Web bengali.cri.cn   
তৃতীয় চীন-ইউরোপ আন্তর্জাতিক সাহিত্য উত্সব কুয়াংচৌ-এর সেনচেন শহরে অনুষ্ঠিত
  2018-12-04 15:56:27  cri

 

তৃতীয় চীন-ইউরোপ আন্তর্জাতিক সাহিত্য উত্সব কুয়াংচৌ-এর সেনচেন শহরে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

তৃতীয় চীন-ইউরোপ আন্তর্জাতিক সাহিত্যিক উত্সব গত ১৯ নভেম্বর কুয়াংচৌ শহরে শুরু হয়। উত্সব আয়োজন করেছে চীনে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদল। ১৯ থেকে ২১ নভেম্বর ও ২৫ নভেম্বর কুয়াংচৌয়ে এবং ২২ থেকে ২৪ নভেম্বর সেনচেন শহরে অনুষ্ঠিত হয় এ উত্সব।

চীনে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদল ১৯৮৮ সালে বেইজিংয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়। এ প্রতিনিধিদলের প্রধান কর্তব্য হলো চীন ও ইউরোপের মধ্যে সরকারি যোগাযোগ বজায় রাখা ও দু'পক্ষের সহযোগিতা ও বিনিময় জোরদার করা।

'Indulge in Europe' নামে একটি নতুন সামাজিক মিডিয়া তত্পরতা আয়োজন করে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদল। এর মধ্যে একটি অংশ হলো তৃতীয় চীন-ইউরোপ আন্তর্জাতিক সাহ্যিতিক উত্সব।

সাহিত্য উত্সবে ২০টি ইভেন্ট আয়োজন করা হয়। ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও চীনের ৩৬জন বিখ্যাত লেখক-লেখিকা তাদের সাহ্যিতিক জীবন, তাদের কর্ম, সাংস্কৃতিক পটভূমিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে গভীর সংলাপ চালিয়েছে। চীনা দর্শকরা তাদের সংলাপ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েছে।

২০১৬ সালের ইইউ সাহিত্য পুরস্কার বিজয়ী সাইপ্রাসের লেখক জনাব আন্তনিস জর্জিয়ু এবার সাহ্যিতিক উত্সবে অংশ নিয়ে খুব আনন্দিত। তিনি বলেন, চীনে চীনা লেখক লেখিকাদের সঙ্গে বিনিময়ের একটি বিশেষ সুযোগ তৈরি হয়েছে। বেশিরভাগ মানুষ মনে করে যে ইউরোপ এবং চীন ইতিমধ্যে একে অপরকে ভালভাবেই জানে; কিন্তু একই সাথে, আমরা একে-অপর সম্পর্কে প্রায় কিছুই জানি না। সাহিত্য অন্যান্য মানুষ এবং অন্যান্য বিভিন্ন সংস্কৃতি বোঝার একটি কার্যকর উপায়। তিনি আশা করেন, সাহিত্য উৎসবের সুযোগে মানুষের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে বিদ্যমান বাঁধাধরা নিয়ম উৎখাত হবে।

তিনি বলেন, "আমি আশা করি, আমরা এই মিটিংগুলিতে আকর্ষণীয় প্রশ্ন পাব, এমনকি যদি তার কোনো উত্তর নাও থাকে।"

সাহিত্য উৎসবে অংশগ্রহণকারী অন্যান্য বিখ্যাত লেখক হলেন: লিবারিয়ান সাহিত্য পুরস্কার বিজয়ী হুয়াং লি হাই, তৃতীয় লু স্যুন সাহিত্য পুরস্কারজয়ী উপন্যাস রচয়িতা ওয়েই ওয়েই, ড্যানিশ লেখক মাথিল্ড ওয়াল্টার ক্লার্ক, মাল্টিজ লেখক এবং ২০১৪ ইউরোপীয় সাহিত্য পুরস্কারের বিজয়ী পিয়ের মেজালক, ফিনল্যান্ডের হেলসিঙ্কি লেখক ও মনোবিজ্ঞানী, ফিনল্যান্ডের সর্বোচ্চ সাহিত্য পুরস্কার- ফিনল্যান্ডিয়া পুরস্কার বিজয়ী জুসি ভ্যাল্টন এবং চীন, নেদারল্যান্ডস, পোল্যান্ড, রোমানিয়া, সুইডেন এবং যুক্তরাজ্যের অনেক লেখক।

চীনা পাঠকদের সঙ্গে ভালো যোগাযোগের লক্ষ্যে, সংগঠকরা চীনা নেটিজেন লেখকদের সঙ্গে ডিনার করার বিশেষ সুযোগ এবং তাদের প্রিয় লেখকদের নিকটবর্তী হওয়ার সুযোগ দিয়েছে।

সুইজারল্যান্ড বিশ্বের বৃহত্তম পোস্টকার্ড তৈরি করে জলবায়ু পরিবর্তন ইতিবাচকভাবে মোকাবিলার আহবান জানায়।

গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস ভেঙেছে একটি বিশাল পোস্টকার্ড। বিশাল এই পোস্টকার্ডটি সম্প্রতি সুইজারল্যান্ডের আলটেশ (Aletsch) হিমবাহের উপরে প্রদর্শন করা হয়। এই পোস্টকার্ডের লক্ষ্য হলো: জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলার জন্য বিশ্বব্যাপী আহবান জানানো। পোস্টকার্ডটি ১ লাখ ২৫ হাজার নিয়মিত-আকারের পোস্টকার্ড দিয়ে গঠিত। এর মোট আয়তন ২৫০০ বর্গমিটার।

সংগঠক সংস্থা সুইস উন্নয়ন সহযোগিতা এজেন্সি জানায়, ৩৫টি দেশের ৬ থেকে ২০ বছর বয়সী ১ লাখ ২৫ হাজার শিশু এবং কিশোর-কিশোরী এই ১ লাখ ২৫ হাজার পোস্টকার্ড তৈরি করেছে। প্রতিটি পোস্টকার্ডের প্রতিপাদ্য 'জলবায়ু পরিবর্তন' সম্পর্কিত। প্রতিটি কার্ড বৈশ্বিক উষ্ণতা কমিয়ে আনার ক্ষেত্রে তরুণ প্রজন্মের উদ্বেগ ও প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করে। সুইস ডেভেলপমেন্ট কো-অপারেশন এজেন্সির প্রধান গাস বলেন,

"এই ইভেন্টের উদ্দেশ্য হলো- সারা বিশ্বে একটি শক্তিশালী সংকেত পাঠানো। তরুণদের জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব কমিয়ে আনার দায়িত্ব নিতে হবে। কারণ, আমাদের কেবল একটিই পৃথিবী আছে।"

কুয়াংচৌ সাংস্কৃতিক শিল্পমেলা-২০১৮ অনুষ্ঠিত হবে

কুয়াংচৌ সাংস্কৃতিক শিল্পমেলা-২০১৮ গত ৩০ নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে। এটি কুয়াংচৌ প্রদেশের বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং বিশ্বের প্রভাব নিয়ে কুয়াংচৌয়ের নিজস্ব সাংস্কৃতিক কার্যক্রম।

কুয়াংচৌ সাংস্কৃতিক শিল্প মেলার প্রধান লক্ষ্য হলো সামুদ্রিক রেশমপথের সাংস্কৃতিক সহযোগিতা জোরদার করে কুয়াংতুং-হংকং-ম্যাকাও উপসাগরীয় এলাকার সংস্কৃতি তৈরির কাজ এগিয়ে নিয়ে যাওয়া।

এবারের মেলায় ১১টি অংশ, ১৭টি সাংস্কৃতিক প্রধান ইভেন্ট, ১০০টিরও বেশি সাংস্কৃতিক পরিবেশনা ছিল। এতে রয়েছে দ্বিতীয় সংস্কৃতি ও সৃজনশীল শিল্প সম্মেলন--থিয়েনহে সামিট, প্রযুক্তির সামনের দিকে কুয়াং চৌ ইন্টারন্যাশনাল ভার্চুয়াল রিয়ালিটি ইন্ডাস্ট্রি সম্মেলন, কুয়াংচৌ অ্যানিমেশন আর্ট ৪০ বছর অর্জিত কৃতিত্ব প্রদর্শনী, বিশ্বের বিখ্যাত পিকাসো আর্ট প্রদর্শনী, অর্থাত্ আমেরিকান এলসি গ্যালারির ১০তম বার্ষিকী উদযপানী অনুষ্ঠান ইত্যাদি। গত বছরের প্রথম কুয়াংচৌ সাংস্কৃতিক শিল্প মেলায় গুরুত্বপূর্ণ ২১টি প্রকল্প স্বাক্ষরিত হয়, সরাসরি টার্নওভার দুই বিলিয়ন ইউয়ান ছাড়িয়েছে।

বার্লিনে চীনা সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে পঞ্চম চীনা শিশু নাট্য সপ্তাহ অর্থাত্ বার্লিন ২২তম পুতুল থিয়েটার ফেস্টিভাল অনুষ্ঠিত

বার্লিনে চীনা সাংস্কৃতিক কেন্দ্র এবং বার্লিন চিল্ড্রেন প্রাসাদ পঞ্চম চীনা শিশুনাট্য সপ্তাহ অর্থাত্ বার্লিন ২২তম পুতুল থিয়েটার উত্সব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

তিন দিনের এই অনুষ্ঠানে চীনা হংইয়ু ছায়াভিনয় নাটক দল বার্লিনের ইয়াম মার্কবা প্রাথমিক স্কুল এবং বার্লিন শিশু প্রাসাদে ৬টি পরিবেশনার আয়োজন করা হয়। প্রতিটি অনুষ্ঠান শেষে নাটক দলের সদস্যরা দর্শকদের নাটক দেখার জন্য আমন্ত্রণ জানায় ছায়াভিনয় উপভোগ করে এবং এই কাজের অভিজ্ঞতা দর্শকদের সঙ্গে বিনিময় করে।

ছায়াভিনয় বেইজিংয়ের সবচেয়ে প্রাচীনতম নাটকের একটি। বেইজিংয়ে ছায়াভিনয়ের বাস্তবতা এবং রোমান্টিকতার মিশ্রণ রয়েছে। ঐতিহ্যবাহী নাটকের থিমের মধ্যে রয়েছে পৌরাণিক কাহিনী, ঐতিহাসিক গল্প, লোকগল্প ইত্যাদি।

(জিনিয়া/তৌহিদ)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040