Web bengali.cri.cn   
মান জাতি
  2019-03-20 10:09:13  cri

 

মান জাতির লোকসংখ্যা ১ কোটির বেশি। লোকসংখ্যার দিক দিয়ে চীনের ৫৫টি সংখ্যালঘু জাতির মধ্যে মান জাতির অবস্থান দ্বিতীয়। এক্ষেত্রে প্রথম স্থানে আছে চুয়াং জাতি। মান জাতির মানুষ সারা চীনেই দেখা যায়। তবে লিয়াও নিং, হ্যপেই, হেইলংচিয়াং, চিলিন, ইনার মঙ্গোলিয়া, ও বেইজিংয়ে মান জাতির মানুষ বেশি দেখা যায়।

মান জাতি চীনের শেষ সামন্ততান্ত্রিক রাজবংশ তথা ছিং রাজবংশের প্রতিষ্ঠাতাজাতি। ১৬১৬ থেকে ১৯১২ সাল পর্যন্ত এই জাতির সম্রাটরা চীনের শাসক ছিলেন। ছিং রাজবংশের পতনের পর তারাও সাধারণ নাগরিকে পরিণত হয় এবং নানা জায়গায় ছড়িয়ে-ছিটিয়ে পড়ে। উত্তর-পূর্ব চীন ও হ্যপেই প্রদেশের মান জাতির মানুষ বেশিভাগই কৃষিকাজ করে। ওই অঞ্চলে সয়াবিন, ভুট্টা, জোয়ার, আপেল ইত্যাদির চাষ করা হয়। অনেকে ব্যবসা করেন। বিভিন্ন কারখানার কর্মী ও বিশেষজ্ঞদের মধ্যে মান জাতির মানুষও বেশি।

মান জাতির নিজস্ব ভাষা ও অক্ষর আছে। ১৬ শতাব্দীর শেষ দিকে মান জাতির অক্ষর সৃষ্টি হয়। মান ভাষা একটি সরকারি ভাষা হিসেবে ছিং রাজবংশ আমলে ব্যবহার করা হতো। ছিং রাজবংশ আমলের শেষ দিকে মানুষ মান জাতির ভাষার বদলে উত্তর চীনের হান ভাষা ব্যবহার করা শুরু করে। এখন কেবল নির্দিষ্ট অনুষ্ঠানে মান ভাষা ব্যবহৃত হয়। গত বিংশ শতাব্দীর আশির দশকে মাত্র কিছু দূরবর্তী এলাকার কোন কোন প্রবীণ মান ভাষা বলতে পারতেন। এ ভাষা চীনে প্রায় বিলুপ্ত হয়ে গেছে। তবে উত্তর-পূর্ব চীন ও বেইজিংয়ের আঞ্চলিক ভাষায় মান জাতির ভাষার টোন ও শব্দ আছে।

মান একটি পরিশ্রমী, সাহসী ও বুদ্ধিমান জাতি। তাদের নিজস্ব ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি আছে। মান জাতির মানুষের পারিবারিক নাম আছে, মান জাতির ভাষায় যাকে বলা হয় 'হালা'। এ নাম জটিল ও বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন। ইতিহাস অনুসারে, মান জাতির পারিবারিক নাম ৬০০টির বেশি। এক্ষেত্রে হান জাতির পরেই এই জাতির অবস্থান। ১৯১১ সালের বিপ্লবের পর ছিং রাজবংশ আমল শেষ হয় এবং মান জাতির মানুষ নিজেদের পারিবারিক নাম হান ভাষায় রূপান্তরিত করে। এখন মান জাতির বহু মানুষ নিজেদের পুরাতন পারিবারিক নাম ভুলে গেছেন।

মান জাতির পুর্বপুরুষরা দীর্ঘকাল পাহাড় ও বনে বাস করতেন। এদের নারী ও পুরুষরা ভালো ঘোড়সওয়ার ও তীরন্দাজ ছিলেন। বিয়ের সময় এ জাতির মেয়েরা তীরধনুক নিয়ে স্বামীর পরিবারে যায়। মান জাতির ছড়া ও লোকসংগীতের বেশিরভাগ শিকারসম্পর্কিত।

মান জাতির ঐতিহাসিক ক্রীড়া ইভেন্টও শিকারসম্পর্কিত। যেমন, ওয়েটলিফটিং, কুস্তি, এবং স্কেটিং ইত্যাদি। ছিং রাজবংশ আমলে স্কেটিং সৈন্যদের প্রশিক্ষণ হিসেবে ব্যবহৃত হতো। প্রতিবছরের চান্দ্র পঞ্জিকার দশম মাসে একটি স্কেটিং মহড়া আয়োজন করা হতো। রয়েল পরিবারের যুবকরা এতে অংশ নিতেন। স্পিড স্কেটিং ছাড়া, তারা আইস ফুটবল, আইস অ্যাক্রোব্যাটিকস ইত্যাদিতে পাকা ছিলেন।

হান জাতির মতো মান জাতির মানুষও বসন্ত উত্সব, ড্রাগন নৌকা উত্সব ও লন্ঠন উত্সবসহ বিভিন্ন উত্সব পালন করে থাকে। চান্দ্র পঞ্জিকা অনুযায়ী দশম মাসের ১৩তম দিন মান জাতির বিশেষ দিন। মান জাতির মানুষ 'নামকরণ' দিবস হিসেবে পালন করে। (শিশির/আলিম)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040