Web bengali.cri.cn   
সুরের ধারায়--চীনা গায়ক ইয়াং চেং লিন
  2018-03-29 14:25:01  cri

 



আজকের অনুষ্ঠানে চীনের তাইওয়ানের একজন গায়ক, অভিনেত্রী ও উপস্থাপকের সঙ্গে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেবো। তার নাম ইয়াং ছেং লিন। ১৫ বছর বয়সে ইয়াং ছেং লিন একটি জনপ্রিয় টিভি সিরিজে অভিনয় করেন। এর পরের বছর তিনি সংগীত দলের সদস্য হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। এরপর তিনি বিভিন্ন কাজ করে সুনাম অর্জন করেন। বর্তমানে তিনি চীনের বিখ্যাত শিল্পী। তবে, গায়ক হিসেবেই ইয়াং ছেং লিন সবার কাছে বেশি পরিচিত।


 

ইয়াং ছেং লিন ১৯৮৪ সালে চীনের তাইওয়ান প্রদেশের তাইপেই শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তবে তার বাবা-মা কুয়াংতোং প্রদেশের লোক। খুব ছোটবেলা থেকেই তিনি একজন 'স্টার' হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন। এজন্য বিভিন্ন চেষ্টাও করেন তিনি। মাত্র চার বছর বয়সে তিনি নাচ শেখা শুরু করেন। স্কুলে পড়ার সময় ইয়াং ছেং লিন বিভিন্ন ধরনের সংগীত প্রতিযোগিতা ও টিভি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। এতে তিনি গায়ক হিসেবে পরিচিত হওয়ার আগেই তাইওয়ানে পরিচিত হয়ে ওঠেন।


১৯৯৯ সালে ইয়াং ছেন লিন তাইওয়ানের বেশ জনপ্রিয় একটি টিভি সিরিজে অভিনয় করেন। এর মধ্য দিয়ে তার অভিনয় জীবনের শুরু হয়। এ সময়ই তিনি পরিচিতি লাভ করেন। ২০০০ সালে ইয়াং ছেং লিন অন্য তিন জনের সঙ্গে সংগীতদল প্রতিষ্ঠা করেন। এখানে তিনি প্রথম অ্যালবামও প্রকাশ করেন। তবে দু'বছর পর এই দল ভেঙ্গে যায়। এরপর তিনি গায়ক হিসেবে খ্যাতি লাভ করেন।



২০০৪ সাল ইয়াং ছেং লিন কয়েকটি টিভি সিরিজের প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন এবং একটি টিভি সিরিজের জন্য গান পরিবেশন করেন। এই গান তার প্রথম আনুষ্ঠানিক গান হিসেবে বেশ জনপ্রিয় হয়। পরের বছর ইয়াং ছেং লিন তার প্রথম অ্যালবাম প্রকাশ করেন। অ্যালবামে তার প্রতিনিধিত্বকারী গানটি স্থান পায়। গানটিতে এক তরুণী মেয়ের না-বলা কথা প্রকাশিত হয়েছে।


২০০৬, ২০০৭, ২০০৮ সালে ইয়াং ছেং লিন তার দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ অ্যালবাম প্রকাশ করেন এবং সবগুলো বেশ জনপ্রিয় হয়। তার গানগুলো দ্রুত তরুণদের মধ্যে জনপ্রিয়তা পায়। শুধু তাইওয়ানেই নয়, চীনের মূলভূভাগেও তা প্রশংসা কুড়ায়। তার এ সময়ের অধিকাংশ গানই প্রেমের গান। তার গানে মেয়েদের দৃষ্টি ও বিশেষ দৃষ্টিকোণ থেকে প্রেমের স্বাদ ও মেজাজ ফুটে ওঠে। তার গানে একই আবেদন অনুভব করা যায়, নিজের ভালোবাসার কথাও মনে পড়ে।


পরের কয়েকটি বছর ইয়াং ছেং লিন অনেকগুলো টিভি সিরিজ ও চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন ও বেশ কিছু অ্যালবামও প্রকাশ করেন। এসব কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে আরো পুরস্কার পান তিনি এবং বেশি মানুষের সঙ্গে পরিচিত হন।



২০১৬ সালে ইয়াং ছেং লিন তার দশম অ্যালবাম 'বার্ধক্যরেখা' প্রকাশ করেন। এই অ্যালবাম তার নিজের সংগীত জীবনের একটি সংক্ষিপ্ত বিবরণ। গাছ বড় হওয়ার সময় তার গায়ে ছাপ পড়ে। সময়ের কারণে বয়স যেমন বাড়ে, তেমনি আরো অনেক পরিবর্তন হয়। জীবনে আমরা বহুবার বিমর্ষ হয়েছি। ব্যর্থতা ও ব্যথার অভিজ্ঞতা আমাদের রয়েছে। আমাদের 'জীবন আর চলে না' এমন ভাবনা মাথায় আসে। তবে বাস্তবতা হলো, আমাদের জীবন এখন ভালো চলছে। যা চলে গেছে তা আর ফিরে আসে না। আর অতীতের পথ বেয়ে আমরা বর্তমান সময়ে এসেছি। যে কাজ আমাদের করতে হয়, তা মেনে নিয়ে ভালোভাবে জীবন গড়বো।


শ্রোতাবন্ধুরা, আশা করি আমাদের অনুষ্ঠানে প্রচারিত গানগুলো আপনাদের ভালো লেগেছে। এই অনুষ্ঠান সম্পর্কে আপনাদের কোনো মতামত থাকলে অথবা বিশেষ কোনো গান শুনতে চাইলে আমাকে সরাসরি ই-মেইল করুন। আমার ই-মেইল ঠিকানা: chengmin@cri.com.cn । এখন বিদায় নিচ্ছি। সবাই ভালো থাকুন, সুন্দর থাকুন ও সুস্থ থাকুন। আবার কথা হবে।

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040