। আমার ভালবাসা কেমন হবে? আমার পৃথিবীতে ভালবাসা মূল্যবান। দেখার মুহূর্তে প্রেমে পড়ার জন্যও প্রত্যাশী। এ পৃথিবী যত বিপজ্জনক হতে পারে আমি তত সাহসী হতে পারি। এ মুহূর্তের জন্য সব কিছু ছেড়ে দিতে পারি।

(গান ৬,শি চিয়ান জু ইয়ু)

এখন শুনুন তার একটি গান 'শি চিয়াং জু ইয়ু'। গানে বলা হয়, বাতাসে বৃষ্টি যেন ফুলের মত ফুটে থাকে। সময় দ্রুত চলে যায়। তোমার ছোটবেলার স্বপ্ন এখনো কি আছে? মেঘ জমে গ্রীষ্মকাল আসে। অশ্রু সময়ের সঙ্গে শুকিয়ে যায়। এ পথের তুমি আমি সে। কেউ পথহারা হয়েছে? আমরা একসাথে থাকবো বলেছি। সময় আমাদের শত্রু হলেও আমরা একসাথে থাকবো। বাতাসে তুষার পড়ে। আমাদের চুল সাদা হয়ে যায়। প্রথমের কথা কি এখনো তোমার মনে আছে?

(গান ৭,শুন হুয়া ছুই)

প্রিয় শ্রোতা, গান শুনতে শুনতে অনুষ্ঠানের শেষ প্রান্তে চলে এলাম। তবে বিদায় নেওয়ার আগে আরেকটি গান শোনাবো। গানের নাম 'শুন হুয়া ছুই'। শুনুন গানটি।

(স্বর্ণা/টুটুল)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040