Web bengali.cri.cn   
চলতি বছর সি-পুতিন তৃতীয় বৈঠক
  2018-09-12 14:02:34  cri

সেপ্টেম্বর ১২: চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং ও রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন গতকাল (মঙ্গলবার) রাশিয়ার ভ্লাদিভস্তকে বৈঠক করেছেন। দু'নেতা একমত হয়েছেন যে, চলতি বছরে দু'দেশের সম্পর্কে আরো সক্রিয় উন্নয়নের প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি পরিবর্তন হলেও, চীন ও রাশিয়া দৃঢ়ভাবে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক উন্নত করবে।

এদিন বিকালে চীনা প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং ভ্লাদিভস্তক পৌঁছার পর প্রথম কর্মসূচীই ছিল রুশ প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠক করা। চলতি বছর দু'দেশের নেতা তৃতীয় বার বৈঠক করেন। ২০১৩ সালের পর থেকে দু'নেতার ২৬তম বৈঠক এটি। চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং বলেন,

গত ৪ মাসে আমি এবং প্রেসিডেন্ট পুতিন তিন বার বৈঠক করেছি। এত ঘনিষ্ঠ বিনিময় দু'দেশের সম্পর্কের গুরুত্ব প্রতিফলিত করেছে। এ বছর আমরা অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সুযোগেও বৈঠক করবো এবং বন্ধুত্বপূর্ণ বিনিময় করবো।

সি চিন পিং উল্লেখ করেন, দু'দেশের যৌথ চেষ্টায় রাজনৈতিক সম্পর্কের সুবিধাজনক দিক থেকে অব্যাহত সুফল পাওয়া যাচ্ছে। দু'দেশের উচিত, ঐতিহ্যিক মৈত্রী সুসংবদ্ধ করা, সার্বিক সহযোগিতা জোরদার করা, দু'দেশের সার্বিক কৌশলগত অংশীদারিত্বের সম্পর্ক উন্নয়ন ত্বরান্বিত করা ও দু'দেশের জনগণের জন্য কল্যাণ সৃষ্টি করা। বৈঠকের ফলাফল সম্বন্ধে চীনা প্রেসিডেন্ট সি বলেন,

আমি এবং প্রেসিডেন্ট পুতিন একমত হয়েছি যে, চলতি বছর দু'দেশের সম্পর্ক সক্রিয়ভাবে উন্নত হচ্ছে এবং আরো উচ্চ মানের দ্রুত-উন্নয়নের পথে প্রবেশ করেছে। আমরা পরস্পরের নিরাপত্তা রক্ষা এবং স্বার্থ উন্নয়নকে দৃঢ় সমর্থন দেই।

সি চিন পিং জোর দিয়ে বলেন, চীন ও রাশিয়ার উচিত 'এক অঞ্চল, এক পথ' এবং ইউরোপ ও এশিয়ার অর্থনীতি লিগের সহযোগিতা সম্প্রসারণ করা। পাশাপাশি জ্বালানি, কৃষি, বিজ্ঞান, উদ্ভাবন ও অর্থসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহযোগিতা জোরদার করা এবং আরো ব্যাপক সহযোগিতা চালানো।

সি চিন পিং আরো বলেন, পরস্পরের বড় আকারের অনুষ্ঠান আয়োজন করা দুই দেশের ভালো রীতি। পূর্বাঞ্চলীয় ফোরাম প্রেসিডেন্ট পুতিনের উদ্যোগে আয়োজিত হয়েছে। তা ইতোমধ্যে বিভিন্ন পক্ষের আঞ্চলিক সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করার গুরুত্বপূর্ণ মঞ্চে পরিণত হয়েছে। তিনি বিশ্বাস করেন, এবারের ফোরাম চীন ও রাশিয়ার সহযোগিতা সম্প্রসারণে নতুন সুযোগ সৃষ্টি করবে।

পুতিন প্রেসিডেন্ট সিকে ফোরামে অংশ নেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আমি এবং প্রেসিডেন্ট সি'র ঘনিষ্ঠ বিনিময় দু'দেশের সুসম্পর্কের প্রতিফলন। তিনি বলেন,

আমরা বৈঠক করেছি, দ্বিপক্ষীয় ও আন্তর্জাতিকসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি, সার্বিক কৌশলগত অংশীদারিত্বের সম্পর্ক উন্নয়নের পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছি। আমি বিশ্বাস করি, ফোরাম চলাকালে আয়োজিত ধারাবাহিক বিনিময় দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক এবং দু'দেশের জনগণের মৈত্রীর জন্য সহায়ক হবে।

পুতিন বলেন, রাশিয়া ও চীনের উচিত অব্যাহতভাবে পুঁজি বিনিয়োগ, জ্বালানি, মহাকাশ, অর্থ, ই-কমার্সসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহযোগিতা জোরদার করা এবং মানবিক বিনিময় ত্বরান্বিত করা। দু'দেশের উচিত্, আন্তর্জাতিক ব্যাপারে সমন্বয় ও সহযোগিতা জোরদার করা, দৃঢ়ভাবে একতরফা নীতির বিরোধিতা করা, ন্যায়সঙ্গত ও যুক্তিযুক্ত আন্তর্জাতিক শৃঙ্খলা রক্ষা করা এবং অভিন্ন উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি বাস্তবায়ন করা।

বৈঠকে দু'নেতা অভিন্ন স্বার্থসংশ্লিষ্ট আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক বিষয় নিয়ে গভীরভাবে মতবিনিময় করেছেন।

(শুয়েই/তৌহিদ)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040