Web bengali.cri.cn   
তিব্বতি পঞ্জিকার নববর্ষের উদযাপনী অনুষ্ঠান পালিত
  2019-02-06 16:21:01  cri

ফেব্রুয়ারি ৬: গতকাল (মঙ্গলবার) ছিলো চীনের চান্দ্র নববর্ষের প্রথম দিন, এটি তিব্বতি পঞ্জিকার নববর্ষের প্রথম দিনও বটে। তিব্বতি জনগণ ঐতিহ্য অনুযায়ী জাতীয় পোশাক পড়ে বৈচিত্র্যময় ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেন। বলা যায়, তিব্বতি পঞ্জিকার নববর্ষ সবচেয়ে লোকজ উত্সব ছাড়াও, ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতি বাঁচিয়ে রাখার এক মহাসম্মিলনী।

তিব্বতে গণতান্ত্রিক সংস্কার চালু হওয়ার পর থেকে চিওমুলোং তিব্বতি অপেরাসহ তিব্বতের শ্রেষ্ঠ ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতি কার্যকরভাবে সংরক্ষণ করা হয়। তিব্বতি অপেরা পরিবেশনাদলের প্রাণবন্তভাবে উন্নয়ন হচ্ছে। প্রতি বছর তিব্বতি পঞ্জিকার নববর্ষ চলাকালে তারা বিভিন্ন গ্রামে পরিবেশনা উপস্থাপন করেন।

লাসা শহরের সাংস্কৃতিক ব্যুরোর একজন কর্মকর্তা জানান, ২০১১ সালে তিব্বতি পঞ্জিকার নববর্ষ জাতীয় অবৈষয়িক কালচারাল হেরিটেজের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়। এর পর থেকে তিব্বতি পঞ্জিকার নববর্ষের মাধ্যমে ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতি ও কারুকার্য জনগণের জীবনে ফিরিয়ে আনা হলো তার দৈনন্দিন কাজ।

তিব্বতে গণতান্ত্রিক সংস্কারের ৬০ বছরের মধ্যে বিশেষ করে ২০০৫ সালে রাষ্ট্রীয় পরিষদে অবৈষয়িক কালচারাল হেরিটেজ সংরক্ষণের কাজ শুরু হওয়ার পর থেকে তিব্বতের তিনটি প্রকল্প জাতিসংঘের অবৈষয়িক কালচারাল হেরিটেজের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়। ৮৯টি প্রকল্প এবং ৯৬ জন ব্যক্তি জাতীয় অবৈষয়িক কালচারাল হেরিটেজের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়। দশ বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে কেন্দ্রীয় সরকার এবং তিব্বত স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের সরকার এ কাজে মোট ২২ কোটি ইউয়ান রেনমিনপি বরাদ্দ করেছে বলে ধারণা করা হয়।

লিলি/টুটুল

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040