Web bengali.cri.cn   
ব্রিটিশ রাজ-পরিবারের সেবিকা
  2018-10-14 15:28:10  cri
'ব্রিটিশ রাজ-পরিবারের সেবিকা'

ব্রিটিশ রাজ-পরিবারের প্রত্যেক সদস্য খুব ব্যস্ত! তাই প্রশ্ন হলো, তাদের সন্তানদের দেখাশোনা করে কে? তাদের কি সময় আছে?

এর উত্তর: নেই।

তাই রাজকীয় পরিবারের নার্স-ব্যবস্থা বেশ উন্নত। কিন্তু, পর্দার পেছনে এসব সেবিকার গল্প খুব কমই জানা যায়। এ কারণে তাদের ব্যাপার খুব রহস্যময়। সম্প্রতি একটি গণমাধ্যম রাজ-পরিবারের নার্সদের জগতে প্রবেশ করে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করেছে। তারা জানতে পেরেছে যে, রাজ-পরিবারের নার্সরা এজেন্টের মতো! আজকের অনুষ্ঠানে আমরা প্রিন্স উইলিয়াম এবং রানী কেট-এর পেশাদার সেবিকা- মারিয়া বরিললোর গল্প শুনবো।

মারিয়ার বেতন প্রায় ১ লাখ পাউন্ডের কাছাকাছি বলে জানা গেছে। তার একটি কলেজ ডিগ্রি আছে। তা ছাড়া, সে হাতে-হাতে লড়াই করতে পারে এবং চরম অবস্থায় গাড়ি চালাতেও পারে। শুধু তাই নয়, তিনি প্রায়ই রানী এলিজাবেথের সঙ্গে আলাপ করতে পারেন, যা বেশ সুন্দর একটি কাজ!

আসলে, রাজ-পরিবারে নার্স নিয়োগ করা ব্রিটেনের ধনী ব্যক্তিদের দীর্ঘস্থায়ী ঐতিহ্য। রাজ-পরিবারে নার্স নিয়োগের জন্য কোনো বিজ্ঞাপনের দরকার নেই। কারণ, ইংল্যান্ডে খুবই উন্নত সেবিকা সরবরাহ ব্যবস্থা আছে।

একজন সেবিকার কাজ হলো বাড়িতে শিশুদের যত্ন নেওয়া। তারা যেন পরিবারের দাসদাসী! তারা পরিবারের হোস্টেলে সরাসরি রিপোর্ট করে। সেবিকাদের মালিকের পরিবারে থাকা বা না-থাকার বিষয়টি তাদের নিজস্ব পরিস্থিতি এবং নিয়োগকর্তার পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে। এই কারণে, যুক্তরাজ্যের একটি স্কুল রয়েছে যা উচ্চমানের সেবিকা প্রশিক্ষণে বিশেষজ্ঞ। এর নাম- নরল্যান্ড কলেজ। এই কলেজের ১২৫ বছরের ইতিহাস আছে! এই কলেজে প্রশিক্ষিত স্নাতক রয়েছে। প্রায়ই গুরুত্বপূর্ণ মানুষদের এরা সেবা দেয়। মারিয়া এই কলেজ থেকেই স্নাতক পাস করেছেন।

এ কথা বলতেই হয়, 'নরল্যান্ড কলেজ, একটি রহস্যময় কলেজ! সর্বোপরি, এই কলেজের ইউনিফর্মও বেশ নজরকাড়া। একটি সম্পূর্ণ ইউনিফর্ম ৮০০ পাউন্ড বা ৭০০০ ইউয়ান। অর্থাৎ ৯৬ হাজার টাকা! এই কলেজ থেকে স্নাতক হওয়া শিক্ষার্থীরা ব্যাচেলর অফ আর্টস ডিগ্রির মান অর্জন করে। তিন বছরের কর্মসূচিতে, প্রধান বিষয় হলো প্রারম্ভিক বিকাশ ও শিক্ষা। এই শিক্ষাব্যবস্থায় তারা সামাজিক ও মানসিক বিকাশের তত্ত্ব শিখে। এ ছাড়া, তাদের প্রধান কোর্সের মধ্যে রয়েছে মনোবিজ্ঞান, ইতিহাস, দর্শন, সমাজবিজ্ঞান ও সাহিত্য। তারা ঘনিষ্ঠ যুদ্ধ এবং মেডিকেল প্রাথমিক সাহায্য দক্ষতা সম্পর্কে শিখে। হ্যাঁ, এগুলো সিনিয়র 'ন্যানি'দের জন্য। শুধুমাত্র 'ন্যানি'-ই নয়, তারা দেহরক্ষীও হয়। এই কলেজে আত্মরক্ষা বিষয়ে শিক্ষা দেওয়া হয়। অর্থাত্, শত্রুকে পরাস্ত করার দক্ষতা অর্জন করা। তাদের শিক্ষকরা বেশ শক্তিশালী। তারা ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর সাবেক সদস্য। বলা হয় যে, সাধারণ কোনো গ্যাংস্টার এই কলেজের শিক্ষার্থীদের কাবু করতে পারবে না। কোন জরুরি অবস্থায় থাকলে 'ফার্স্ট এইড' ব্যবহার করতে পারেন তারা। লড়াইয়ের পাশাপাশি তাদের ড্রাইভিং শিখতে হয় এবং জরুরি ও খারাপ আবহাওয়ায় গাড়ি চালানো শিখতে হয়। এমনকি স্টান্ট ড্রাইভিং শিখতে হয়। এ-সব দক্ষতা ব্রিটেনের রাজ-পরিবারে কাজ করতে হলে প্রয়োজন। সর্বোপরি, মাফিয়া ও সন্ত্রাসী এড়িয়ে চলা এবং চরমক্ষেত্রে সন্ত্রাসীদের মোকাবিলা করার দক্ষতাও তাদের অর্জন করতে হয়। তাদের সাঁতারও শিখতে হয়।

নরল্যান্ড কলেজ থেকে স্নাতককৃত প্রত্যেক ন্যানি ভালোভাবে সাঁতার কাটতে পারে এবং ডুবে যাওয়া মানুষকে উদ্ধার করার সব প্রক্রিয়া জানে।

কিন্তু তারা শুধু এসব দক্ষতাই শিখে না। তারা পুষ্টি এবং রান্না সম্পর্কে শিখে। যাতে তারা সব বয়সের শিশুদের জন্য সুষম, সুস্থ ও পুষ্টিকর খাদ্যতালিকা তৈরি করতে পারে। এ ছাড়া, তাদের শিশুদের ঘুমের অভ্যাস, টয়লেটের অভ্যাস, রোগের লক্ষণ, খাওয়ানোর দক্ষতা এবং শিশুদের সঙ্গে কীভাবে খেলাধুলা করা উচিত তা সম্পর্কেও শিখতে হয়।

উপরন্তু, কীভাবে নিয়োগকর্তাদের পরিবারের সঙ্গে আরও সুষম পারিবারিক সম্পর্ক গড়ে তুলতে হয়, সে সম্পর্কেও তাদের শেখানো হয়। ন্যানিদের শেখানো হয়, বাবা তাদের সন্তানদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মানুষ; তাই তারা তাদের পিতামাতার অবস্থা দখলের চেষ্টা করবে না!

আচ্ছা, সম্ভবত আপনি জিজ্ঞাসা করতে চান, একজন সিনিয়র ন্যানি এক বছরে কত উপার্জন কর?

নরল্যান্ড কলেজের ভাইস প্রেসিডেন্ট ম্যান্ডি ডোনাল্ডসন জানান, লন্ডনে নিযুক্ত একজন স্নাতকের বার্ষিক বেতন ২৬ হাজার থেকে ৪২ হাজার পাউন্ড হয়। যা মধ্যবিত্ত এক মানুষের উপার্জন। আমরা যদি তুলনা করি...ব্রিটিশ ইন্টারঅ্যাকশন ডিজাইনারদের গড় বার্ষিক বেতন ৩৮ হাজার পাউন্ড। BabyGaga.com এর তথ্য অনুসারে, ব্রিটিশ রাজ-পরিবারের জন্য ন্যানির বার্ষিক বেতন ৯২ হাজার পাউন্ডের বেশি হতে পারে!

বেতনের পাশাপাশি মারিয়া প্রাসাদে থাকেন। সেখানে তার নিজস্ব সুইট আছে। আলাদা টয়লেট এবং আলাদা রান্নাঘর আছে। খাওয়া ও ভাড়া নিয়ে কোনো চিন্তা করতে হয় না। তবে, নরল্যান্ড কলেজের শিক্ষার খরচ কিন্তু কম নয়! বার্ষিক টিউশন ফি ১২ হাজার পাউন্ড! কলেজের শিক্ষার্থী নির্ধারিত। তাই স্নাতকদের চাকরি পাওয়া নিয়ে কোনো চিন্তা করতে হয় না। বর্তমান পরিসংখ্যান অনুযায়ী, নরল্যান্ডের স্নাতকদের জন্য অপেক্ষা করছে ছয়টি কাজ। ন্যানি হিসাবে শুধু ব্রিটেনেই নয়, বরং সারা বিশ্বে রাজ-পরিবার ও ধনী পরিবারে তারা কাজ করে। বিদেশে কাজের বেতন সাধারণত বেশি হয়। অতীতে, ন্যানি হিসেবে সাধারণত নারীরা কাজ করত। সাম্প্রতিক বছরগুলিতে, নরল্যান্ড পুরুষ শিক্ষার্থীও প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। দেখা যাচ্ছে যে, এর প্রভাব খারাপ না।

কিন্তু উল্লেখযোগ্য আরেকটি বিষয় হলো, ন্যানির ওপর অনেক বিধিনিষেধ রয়েছে। যেমন: কোনো মেকআপ করতে পারবে না। তা ছাড়া, সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হলো: মালিকের তথ্য গোপন রাখা।

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040