Web bengali.cri.cn   
চীনা ক্লাসিক নাটক 'চা হাউস'-এর ৬০তম বার্ষিকী
  2018-06-26 14:41:34  cri

সপ্তম 'ভার্সেইলেস রয়েল ক্রস-কান্ট্রি রান' (Versailles Royal cross-country run) ১৭ জুন ভার্সেইলেসে অনুষ্ঠিত হয়।

'ভার্সেইলেস রয়েল ক্রস-কান্ট্রি রান' হলো একটি দৌড় প্রতিযোগিতা। প্রতিযোগিতাটি প্যারিস ও এর কাছাকাছি অঞ্চলে বেশ জনপ্রিয়। বিভিন্ন বয়সের মানুষ এ প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। এতে 'রয়্যাল রান', 'রাজকুমারী রান', 'নাইট (knight) রান'সহ বিভিন্ন দল থাকে। প্রতি বছর অন্তত ২০ হাজার মানুষ এতে সাইন আপ করে। চলতি বছর অংশগ্রহণকারী সংখ্যা ৫০ হাজার ছাড়িয়েছে। উল্লেখ্য, প্যারিসে চীনের কার্যালয় এবং এয়ার চায়নার প্যারিস শাখা কোম্পানি হলো চলতি বছরের 'ভার্সেইলেস রয়েল ক্রস-কান্ট্রি রান'-এর অফিসিয়াল সহযোগী অংশীদার।

প্রতি বছর চীনের জাতীয় থিয়েটারের 'আন্তর্জাতিক নাটকের মৌসুম' অনুষ্ঠিত হয়। এ সময়ে বিভিন্ন দেশের সেরা নাটকগুলো জাতীয় থিয়েটারে পরিবেশন করা হয়। চলতি বছর ফ্রান্সের প্যারিসের উত্তর থিয়েটার দলের বিখ্যাত মিলনান্তক নাটক 'Monsieur de Pourceaugnac' ১৬ জুন বেইজিংয়ে প্রদর্শিত হয়।

১৬৬৯ সালে ৬ অক্টোবর, মলইয়ারের (Moliere) থিয়েটার দল শ্যাম্পু কাসলে 'রাজা-এর বিনোদন' অনুষ্ঠানের জন্য একটি নতুন ব্যালে কমেডি তৈরি করেন। ফরাসি ইতালিয়ান সংগীত শিল্পী জিন-ব্যাপটিস্ট লুলি এ নাটকের জন্য গান রচনা করেন। এ নাটকের নাম হলো "Monsieur de Pourceaugnac"(ইংরেজি নাম: de Purcerjak)। এ নাটকের প্রধান ঘটনা হলো, জনাব দ্য পুসেজ্যাক (de Purcerjak) প্যারিস এসে মিস জুলিকে বিয়ে করেন। কিন্তু মিস জুলির একজন গোপন প্রেমিকা আছে। সে বিভিন্ন উপায়ে এই বিয়ে ভেঙ্গে দিতে চায়।

২০১৫ সালে, পরিচালক হার্ভিউ লেগর এবং শিল্প পরিচালক উইলিয়াম ক্রিসির সহযোগিতায় আবার এ নাটকটি মঞ্চস্থ হয়।

এবারে বেইজিংয়ে পরিবেশিত নাটকের মিউজিকাল পারফরম্যান্স গ্রুপ হলো ফ্রান্সের প্রসপারস শিল্প প্রাচীন অর্কেস্ট্রা। উল্লেখ্য, এই অর্কেষ্ট্রায় ডাবল নেক ফ্লুট ( Double neck lute), বাস ভায়োল ( bass viol) এবং হারসিকর্ড (harpsichord)-সহ তুলনামূলকভাবে বিরল বাদ্যযন্ত্র দেখা যায়।

২৩ জুন 'আর্ট সিল্ক ট্যুর' শিরোনামে ওয়ার্ল্ড ট্যুর প্রদর্শনী সিঙ্গাপুরের বিদেশি চীনা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিল্প ও সংস্কৃতি কেন্দ্রে উদ্বোধন করা হয়েছে। ৪৭টি দেশের ৯৪ জন বিখ্যাত চিত্রশিল্পী এ প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছেন। সিঙ্গাপুরে চীনের দূতাবাসের সাংস্কৃতিক কাউন্সিলর ছুয়ে সিয়াও হুয়া উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

সিঙ্গাপুর হলো চীনের 'সামুদ্রিক রেশম পথের' একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থান। তাই 'আর্ট সিল্ক ট্যুর'র ওয়ার্ল্ড ট্যুর প্রদর্শনীর প্রথম কেন্দ্র এটি।

উল্লেখ্য, 'আর্ট সিল্ক ট্যুর'র বিশ্বব্যাপী প্রদর্শনীর প্রথম প্রদর্শনী বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরপর যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জাপান, অস্ট্রেলিয়া, থাইল্যান্ডসহ বিভিন্ন দেশে এটি অনুষ্ঠিত হবে।

ভারতের উত্তরাখান্ড রাজ্যের রাজধানী দেরাদুনে ২১ জুন চতুর্থ বিশ্ব ইয়োগা দিবসের উদযাপনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে অংশ নেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

অনুষ্ঠানে দেওয়া এক ভাষণে মোদি বলেন, ইয়োগা যেমন ক্ল্যাসিক্যাল তেমনি আধুনিক এবং এখনও তা উন্নত হচ্ছে। এমন একটি সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের জন্য ভারতের জনগণের গর্ব করা উচিত্। এর আগে নিজের সামাজিক যোগাযোগের অ্যাকাউন্টে ইয়োগার বিভিন্ন ছবি পোস্ট করেন মোদি। তিনি আশা করেন, মানুষ ইয়োগাকে বিনোদনের পাশাপাশি জীবনের একটি অংশ বলে মনে করবে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ১১ ডিসেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে এক প্রস্তাব গৃহীত হয়। এতে প্রতি বছরের ২১ জুনকে বিশ্ব ইয়োগা দিবস হিসেবে নির্ধারণ করা হয়।

জাতিসংঘের মহাকাশ অনুসন্ধান এবং এর শান্তিপূর্ণ ব্যবহারবিষয়ক সম্মেলনের ৫০তম বার্ষিকী উপলক্ষ্যে ২০ জুন ভিয়েনায় একটি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনের দলিলে চীনের একটি প্রস্তাব অন্তর্ভুক্ত করা হয়। প্রস্তাবটি হলো শান্তিপূর্ণভাবে মহাকাশ ব্যবহারের ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক সহযোগিতা জোরদার করা এবং অভিন্ন লক্ষ্যের কমিউনিটি বাস্তবায়নের জন্য মানবজাতির স্বার্থ ও কল্যাণ অনুসন্ধান করা।

তিন বছর ধরে দলিলটি প্রস্তুত করা হয় এবং কয়েক দফা আলোচনার পর তা পাশ হয়। দলিলটি জাতিসংঘের প্রতিটি সদস্যের অনুমোদনের পর সংস্থার ৭৩তম সাধারণ পরিষদে উত্থাপন করা হয়।

ভিয়েনায় জাতিসংঘ ও অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থায় নিযুক্ত চীনের স্থায়ী প্রতিনিধি এদিন এ সম্মেলনে বলেন, মহাকাশবিষয়ক অভিন্ন লক্ষ্যের কমিউনিটির ধারণা যেমন মহাকাশের পরিবেশ সংরক্ষণ এবং মহাকাশ তত্পরতা জোরদার ও সামাজিক অর্থনীতির টেকসই উন্নয়নের আধুনিক চাহিদার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ, তেমনি তা আন্তর্জাতিক সমাজের অভিন্ন দাবি।

চীনা ক্লাসিক নাটক 'চা হাউস'-এর ৬০তম বার্ষিকী উপলক্ষ্যে, এ নাটকের ৭০০তম পরিবেশনা বেইজিংয়ের ক্যাপিটাল থিয়েটারে মঞ্চস্থ হয়।

প্রায় প্রতিবার 'চা হাউস' নাটকটি মঞ্চস্থ হলে সব টিকিট শেষ হয়ে যায়!

চীনের বিখ্যাত লেখক লাও শে ১৯৫৬ সালে এ নাটকটি লিখেন। নাটকটিতে মোট ৩টি পর্ব রয়েছে। এই নাটকে নয়াচীন প্রতিষ্ঠার আগে সামাজিক পরিবর্তনগুলো দেখানো হয়।

গত ১৬ জুন 'চা হাউস' ৭০০তম বারের মতো মঞ্চস্থ করা হয়। ১৯৫৮ সালে নাটকটি প্রথম পরিবেশিত হয়। এরপর থেকে ১৬ জুন পর্যন্ত নাটমহলের বিভিন্ন প্রজন্মের অভিনেতা-অভিনেত্রী এতে পরিবেশনা করেছেন। এর মধ্যে কোনো কোনো অভিনেতা ৩৭৪বারের মত 'চা হাউস'-এ অংশগ্রহণ করেন! তারা আশা করেন, এত ক্লাসিকাল একটি নাটকে আরো বেশি নতুন প্রজন্মের শিল্পীরা পার্ফম করবে।

প্রিয় শ্রোতা, আজকের অনুষ্ঠান আপনাদের কেমন লাগলো? আপনারা যদি 'সাহিত্য ও সংস্কৃতি' বিষয়ক কোনো কিছু জানতে বা আলোচনা করতে চান, তাহলে আমাকে চিঠি লিখবেন বা ই-মেইল করবেন। আপনাদের কাছ থেকে চমত্কার পরামর্শ আশা করছি। আর আপনাদের জানিয়ে রাখি, আমার ইমেইল ঠিকানা হলো, hawaiicoffee@163.com

চিঠিতে প্রথমে লিখবেন, 'সাহিত্য ও সংস্কৃতি' অনুষ্ঠানের 'প্রস্তাব বা মতামত'। আপনাদের চিঠির অপেক্ষায় রইলাম।

বন্ধুরা, আজকের অনুষ্ঠান এখানেই শেষ করছি। শোনার জন্য অনেক ধন্যবাদ। আগামী সপ্তাহে একই দিন, একই সময় আপনাদের সঙ্গে আবারো কথা হবে। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। চাইচিয়ান।

(জিনিয়া/তৌহিদ)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040