Web bengali.cri.cn   
ব্রিটিশ পার্লামেন্টে 'চুক্তি ছাড়াই ব্রেক্সিট' প্রস্তাব নাকচ
  2019-03-14 15:00:54  cri

মার্চ ১৪: স্থানীয় সময় গতকাল (বুধবার) রাতে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব কমনসে ভোটের মাধ্যমে 'চুক্তি ছাড়াই ব্রেক্সিট' প্রস্তাব নাকচ করে দেন ব্রিটিশ এমপিরা। আজ (বৃহস্পতিবার) পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট পিছিয়ে দেওয়ার বিষয় নিয়ে আবার ভোট আয়োজন করা হবে।

ভোটের পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে পার্লামেন্টে এক ভাষণে বলেন, সবাইকে এমন অবস্থার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। ব্রেক্সিট পিছিয়ে দেওয়া হলেও পার্লামেন্টে একটি সমাধানে পৌঁছাতে হবে।

তিনি বলেন, পার্লামেন্টকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। ব্রিটিশ আইন অনুযায়ী ২৯ মার্চ চুক্তি না থাকলেও ইইউ থেকে বেরিয়ে যাবে ব্রিটেন। কেবল পার্লামেন্টে সবার জন্য গ্রহণযোগ্য একটি পরিকল্পনা খুঁজে পাবো আমরা।

পাশাপাশি তিনি বলেন, ইইউ স্পষ্টভাবে জানিয়েছে, স্বাক্ষরিত চুক্তি একমাত্র সম্ভাব্য চুক্তি এবং বার বার ব্রেক্সিট পিছিয়ে দেওয়া তা ব্রিটেনের জন্য ভাল ব্যাপার নয়।

ব্রিটিশ বৃহত্তম বিরোধীদল লেবার পার্টির নেতা জেরেমি কর্বিন পার্লামেন্টে বক্তব্যে বলেন, প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে'র ব্রেক্সিট চুক্তি ও চুক্তি না থাকলে ব্রেক্সিট ব্যর্থ হবে এবং এখন পার্লামেন্টের ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া হাতে নেয়া উচিত্। তিনি বলেন, পার্লামেন্টের এখন ব্রেক্সিট পরবর্তী প্রক্রিয়া হাতে নেওয়া উচিত্। তিনি ও ছায়া মন্ত্রিসভা স্পিকার ও পার্লামেন্ট সদস্যদের সঙ্গে সাক্ষাত্ করবেন এবং পার্লামেন্টে একটি সমাধান খুঁজে পেতে চেষ্টা চালাবেন। তার মানে স্পিকারের নেতৃত্বে গেল দু'বছরে প্রধানমন্ত্রী যে কাজ শেষ করতে পারেন নি, এমন একটি কাজ তিনি এগিয়ে নেবেন।

এদিকে, ব্রিটিশ তথ্যমাধ্যমে বলা হয়, ভোটের ফলাফল ব্রেক্সিট পিছিয়ে দেয়ার জন্য ভিত্তি তৈরি করে। ব্রেক্সিট পিছিয়ে দেওয়া নিয়ে স্থানীয় সময় আজ (বৃহস্পতিবার) বিকেলে আবারও ভোট অনুষ্ঠিত হবে। ভোটে পাস করা হলে এবং ইইউ'র অনুমোদন পেলে ২৯ মার্চ ব্রিটেন ইইউ থেকে বেরিয়ে যাবে না।

বুধবার ভোটদানের আগে, ব্রিটিশ অর্থমন্ত্রী ফিলিপ হ্যামন্ড পার্লামেন্টে সতর্ক করে বলেন, যদি উত্তরণকালে ব্রিটেন সুশৃঙ্খলভাবে ইইউ থেকে বেরিয়ে যেতে না পারে, তাহলে ঋণ কমানোর বিষয়ে অর্জিত অগ্রগতি বড় হুমকির সম্মুখীন হবে। তিনি বলেন, মূল দিক থেকে দেখলে ব্রিটিশ অর্থনৈতিক প্রবণতা ভাল তবে ব্রেক্সিটের অনিশ্চয়তা এখনও অর্থনীতির উন্নয়নের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। আমরা এমন অবস্থায় সম্মত হতে পারি না কারণ এ অবস্থা আমাদের অর্থনীতির সাধারণ উন্নয়ন, দেশের মর্যাদা ও গৌরবকে লঙ্ঘন করছে।

এর আগে, হাউস অব কমনসে ৩৯১-২৪২ ভোটে আবার প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে ও ইইউ'র মধ্যে স্বাক্ষরিত সংশোধিত ব্রেক্সিট চুক্তি বাতিল হয়। চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি, হাউস অব কমনসে ৪৩২-২০২ ভোটে গেল বছরের নভেম্বর মাসে স্বাক্ষরিত ব্রেক্সিট চুক্তি বাতিল হয়।

চলতি সপ্তাহে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট ব্রেক্সিট নিয়ে যে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে তা ব্রিটিশ রাজনীতি, অর্থনীতি ও সমাজের ভবিষ্যতের ওপর সুদূরপ্রসারী প্রভাব ফেলবে। এছাড়া, এটি বিশ্বেও গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ফেলবে। (শিশির/টুটুল/রুবি)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040