Web bengali.cri.cn   
চীনের 'উদ্ভাবননির্ভর উন্নয়নকৌশল' ফলপ্রসূ হয়েছে
  2018-07-11 16:13:56  cri
জুলাই ১১: গতকাল মঙ্গলবার বিশ্ব মেধাস্বত্ব সংস্থার 'গ্লোবাল উদ্ভাবনী সূচক প্রতিবেদন ২০১৮' প্রকাশিত হয়। এতে চীনের অবস্থান উন্নত হয়েছে। চীন গত বছরের ২২ নম্বর থেকে চলতি বছর ১৭ নম্বর স্থানে উন্নীত হয়েছে। প্রতিবেদনে প্রকাশিত তালিকায় প্রথম ২০টি দেশের মধ্যে একমাত্র মধ্যম আয়ের দেশ হচ্ছে চীন। চীনের র‍্যাংকিং উন্নয়নে 'উদ্ভাবননির্ভর উন্নয়নকৌশলে'র সফলতা ফুটে উঠেছে। বিস্তারিত শুনবেন আজকের সংবাদ পর্যালোচনায়।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে চীনের উদ্ভাবনী সূচকের র‍্যাংকিং স্থিতিশীলভাবে উন্নত হচ্ছে। বিশ্ব মেধাস্বত্ব সংস্থার মহাপরিচালক ফ্রান্সিস গুরুই সম্প্রতি সিআরআই'কে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে বলেন, নবায়ন ও উদ্ভাবনে চীন উচ্চ পর্যায়ের গুরুত্ব দিয়েছে। এ কারণে গ্লোবাল উদ্ভাবনী সূচকের র‍্যাংকিংয়ে চীনের স্পষ্ট উন্নতি দেখা যায়। বিশ্বের সামনে 'উদ্ভাবননির্ভর উন্নয়নকৌশল' পেশ করেছে চীন। এ কৌশল অনুসারে চীনের অর্থনৈতিক উন্নয়নের মৌলিক স্থানে রয়েছে উদ্ভাবন। উদ্ভাবনী কৌশল নিয়ে একটি ভালো পরিকল্পনা রয়েছে এবং তার কার্যকর বাস্তবায়ন করছে চীন। তা ছাড়া গবেষণা ও উন্নয়ন এবং পেটেন্ট আবেদনের সংখ্যাসহ বিভিন্ন সূচকের ক্ষেত্রেও চীনের স্পষ্ট উন্নয়ন হয়েছে।

গুরুই বলেন, "আমি মনে করি যে, 'উদ্ভাবননির্ভর উন্নয়নকৌশল' চীনের অর্থনৈতিক উন্নয়নকৌশলের কেন্দ্রীয় বিষয় হিসেবে নির্ধারণ করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি সিদ্ধান্ত। এটি চীনের সাফল্যের একটি মূল কারণ।"

গুরুই আরো বলেন, চীনের অর্থনীতি একটি পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। স্বল্প মূল্যের প্রক্রিয়াকরণ ও উত্পাদন থেকে উচ্চ মূল্যের পণ্য বা 'উচ্চ মূল্যযুক্ত জ্ঞান অর্থনীতি'তে রূপান্তরিত হচ্ছে। তিনি চীনকে অব্যাহতভাবে উন্নয়ননির্ভর উন্নয়নের পথে চলার পরামর্শ দেন।

চীনের মেধাস্বত্ব রক্ষার ব্যাপারে কোনো দেশের সমালোচনা নিয়ে গুরুই বলেন, মেধা সম্পত্তি সুরক্ষার ক্ষেত্রে চীন উচ্চ স্কোর পেতে পারে। ১৯৮৪ সালে প্রথম ' পেটেন্ট আইন' জারি করে চীন। বিগত ৪০ বছরে চীন ওয়ার্ল্ড ক্লাস মেধা সম্পত্তি ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করেছে।

তিনি বলেন, 'সুদূরপ্রসারী দৃষ্টিতে দেখলে দেখা যায় চীনের কর্মক্ষমতা খুব ভালো। চীনের শিল্পপ্রতিষ্ঠানের সাফল্য থেকে আমরা জানতে পারি যে, আন্তর্জাতিক পেটেন্ট অ্যাপ্লিকেশনের দ্বিতীয় বৃহত্তম উৎস দেশ চীন। চীনও বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পত্তির একটি গুরুত্বপূর্ণ দেশ। সেজন্য নিজস্ব বাজার বা আন্তর্জাতিক বাজারে, চীন বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পত্তি রক্ষায় অনেক গুরুত্ব দেয়।"

জাতিসংঘের জেনিভা কার্যালয়ে এবং সুইজারল্যান্ডসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থায় চীনের স্থায়ী প্রতিনিধি, রাষ্ট্রদূত ইয়ু চিয়ে হুয়া সিআরআইকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে বলেন, গত ৪০ বছরে চীনের দ্রুত উন্নয়ন হয়েছে। গ্লোবাল উদ্ভাবনী সূচকে চীনেরও ইতিবাচক অগ্রগতি হয়েছে। এতে দেখা যায় যে উদ্ভাবনের মাধ্যমে উচ্চ মানের উন্নতি অর্জন করেছে চীন।

ইয়ুন বলেন,

"চীনের উদ্ভাবনী ক্ষমতা সম্পূর্ণরূপে চীনের উচ্চ মানের উন্নয়নে সমর্থন দেয়। আমাদের উচিত অব্যাহত উদ্ভাবননির্ভর উন্নয়নকৌশল মেনে নেওয়া, মেধাস্বত্ব সুরক্ষা জোরদার করা, অব্যাহতভাবে আন্তর্জাতিক প্রযুক্তিগত সহযোগিতা চালানো। যদি কোনো দেশ বা ব্যক্তি প্রযুক্তিগত একচেটিয়া দাবি করে ও চীনের উন্নয়নে বাধা দিতে চায়, তাহলে তাদের জয়ী হতে দেওয়া যাবে না।"

(জিনিয়া/তৌহিদ/লিলি)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040