Web bengali.cri.cn   
২০১৮ সালের চীনের সর্বোচ্চ বিজ্ঞান প্রযুক্তি পুরস্কার ঘোষিত
  2019-01-09 14:21:31  cri

 

জানুয়ারি ৯: চীনের জাতীয় বিজ্ঞান প্রযুক্তি পুরস্কার সম্মেলন গতকাল (মঙ্গলবার) রাজধানী বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত হয়। ২০১৮ সালের জাতীয় বিজ্ঞান প্রযুক্তি পুরস্কার বিজয়ীরা মৌলিক বিজ্ঞান ও শিল্প প্রযুক্তির বিভিন্ন খাত থেকে নির্বাচিত হন। তারা অর্থনীতি ও সামাজিক উন্নয়নের প্রধান ক্ষেত্রের সঙ্গে জড়িত। এতে অর্থনীতির উন্নয়ন ও লোকজনের জীবনযাপনের মান উন্নতকরণে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ত্বরান্বিতকরণের ভূমিকা প্রতিফলিত হয়। একই সঙ্গে নব্যতাপ্রবর্তনে কোম্পানির প্রধান অবস্থান ও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাও দেখা যায়। বন্ধুরা, আজকের সংবাদ পর্যালোচনায় আমরা এ বিষয় নিয়ে কিছু আলোচনা করবো।

২৭৮টি প্রকল্প ও ৭ জন বিজ্ঞানী চীনের ২০১৮ সালের জাতীয় বিজ্ঞান প্রযুক্তি পুরস্কার লাভ করে। তাদের মধ্যে হার্বিন শিল্প বিশ্ববিদ্যালয়ের লিউ ইয়ং থান ও পিপলস লিবারেশন আর্মির ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিভার্সিটির ছিয়ান ছি হু সর্বোচ্চ বিজ্ঞান প্রযুক্তি পুরস্কার লাভ করেন। জাতীয় প্রাকৃতিক বিজ্ঞান পুরস্কার, জাতীয় প্রযুক্তি আবিষ্কার পুরস্কার, আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান প্রযুক্তি সহযোগিতা পুরস্কার ইত্যাদি পুরস্কারও প্রদান করা হয়।

চীনের জাতীয় বিজ্ঞান প্রযুক্তি পুরস্কার কার্যালয়ের দায়িত্বশীল ব্যক্তি ছেন চি মিন বলেন, ২০১৮ সালের বিজ্ঞান প্রযুক্তি পুরস্কারের মধ্যে অনেক নতুন গবেষণার ফলাফল দেখা যায়, পুরস্কারের আন্তর্জাতিক প্রভাবও উন্নত হয়েছে।

তিনি বলেন, ২০১৮ সালের বিজ্ঞান প্রযুক্তি পুরস্কার পাওয়া প্রকল্পগুলো অর্থনৈতিক উন্নয়নে শক্তিশালী সমর্থন দেয়। এসব প্রকল্পের মধ্যে জীবনযাপন ও পরিবেশ সম্পর্কিত অনেক প্রকল্প আছে, যা জনগণের জীবিকা উন্নয়নে সহায়ক।

সংস্কার ও উন্মুক্তকরণের ৪০ বছরে, চীন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি অর্জন করেছে। এই সময়ের মধ্যে চীনের বিজ্ঞান প্রযুক্তির শক্তিও উন্নত হয়েছে, কিছু গুরুত্বপূর্ণ খাতে বিশ্বের সামনে চলে এসেছে চীন। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির উন্নয়ন অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নে বড় অবদান রেখেছে।

হুয়া নেং লানছাং নদী জলবিদ্যুৎ কোম্পানির মা হোং ছি একাডেমিশিয়ান অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় ও গবেষণা কেন্দ্রের কর্মীদের সঙ্গে ১১ বছরের গবেষণার পর বিশ্বের প্রথম 'হাইড্রোলিক শিপ লিফ্টার' আবিষ্কার করেন, যা চীনের ২০১৮ সালের জাতীয় বিজ্ঞান প্রযুক্তি পুরস্কারের দ্বিতীয় পুরস্কার অর্জন করে। মা হোং ছি ব্যাখ্যা করে বলেন, বিদ্যুৎ শক্তি থেকে হাইড্রোলিক পাওয়ার পর্যন্ত শিপ লিফ্টারের নিরাপত্তা উল্লেখযোগ্যভাবে উন্নত হয়, বিভিন্ন অবস্থায় ব্যবহার করা যাবে এবং খরচ আরো কম হবে। এর প্রায়োগিক ভবিষ্যত সম্ভাবনা বিশাল।

অর্থনৈতিক উন্নয়ন সংক্রান্ত প্রকল্প ছাড়াও, ২০১৮ সালের বিজ্ঞান প্রযুক্তি পুরস্কারে জনগণের জীবিকা সম্পর্কিত অনেক প্রকল্প এই পুরস্কার লাভ করেছে। অতীতে চীনের উত্তরাঞ্চলের লোকজন শীতকাল আসার আগে শাকসবজি মজুত করে রাখতেন। বিজ্ঞানীদের ৩০ বছরের গবেষণার পর, বর্তমানে চীনের সব প্রদেশে সারা বছর শাকসবজি পাওয়া যায়।

চীনের কৃষি বিজ্ঞান একাডেমির শাকসবজি ও ফুল ইনস্টিটিউটের গবেষক হুয়াং উন সান শসার জিন সংশ্লিষ্ট গবেষণার জন্য এ খাতের দ্বিতীয় পুরস্কার লাভ করেন। তিনি মনে করেন, জনগণের জীবনযাপনের মৌলিক চাহিদা পূরণ করা গবেষণা কাজের সবচেয়ে বড় চালিকাশক্তি। হুয়াং উন সান বলেন, শসার জিন গবেষণার মাধ্যমে তিনি সফলভাবে কোনো তিক্ততা নেই এমন নতুন শসা চাষ করেছেন। গবেষণার ফলাফল জনগণের চাহিদা পূরণ করেছে, এজন্য তিনি অনেক খুশি ও আনন্দিত।

অনেক কোম্পানি ২০১৮ সালের বিজ্ঞান প্রযুক্তি পুরষ্কার পেয়েছে। ১৩৪টি জাতীয় বিজ্ঞান প্রযুক্তির অগ্রগতি পুরস্কারের ৩০ শতাংশ পুরস্কার কোম্পানি পেয়েছে। নব্যতাপ্রবর্তনের প্রধান শক্তি হিসেবে কোম্পানির উন্নয়নও চীনের বিজ্ঞান প্রযুক্তি উন্নয়ন ত্বরান্বিত করবে।

(তুহিনা/টুটুল)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040