Web bengali.cri.cn   
পারিবারিক শিক্ষার দুর্বলতা পূরণে সিপিপিসিসি'র সদস্যদের প্রস্তাব
  2019-03-11 16:13:57  cri

 


চীনের জাতীয় গণকংগ্রেস (এনপিসি) ও গণরাজনৈতিক পরামর্শ সম্মেলনে (সিপিপিসিসি)-র ২০১৯ সালের বার্ষিক অধিবেশন গত সপ্তাহে বেইজিংয়ে শুরু হয়েছে। চীনের শিক্ষা-ব্যবস্থার উন্নয়ন ও শিক্ষার সম্মুখীন সমস্যা নিয়ে এনপিসি'র প্রতিনিধি ও সিপিপিসিসি'র সদস্যরা ব্যাপক প্রস্তাব দিয়েছেন। আজকের অনুষ্ঠানে এ সম্পর্কে প্রতিবেদন তুলে ধরবো।

চলতি বছরের 'দুই অধিবেশনে' পারিবারিক শিক্ষা ব্যাপক আকর্ষণীয় বিষয়ে পরিণত হয়েছে। পারিবারিক শিক্ষার দুর্বলতা সম্পর্কে অনেক সদস্য ও প্রতিনিধি পরামর্শ দিয়েছেন। তাঁরা সমাজের বিভিন্ন মহলকে যৌথভাবে পারিবারিক শিক্ষার ওপর গুরুত্বারোপ করার আহ্বান জানিয়েছেন। সবাই সম্মিলিতভাবে পারিবারিক শিক্ষার মান উন্নত করবে বলে আশা প্রকাশ করেন তাঁরা।

ত্রয়োদশ সিপিপিসিসি'র দ্বিতীয় অধিবেশনের সদস্য, ছিংহাই মিনজু বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক লি লি জুয়ান একটি উদাহরণ দিয়ে তাঁর অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন। তিনি বলেন, চীনের ছিংহাই প্রদেশের রাজধানী সিনিংয়ে একটি বাস স্টেশনের সামনে দাঁড়িয়ে বাসে ওঠার আগে এক মা কয়েকজন বাচ্চাকে বলেন, 'যে গাড়িতে লোকজনের ভিড় বেশি, সেই গাড়িতে ওঠো। এরকম ভিড় বাসে টাকা না দিয়ে চলাফেরা করা ভালো।' অধ্যাপক লি তাঁর কথা শুনে বলেন, 'শুধু কয়েক ইউয়ান সঞ্চয় করার জন্য বাচ্চাদেরকে এধরনের কথা বলা খুব বিপজ্জনক। ভবিষ্যতে এই আচরণ কতটা খারাপ হবে তা ভাবা যায় না।'

সিপিপিসিসি'র আরেকজন সদস্য,বেইজিং শিচিয়াং শিক্ষা গ্রুপের প্রধান ওয়াং হুয়া তাঁর অভিজ্ঞতা শেয়ার করে বলেন, এক বাচ্চার মা-বাবা তার প্রাথমিক স্কুলে ভর্তি করার আগে প্রিস্কুল শিক্ষায় ১২ লাখ ইউয়ান দিয়েছেন, বাচ্চার গান গাওয়ার জন্য বিশেষ শিক্ষককে আরো ৪ লাখ ইউয়ান দিয়েছেন। এ গল্প সম্পর্কে ওয়াং বলেন, অনেক মা-বাবা কোনোকিছু বিবেচনা না করেই বাচ্চাদের শিক্ষায় টাকা দেন। মোট কথা, শিক্ষা সম্পর্কে তাদের ধারণা পুরোপুরি ভুল।

পারিবারিক শিক্ষা নিয়ে সাংবাদিকরা চীনের বিভিন্ন অঞ্চলের পিতামাতাদের সাক্ষাত্কার নিয়েছেন। আমরা এখন তাদের কথা শুনবো।

চীনের হোনান প্রদেশের রাজধানী চেংচৌ শহরের অধিবাসী ম্যাডাম কুও তুং হুই'র মেয়ের বয়স মাত্র ৩ বছর। স্বামী-স্ত্রী দুজনেই চাকরি করেন এবং ভীষণ ব্যস্ত সময় কাটান। তাই বাচ্চাদের দেখাশোনা করার সময় তাঁরা পান না। এ সম্পর্কে মা বলেন, 'আমরা অবশ্যই বাচ্চাকে ভালোবাসি। তবে বাচ্চার কান্নাকাটির সময় তাদের খেলনা কিনে দেবো কিনা, বা কি করবো তা বুঝতে পারিনা। তাছাড়া কখন তাদের উত্সাহ দেওয়া উচিত বা কখন তাদের কাজের সমালোচনা করা উচিত তা ঠিক জানিনা'। এতে অবশ্য তিনি লজ্জা প্রকাশ করে বলেন, 'আমার ধারণায় আমাদের পারিবারিক শিক্ষা ইচ্ছাকৃতভাবে চলছে।'

এ সম্পর্কে চীনের হাইনান প্রদেশের শিক্ষা বিভাগের পরিচালক পান হুই লি মনে করেন, পিতামাতা বাচ্চাকে ভালোবাসেন ও তাদের যত্ন নেন, তবে তাদের বিজ্ঞানসম্মতভাবে বাচ্চাকে দেখাশোনার জ্ঞানের অভাব রয়েছে। তারা পরিবারের গুরুত্বপূর্ণূ বিষয় সমাধানের পদ্ধতিও ঠিকভাবে জানেন না। তাই বলা যায়, পারিবারিক শিক্ষা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। এই শিক্ষা খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং অর্থবহ।

এবার 'দুই অধিবেশনে' চীনের ডেমোক্রেটিক পার্টির উত্থাপিত 'পারিবারিক শিক্ষার উন্নয়ন-সম্পর্কিত প্রস্তাব' থেকে জানা যায়, বর্তমানে চীনের ৬৮ শতাংশ পরিবার বাচ্চাদের শিক্ষাদান নিয়ে ব্যাপক উদ্বিগ্ন। তা থেকে বোঝা যায়, পারিবারিক শিক্ষায় ব্যাপক মনোযোগ ও সমর্থন প্রয়োজন।

বহু কারণে পারিবারিক শিক্ষায় সমস্যা দেখা দেয়

বর্তমানে চীনা সমাজে পারিবারিক শিক্ষার ওপর ব্যাপক গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। কিন্তু একটি বিষয় হলো, পারিবারিক শিক্ষার প্রতি এতো বেশি গুরুত্ব দেওয়ার পরও কেন এ বিষয়ে অনেক সমালোচনা শোনা যায়?

এ সম্পর্কে অধ্যাপক লি মনে করেন, পিতামাতাদের পুরনো চিন্তা-ভাবনা হলো এ সমস্যার মূল কারণ। এ সম্পর্কে লি তাঁর অভিজ্ঞতা বিনিময় করে বলেন, সিনিং শহরের একটি প্রাথমিক স্কুলে বাচ্চাদের শাস্তি হিসেবে ৩ থেকে ৪দিনের মধ্যে ৮০০টি অক্ষরের প্রতিটি অক্ষর ৭বার করে লেখার নির্দেশ দেন স্থানীয় শিক্ষকরা। প্রতি অক্ষর সাতবার লিখলে মোট ৫৬০০টি অক্ষর লিখতে হবে। এটি বাচ্চাদের জন্য কি সহায়ক?

এ সম্পর্কে লি তাঁর প্রতিবাদ জানান। তবে অন্য বাচ্চাদের বাবা মা একসাথে তাঁর কথার প্রতিবাদ জানান। তাঁরা সবাই মনে করেন, শিক্ষকের কথা ঠিক, আমার চিন্তা-ভাবনা ভুল।

এ সম্পর্কে সিপিপিসিসি'র সদস্য, চীনের চেচিয়াং প্রদেশের শিক্ষা বিভাগের উপ-প্রধান হান পিং মনে করেন, বাচ্চাদের বড় হওয়ার প্রক্রিয়ায় সুশৃঙ্খল পরিবেশের অভাব রয়েছে।

এছাড়া এই প্রক্রিয়ায় বিজ্ঞানসম্মত জ্ঞানের অভাবের কারণে উদ্বিগ্ন পরিবেশ বা মানসিক অবস্থা থেকে পিতামাতার মধ্যে সহজে ভুল চিন্তাধারা সৃষ্টি হয়। পিতামাতারা নিজের বাচ্চাকে অপরের বাচ্চার সাথে তুলনা করেন এবং কোনো বিবেচনা ছাড়াই বাচ্চাদের দেখাশোনা করেন।

সিপিপিসিসি'র সদস্য, চীনের থিয়ানচিন শহরের হোতুং এলাকার উপ-প্রধান তিং মেই বলেন, ঐতিহ্যবাহী পারিবারিক কাঠামোর বিরাট পরিবর্তনের ফলে ঐতিহ্যবাহী রীতিনীতির উত্তরাধিকার ও পরিবারের ঘনিষ্ট সম্পর্কের মধ্যে চ্যালেঞ্জ সৃষ্টি হয়। দেখা যায়, 'এক সন্তান পরিবার', 'একক অভিভাবক পরিবার', ও 'পিতামাতা-বিহীন পরিবার'-র সংখ্যা অনেক বেড়ে গেছে, পরিবারের আকার অনেক ছোট হয়েছে এবং বড় পরিবারের ঐতিহ্যবাহী উত্তরাধিকার কঠোর চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছে। এর ফলে পারিবারিক শিক্ষার ভূমিকা অনেক দুর্বল হয়ে পড়েছে।

কানসু প্রদেশের ওয়েনান শহরের ডেপুটি-মেয়র কাও চিয়ে পারিবারিক শিক্ষার সমস্যাকে তিনভাগে বিভক্ত করেছেন। পরিবার ও পিতামাতা, শিক্ষা ও স্কুল, সরকার ও সমাজ।

'শিক্ষার দরকার হলে পিতামাতা স্কুল ও শিক্ষকদের উপর নির্ভর করে, কিছু কিছু এলাকায় শিক্ষার চিন্তাধারা এখনো অনেক পুরনো, তারা ভুল পদ্ধতি বা ভুল জ্ঞান পিতামাতাকে জানায়, অনেক স্কুলে পেশাগত শিক্ষণ উপাদান ও পারিবারিক শিক্ষার গবেষণার অভাব আছে, তাই এসব শিক্ষা কার্যকরভাবে পিতামাতাকে সহায়তা দিতে সক্ষম নয়।'

পারিবারিক শিক্ষার জটিলতা সমাধানে বিভিন্ন পক্ষের যৌথ প্রয়াস প্রয়োজন

চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে চীনের শিক্ষা-সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ছেন বাও শেং জোর দিয়ে বলেন, পারিবারিক শিক্ষার অভাব বাচ্চাদের উন্নয়নে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। পিতামাতাকে বাচ্চাদের বড় হওয়ার পথে শক্তিশালী আদর্শ ব্যক্তিতে পরিণত হওয়ার জন্য চেষ্টা চালাতে হবে। তাই পারিবারিক শিক্ষা জনসেবার ব্যবস্থায় অন্তর্ভুক্ত হওয়াসহ অভিভাবক কমিটি ও পিতামাতার ক্লাসসহ নানান পদ্ধতিতে সরকার, পরিবার, স্কুল ও সমাজের সমন্বিত কর্ম-ব্যবস্থা গড়ে তোলার প্রস্তাব দেওয়া হয়।

বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ সিপিপিসিসি'র সদস্যদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে

সদস্য পান মনে করেন, পারিবারিক শিক্ষাকে জনসেবার ব্যবস্থায় অন্তর্ভুক্ত করা হলে তা কার্যকরভাবে পিতামাতাদের অন্ধ অবস্থা উন্নত করতে সক্ষম হবে।

সদস্য কাও চিয়ে মনে করেন, জনস্বাস্থ্য ও বেসামরিক বিভাগের তরুণ পিতামাতার জন্য বিশেষ ক্লাস চালু করা উচিত। নির্দিষ্ট মানদণ্ড ও পরীক্ষাসহ বিভিন্ন বিভাগের যৌথ উদ্যোগে কমিউনিটিকে ভিত্তি করে বিভিন্ন পরিবারের সুষম সম্পর্ক স্থাপন, আবেগ নিয়ন্ত্রণ, মানসিক উন্নয়ন ও মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা উচিত।

সদস্য পান হুই লি পারিবারিক শিক্ষা সম্পর্কে আইন প্রণয়নের প্রস্তাব পেশ করেন। তিনি বলেন, আইনের মাধ্যমে পারিবারিক শিক্ষার দায়িত্ব স্পষ্টভাবে নির্ধারণ করা উচিত, বিশেষ করে পিতামাতাদের দায়িত্ব স্পষ্টভাবে ভাগাভাগি করা উচিত, যাতে বাচ্চার যত্ন বা শিক্ষার দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করা যায়।

সদস্য তিন মেই মনে করেন, শ্রেষ্ঠ পারিবারিক সংস্কৃতির উত্তরাধিকারের ওপর গুরুত্ব দেওয়া উচিত, এতে সামাজিক শক্তির ব্যাপক অংশগ্রহণ প্রয়োজন। পারিবারিক সংস্কৃতির মানদণ্ড ও নিয়মকানুন তৈরি করতে হবে।

চীনের ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রস্তাবে স্কুলের সনদে পারিবারিক শিক্ষা পূরণ করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। যা পিতামাতার নিজের তত্ত্বাবধায়ক দায়িত্ব ও অধিকার জানার জন্য সহায়ক। এটি স্কুল ও পিতামাতাদের মধ্যে অসঙ্গতি সমাধানে সহায়ক।

২০১৯ সালে বহু পদ্ধতিতে চীনের প্রিস্কুল শিক্ষা উন্নয়ন করা হবে

চীনের প্রিস্কুল শিক্ষা বরাবরই পিতামাতাদের মনোযোগ আকর্ষণ করে। চলতি বছর চীনের সরকারি কর্ম-বিবরণীতে প্রিস্কুলের উন্নয়ন সম্পর্কে বলা হয়, সরকারি বা বেসরকারি কিন্ডারগার্টেন যাই হোক না কেন তা একইসঙ্গে নিরাপদ এবং ব্যয় যুক্তিযুক্ত হলে সরকার তা সমর্থন দেবে।

বাচ্চাদের দেখাশোনার বিষয়টি কোটি কোটি পরিবারের সাথে জড়িত। চীনে 'দুই সন্তান নীতি' চালু করার পর শিশুদের যত্ন বা দেখাশোনার প্রয়োজনীয়তা আরো ব্যাপক হয় উঠেছে। সামাজিক শক্তিকে শিশুদের নার্সিং সেবা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠায় সমর্থন করে চীন সরকার, যাতে বাচ্চাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যায়।

এ সম্পর্কে চীনের বিভিন্ন ডেমোক্রেটিক পার্টি ও সদস্যরা প্রস্তাব দিয়েছে। সরকারি ও বেসরকারি কিন্ডারগার্টেন সম্পর্কে তারা মনে করে, সরকারি কিন্ডারগার্টেনের উপর ভিত্তি করে বেসরকারি কিন্ডারগার্টেনের বৈশিষ্ট্য উন্নত করতে হবে। দুর্বল কিন্ডারগার্টেন ও গ্রামাঞ্চলের ছোট আকারের কিন্ডারগার্টেনের সংস্কার সম্পন্ন করে গ্রাম ও পুরনো এলাকার জনসেবা নেটওয়ার্ক তৈরি করতে হবে, ২০১৯ সালের আগে বিভিন্ন অস্থায়ী শিশুসেবা প্রতিষ্ঠানের সংস্কার কাজ সম্পন্ন করতে হবে।

প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং ২০১৮ সালের নববর্ষের শুভেচ্ছা-বাণীতে উল্লেখ করেন যে, জনগণের মনে শিক্ষা, কর্মসংস্থান, বেতন, সামাজিক বীমা, চিকিত্সা, বয়স্ক সেবা ও আবাসিক পরিবেশসহ বিভিন্ন বিষয় অতি গুরুত্বপূর্ণ। তা থেকে বোঝা যায়, চীনা গণজীবিকায় শিক্ষার অবস্থা অতি গুরুত্বপূর্ণ।

(সুবর্ণা/টুটুল)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040