Web bengali.cri.cn   
শিক্ষা-সম্পর্কিত কয়েকটি খবর ও চীনের পেশাগত শিক্ষাদানের ব্যাপকতা
  2019-03-04 16:07:18  cri

০১৯ কিউএস ইউনিভার্সিটি র‍্যাংকিং প্রকাশিত, চীনের শিক্ষাদান দক্ষতার ব্যাপক উন্নতি

বিশ্ববিদ্যালয়ের মান যাচাইয়ের ব্রিটিশ প্রতিষ্ঠান কিউএস গত ২৭ ফেব্রুয়ারি লন্ডনে ২০১৯ সালে বিশ্বের বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান বিষয় (মেজর) ও বিষয়ের র‍্যাংকিং প্রকাশ করে। এই র‍্যাংকিংয়ের জন্য বিশ্বের ৭৮টি দেশ ও অঞ্চলের ১২০০টিরও বেশি বিশ্ববিদ্যালয় পর্যালোচনা করা হয়। চীনের ১১০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০৩২টি মেজর বিশ্বের শক্তিশালী মেজরগুলোর মধ্যে স্থান করে নেয়।

জানা গেছে, চীনের মূল-ভূভাগের ১৮টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯৬টি মেজর বিশ্বের শ্রেষ্ঠ মেজরে অন্তর্ভুক্ত হয়, যা ২০১৬ সালের তুলনায় ২৫৭ শতাংশ বেশি। চীনের হংকং বিশ্ববিদ্যালয়ের দন্তচিকিত্সা বিশ্বের চতুর্থ স্থান দখল করে এবং চীনের বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন মেজরের মধ্যে এই মেজরের স্থান প্রথম। ছিংহুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং চীনের মূল-ভূভাগের বিশ্ববিদ্যালয়ের সবচেয়ে সেরা মেজর হিসেবে বিশ্ব র‍্যাংকিংয়ে নবম স্থান অধিকার করে।

ইতালি'র রোম বিশ্ববিদ্যালয়ের শাস্ত্রীয় এবং প্রাচীন ইতিহাস বিশ্বের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে এককভাবে সেরা মেজর হিসেবে নির্বাচিত হয়।

গত ৬ বছরে বিশ্বের প্রভাবশালী বিশেষজ্ঞদের সার্বিক পর্যালোচনা, কর্মসংস্থানের প্রতিযোগিতামূলক দক্ষতার বহুমুখী পর্যালোচনা এবং ব্যাপক গবেষণাপত্র ও ১৫ কোটি তথ্য বিশ্লেষণ করার মাধ্যমে এ ফলাফল তৈরি করা হয়।

কিউএসের চীনা পরিচালক ড. চাং ইয়ান বলেন, চীনের শিক্ষা ব্যবস্থার সংস্কার চালু করার পর থেকে গত তিন বছরে বিশ্বের ৫০টি শক্তিশালী মেজরে অন্তর্ভুক্ত হওয়া চীনা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেজরের সংখ্যা ব্যাপকভাবে বেড়েছে। এতে দেখা যায়, চীনের শিক্ষার আধুনিকায়নে অনেক অগ্রগতি অর্জিত হয়েছে।

২০১৮ সালে চীনের বিভিন্ন ধরনের উচ্চ শিক্ষা গ্রহণকারীর সংখ্যা ৩.৩৮৩ কোটি

সম্প্রতি চীনের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রেস ব্রিফিংয়ে ২০১৮ সালে শিক্ষা কর্তব্যের উন্নয়ন নিয়ে তথ্য তুলে ধরা হয়। এতে বলা হয়, এ বছর চীনের বিভিন্ন ধরনের উচ্চ শিক্ষা গ্রহণকারীর সংখ্যা ৩.৮৩৩ কোটিরও বেশি।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উন্নয়ন বিভাগের পরিচালক লিউ ছাং ইয়া বলেন, চীনের উচ্চ শিক্ষার পাশাপাশি উচ্চ শিক্ষার কাঠামোও উন্নত হবে। ২০১৮ সালে চীনের কলেজ পর্যায়ের শিক্ষার্থী সংখ্যা ২ কোটি ৮৩ লাখ ১০ হাজারেরও বেশি, যা ২০১৭ সালের তুলনায় ২.৮১ শতাংশেরও বেশি। এছাড়া, মাস্টার্স পর্যায়ের শিক্ষার্থী সংখ্যা ২৭ লাখ ৩১ হাজারেরও বেশি, যা ২০১৭ সালের তুলনায় ৩.৪৭ শতাংশেরও বেশি।

প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষকতার মানদণ্ড উন্নত করবে চীন

চীনের শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষকতার পরীক্ষার সংস্কার চালু হবে এবং শিক্ষকতা যোগ্যতার মানদণ্ড উন্নত করা হবে। চলতি বছর থেকে শিক্ষকদের বেতনসহ নিশ্চিত ব্যবস্থা পূরণ করা হবে, যাতে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধির দীর্ঘকালীন কার্যকর ব্যবস্থা চালু করা যায়।

চীনের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের শিক্ষক-সম্পর্কিত বিভাগের পরিচালক রেন ইয়ৌ ছুন বলেন, চলতি বছর প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষকতা পরীক্ষার সংস্কার করে যোগ্যতার মানদণ্ড উন্নত করা হবে। শিক্ষকতা যোগ্যতার আবেদনকারীদের মধ্যে প্রথমবারের মতো চীনের হংকং ও ম্যাকাও বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চল ও তাইওয়ান প্রদেশের নাগরিকদের অন্তর্ভুক্ত করা হবে। তিনি বলেন,

'২০১৯ সালে শিক্ষকতা পরীক্ষা সংশোধন করা হবে। এছাড়া, পরীক্ষার মানদণ্ড ও কার্যক্রমসহ বিভিন্ন সংস্কার চালু করা হবে। কোনো শিক্ষার প্রশাসনিক বিভাগ ও প্রতিষ্ঠান যে-কোনো অজুহাতে শিক্ষকতা পরীক্ষার সংশ্লিষ্ট প্রশিক্ষণ দিতে পারবে না। গণনিরাপত্তা বিভাগের সাথে সহযোগিতা করে বিভিন্ন ধরনের পরীক্ষার অপরাধ ও নকল সনদপত্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।'

শিক্ষকদের ভর্তুকির নিশ্চয়তা নিয়ে পরিচালক রেন বলেন, ২০১৯ সালে সংশ্লিষ্ট ব্যবস্থা পূরণ করে শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধির দীর্ঘস্থায়ী কার্যকর ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে এবং তত্ত্বাবধান ও পরীক্ষা জোরদার করে শিক্ষকদের বেতন সংস্কার নীতি চালু করা হবে। তিনি বলেন,

'শিক্ষকদের অধিকার নিশ্চিত করা এবং ব্যবস্থামূলক দলিল প্রণয়ন করা হবে, যাতে পরীক্ষা, পর্যালোচনা, প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন কার্যক্রম সুশৃঙ্খলভাবে চালু করা যায় এবং প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষকদের অতিরিক্ত চাপ কমিয়ে দেওয়া যায়। এভাবে সুষ্ঠু শিক্ষাদানের পরিবেশ গড়ে তোলা যাবে।'

শিক্ষার্থীদের পেশাগত দক্ষতা অর্জনের সনদপত্র অর্জনে উত্সাহিত করে চীন

চীন সরকারের নতুন প্রকাশিত 'রাষ্ট্রীয় পেশাগত শিক্ষা সংস্কার প্রস্তাব' অনুযায়ী, চলতি বছরের মার্চ মাস থেকে বিভিন্ন পেশাগত স্কুল ও বিশ্ববিদ্যালয়ে 'অনার্স সনদ ও ভিন্ন পেশা দক্ষতার সনদপত্র'-র পরীক্ষামূলক কাজ চালু করা হবে। যাতে শিক্ষার্থীদের অনার্স ডিগ্রি লাভের সাথে পেশাগত দক্ষতার সনদপত্র অর্জনে উত্সাহ দেওয়া যায়।

পরিসংখ্যান থেকে জানা গেছে, ২০১৮ সালে চীনের নতুন পেশাগত স্কুলের সংখ্যা দাঁড়ায় ১১ হাজার ৭০০টি, এতে মোট শিক্ষার্থী সংখ্যা ২.৭ কোটি। পেশাগত শিক্ষাদানের মাধ্যমে ব্যাপক প্রযুক্তিগত দক্ষ ব্যক্তি তৈরি করা হয়, যাতে চীনের অর্থনীতি ও সমাজ উন্নয়নে মানব-সম্পদ প্রদান করা যায়।

চীনের পেশাগত শিক্ষাদান সংস্কার প্রস্তাবে ৭টি ক্ষেত্রে ২০টি প্রস্তাবের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে, যাতে শিক্ষার গভীর সংস্কার ও পরিবর্তন বাস্তবায়ন করা যায়। এ সম্পর্কে চীনের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পেশাগত প্রযুক্তি শিক্ষা কেন্দ্রের গবেষণাগারের প্রধান ওয়াং ইয়াং নান বলেন, পেশাগত স্কুল বা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স ডিগ্রি প্লাস পেশাগত দক্ষতার সনদপত্রের পরীক্ষা অর্থাত্ '১ প্লাস এক্স' ব্যবস্থায় বহুমুখী প্রযুক্তিগত দক্ষ ব্যক্তিদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। তিনি বলেন,

'পেশাগত দক্ষতার সনদপত্র হবে স্নাতক ও সামাজিক ব্যক্তিদের দক্ষতার প্রমাণপত্র ও তাদের লেখাপড়ার স্বীকৃতি। এই সনদপত্র থেকে দক্ষতা, পেশাগত জীবন ও ব্যক্তিগত কর্ম-জীবনের উন্নয়নের প্রয়োজনীয় বহুমুখী দক্ষতা প্রতিফলিত হয়, তাতে পেশাগত জ্ঞান, যোগ্যতা ও দক্ষতা অন্তর্ভুক্ত। শিক্ষার্থীরা নিজস্বভাবে পেশাগত দক্ষতা সনদপত্রের পরীক্ষা ও প্রশিক্ষণ বাছাই করতে পারবে, তবে এতে সবক্ষেত্রে একাডেমিক শিক্ষাগত যোগ্যতা বাধা হিসেবে থাকবে না।'

ওয়াং আরো জানান, '১ প্লাস এক্স' সনদপত্র ব্যবস্থার পরীক্ষা মার্চ মাসে শুরু হবে। তারপর এ বছরের মধ্যে ১০টি ক্ষেত্র পর্যন্ত প্রসারিত হবে এবং চীনের কিছু কিছু এলাকার উপযোগী স্কুলে পরীক্ষামূলক কাজ চালু হবে।

এদিকে চীনের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পেশাগত ও প্রাপ্তবয়স্ক শিক্ষা বিভাগের পরিচালক ওয়াং জি পিং বলেন, এ প্রস্তাবের উত্থাপন প্রায় ৫ থেকে ১০ বছরের মধ্যে শিক্ষার কাঠামো পরিবর্তন করতে সক্ষম। ফলে পেশাগত শিক্ষা সরকারের উদ্যোগ থেকে সরকারের প্রশাসন ও সামাজিক বহুমুখী আয়োজনে পরিণত হবে। তিনি বলেন,

'সমাজের বিভিন্ন মহল বিশেষ করে পেশাগত শিক্ষা বা শিল্প-প্রতিষ্ঠানকে পেশাগত শিক্ষাদানের সমর্থনে উত্সাহ দেওয়া হবে। সংশ্লিষ্ট বিভাগ পেশাগত শিক্ষার এসব প্রতিষ্ঠানের প্রশিক্ষণ খরচ কমানো বা বাতিল নীতিমালা গবেষণা এবং সংশ্লিষ্ট উত্সাহব্যাঞ্জক ব্যবস্থা চালু করবে, যাতে সমাজের শক্তির উপর নির্ভর করে পেশাগত শিক্ষাদানের উন্নয়নে আরো বেশি সম্ভাবনা অনুসন্ধান করা যায়।'

চীনের শিক্ষাদানের মান অনেক উন্নত হয়েছে

সম্প্রতি চীনের শিক্ষা কর্তব্যের পরিসংখ্যান প্রকাশিত হয়, এতে দেখা যায় যে, ২০১৮ সালে চীনের শিক্ষার মান অনেক উন্নত হয়েছে, নাগরিকদের শিক্ষা গ্রহণের সুযোগও সম্প্রসারিত হয়েছে।বিশেষ করে বাধ্যতামূলক পর্যায়ের শিক্ষা গ্রহণকারীদের পরিমাণ অনেক বেড়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা আরো জানান, বাধ্যতামূলক পর্যায়ে 'সুপার বড় ক্লাস' অনেক হ্রাস পেয়েছে, ২০১৮ সালে সবচেয়ে নিম্ন পর্যায়ে পৌঁছানো হয়েছে।

২০১৮ সালে চীনের শিক্ষা কর্তব্যের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, চীনের বিভিন্ন পর্যায়ের স্কুল সংখ্যা ৫ লাখ ১৮ হাজার ৯০০টি, যা গত বছরের তুলনায় ৫১২৮টি বেড়েছে, এতে বিভিন্ন পর্যায়ের শিক্ষার্থী সংখ্যা ২৭ কোটি ৬০ লাখ, যা গত বছরের তুলনায় ৫৩ লাখ ৫৯ হাজার ৭০০ জনেরও বেশি।

চীনের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উন্নয়ন ও পরিকল্পনা বিভাগের পরিচালক লিউ ছাং ইয়া বলেন, চীনের বিভিন্ন শ্রেণীর শিক্ষার মান অনেক বেড়েছে এবং নাগরিকদের শিক্ষা গ্রহণের সুযোগও সম্প্রসারিত হয়েছে। তিনি বলেন,

'প্রিস্কুলে ভর্তির হার প্রায় ৮১.৭ শতাংশ, যা গত বছরের তুলনায় ২.১ শতাংশেরও বেশি। প্রাথমিক স্কুলে শিশুদের ভর্তির হার ৯৯.৯৫ শতাংশ, যা গত বছরের তুলনায় ০.০৪ শতাংশেরও বেশি। মাধ্যমিক স্কুলে ভর্তির হার ১০০.৯ শতাংশ, উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তির হার ৮৮.৮ শতাংশ, যা গত বছরের তুলনায় ০.৫ শতাংশেরও বেশি।'

বাধ্যতামূলক শিক্ষার মান উচ্চ পর্যায়ে পৌঁছানোর সাথে সাথে 'সুপার বড় ক্লাস' সমস্যাও কার্যকরভাবে সমাধান হয়েছে। এ সম্পর্কে মৌলিক শিক্ষা বিভাগের উপ-প্রধান ইউ ওয়ে ইউয়ে বলেন, ২০১৮ সালের শেষ দিকে চীনের বাধ্যতামূলক শিক্ষা পর্যায়ে ক্লাসের মোট সংখ্যা ৩৭ লাখ ৫৪ হাজার ৯০০টি, এর মধ্যে বড় আকারের ক্লাসের সংখ্যা ২ লাখ ৬৫ হাজারটি, যা মোট সংখ্যার ৭.০৬ শতাংশ, সুপার বড় ক্লাসের সংখ্যা ১৮ হাজার ৭০০টি, যা মোট পরিমাণের ০.৫ শতাংশ। তিনি বলেন,

'২০১৭ সালের তুলনায় চীনের বাধ্যতামূলক শিক্ষাদানে 'বড় ক্লাস' সংখ্যা ১ লাখ ৩০০টি কমেছে। 'সুপার বড় ক্লাস' ৭৮.১ শতাংশে হ্রাস পেয়েছে, যা গত ১০ বছরের মধ্যে সবচে বেশি হ্রাস পেয়েছে।'

উচ্চ শিক্ষা খাতে বর্তমানে চীনে বিশ্বের বৃহত্তম উচ্চ শিক্ষা ব্যবস্থা তৈরি করা হয়েছে। অনার্স পর্যায়ের বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা ১২৪৫টি, অনার্স ও কলেজ পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের সংখ্যা ২ কোটি ৮৩ লাখ ১০ হাজার। উচ্চ শিক্ষায় ভর্তির হার প্রায় ৪৮.১ শতাংশ, যা গত বছরের তুলনায় ২.৪ শতাংশেরও বেশি। চীনের উচ্চ শিক্ষার জনপ্রিয়তা উচ্চ শিক্ষার উন্নয়নে অতি গুরুত্বপূর্ণ। উচ্চ শিক্ষা বিভাগের উপ-প্রধান ফান হাই লিন বলেন, ২০১৮ সালে শিক্ষা মন্ত্রণালয় শ্রেষ্ঠ মেজর কাঠামো উন্নত করার মাধ্যমে শ্রেষ্ঠ শিক্ষাদান বাস্তবায়ন করেছে। তিনি বলেন,

'প্রথম দফার ৬১২টি প্রকৌশল ও গবেষণা প্রকল্প নির্ধারিত হয়েছে, বিগ ডেটা, এআই ও মাল পরিবহন নেটওয়ার্কসহ প্রায় ৪০০টি প্রয়োজনীয় মেজর স্থাপন করা হয়েছে। তা ছাড়া, 'এক অঞ্চল, এক পথ' সংলগ্ন দেশের ভাষা শেখার মেজর স্থাপন করা হবে।'

প্রিয় শ্রোতা, সময় দ্রুত চলে যায়। আমাদের আজকের অনুষ্ঠানও এখানেই শেষ করতে হবে। এ অনুষ্ঠান সম্পর্কে কোনো মতামত থাকলে আমাদের চিঠি লিখতে ভুলবেন না। আমাদের যোগাযোগ ঠিকানা ben@cri.com.cn,caoyanhua@cri.com.cn

সময় মতো আমাদের অনুষ্ঠান শুনতে না পারলে বা শুনতে মিস করলে আমাদের ওয়েবসাইটে তা শুনতে পারবেন। ওয়েবসাইটের ঠিকানা: www.bengali.cri.cn

(সুবর্ণা/টুটুল)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040