Web bengali.cri.cn   
উন্মুক্ত বিশ্ব অর্থনীতি গঠনে চীন নতুন চালিকাশক্তি যোগাবে
  2018-11-05 16:38:16  cri
নভেম্বর ৫: চীনের প্রথম আন্তর্জাতিক আমদানি মেলা আজ (সোমবার) সকালে শাংহাইয়ে উদ্বোধন হয়েছে। ১৭২টিরও বেশি দেশ, অঞ্চল ও আন্তর্জাতিক সংস্থার ৩৬০০টিরও বেশি প্রতিষ্ঠান এতে অংশ নিয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং 'নব্যতাপ্রবর্তন ও সহনশীল উন্মুক্তকরণের বিশ্ব অর্থনীতি গঠন শীর্ষক এক ভাষণ দেন। এ ভাষণে বিভিন্ন দেশের উন্মুক্তকরণ ও সহযোগিতা জোরদারে ইতিহাস পর্যালোচনা করে তিনটি প্রস্তাব দেন সি। পাশাপাশি চীনের আরও উন্মুক্তকরণ জোরদারে ৫টি ব্যবস্থা গ্রহণের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। সেসব উদ্যোগ ও ব্যবস্থা অবাধ বাণিজ্য ও বহুপক্ষীয় বাণিজ্যিক ব্যবস্থা রক্ষা, আরও উন্মুক্তকরণ বিশ্ব অর্থনীতি গঠন এবং মানবজাতির অভিন্ন স্বার্থ সংশ্লিষ্ট কমিউনিটি প্রতিষ্ঠায় আরও শক্তিশালী চালিকাশক্তি যুগিয়েছে।

চীনে একটি প্রবাদ আছে, 'সাধারণ মানুষ স্বার্থ অনুসন্ধান করে এবং মেধাবী মানুষ প্রবণতা অনুসন্ধান করে।' এতে প্রমাণিত হয় যে, একটি মানুষ, একটি সমাজ ও একটি রাষ্ট্র কেবল প্রবণতার সঙ্গে তাল মিলিয়ে চললেই ব্যাপক উন্নতি করতে পারে।

বর্তমান বিশ্ব অর্থনীতি ব্যাপক চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হচ্ছে। এ প্রেক্ষাপটে সি চিন পিং বিশ্ব ও চীনের অর্থনীতি নিয়ে সচেতন থাকার কথা বলেন। ভাষণে তিনি বলেন, অর্থনীতির বিশ্বায়ন ঐতিহাসিক প্রবণতা। উন্মুক্তকরণ ও সহযোগিতা বিশ্বের অর্থ-বাণিজ্যকে প্রাণচঞ্চল করার নতুন চালিকাশক্তি। বিভিন্ন দেশের প্রতি উন্মুক্তকরণ ও যোগাযোগ জোরদার এবং উভয়ের উপকারিতামূলক সহযোগিতার আওতা বাড়ানো, নব্যতাপ্রবর্তনের মাধ্যমে পরিচালনা করা এবং পুরানো ও নতুন চালিকাশক্তি রূপান্তর করা, সহনশীল উপকারিতার ভিত্তিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের অভিন্ন উন্নয়ন সাধন' এ তিনটি নীতি অনুসরণের আহ্বান জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট সি।

(রুবি/তৌহিদ)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040