Web bengali.cri.cn   
সহজ চীনা ভাষা- সুখী
  2018-03-16 18:27:21  cri
এখন চীনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও তাত্পর্যপূর্ণ বার্ষিক দুই অধিবেশন চলছে। চীনের কমিউনিস্ট পার্টি বা সিপিসি'র ত্রয়োদশ গণরাজনৈতিক পরামর্শ সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন এবং ত্রয়োদশ গণকংগ্রেসের প্রথম অধিবেশন বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রতি বছর এই দুই অধিবেশনে চীনের রাজনীতি, অর্থনীতি, সমাজসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। অবশ্যই এটি জনজীবনে গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ফেলে। আর এই দুই অধিবেশনে জনগণের স্বার্থকে শীর্ষস্থানে রাখা হয়। তাই সম্মেলনে জনগণের জীবনযাপন মান উন্নয়ন সম্পর্কিত অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত ও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। এখানে উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো, চলতি বছর সরকারি কর্মপ্রতিবেদনে বার বার 'জনগণের সুখানুভূতি' জোরদারের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। তাই আজকের অনুষ্ঠানে আমরা 'সুখী' শব্দের সঙ্গে সম্পর্কিত কিছু শব্দ শেখাবো।

পরমানন্দ 幸福xìng fú

সুখী জীবন:幸福的生活xìng fú de shēng huó

খুশি开心kāi xīn

 

তোমাকে দেখে খুব খুশি হলাম।

见到你很开心

jiàn dào nǐ hěn kāi xīn

 

আনন্দ 高兴 gāo xìng

 

তোমার সঙ্গে পরিচিত হয়ে খুব আনন্দিত হলাম।

很高兴认识你

hěn gāo xìng rèn shí nǐ

 

সন্তোষ 满意 mǎn yì

 

আমি খুব সন্তুষ্ট।我很满意wǒ hěn mǎn yì

 

আজকের হট শব্দ:

চা 茶 chá

চীনের মানুষ চার হাজার বছরের বেশি সময় ধরে চা পান করছে।চা চীনাদের দৈনন্দিন জীবনের অন্যতম অপরিহার্য পানীয়। চীনে একটি কথা প্রচলিত রয়েছে, প্রতিটি পরিবারে জীবনের সাতটি প্রয়োজনীয় জিনিস হলো জ্বালানি কাঠ, চাউল, ভোজ্য তেল, লবণ, সয়াসস, ভিনিগার ও চা। এই কথা থেকে চীনাদের জীবনে চায়ের গুরুত্ব বোঝা যায়। মেহমান আসলে তাকে এক কাপ সুগন্ধি চা পরিবেশন করে চীনারা। চা পানের সঙ্গে সঙ্গে অতিথির সঙ্গে কথা বলতে পছন্দ করে চীনের মানুষ।

চীনাদের চা পানের ইতিহাস দীর্ঘ দিনের। ২৮০ খ্রিষ্টাব্দের আগে দক্ষিণ চীনে উ নামে একটি ক্ষুদ্র রাজ্য ছিল। এই উ রাজ্যের রাজা মন্ত্রীদের সঙ্গে ভোজে অংশ নেওয়ার সময় মন্ত্রীরা বেশি বেশি মদ পান করে নেশা করত। তাদের মধ্যে উয়ে চাও নামে এক মন্ত্রী ছিলেন। তিনি মদ পান করতে পারতেন না। তাই রাজা তাকে মদের বদলে চা পানের অনুমতি দেন। এই সময় থেকে চীনের অনেক লোক চা দিয়ে মেহমানকে স্বাগত জানানো শুরু করেন। থাং রাজবংশের সময় চা পান করা চীনাদের একটি অভ্যাসে পরিণত হয়। জানা গেছে, চীনাদের এই অভ্যাস বৌদ্ধধর্মের সঙ্গেও সম্পর্কিত। মন্দিরে সন্ন্যাসীরা ধ্যান করতেন। এ সময় তাদের ঘুম-ঘুম ভাব দূর করার জন্য কড়া চা পরিবেশন করা হত। থাং রাজবংশের আমলে ধনী পরিবারে চা বানানো, চা পান করা ও বই পড়ার আলাদা ঘর থাকত।

তবে চীনের বিভিন্ন স্থানে চা পানের রীতি এক নয়। বেইজিংয়ের মেহমানরা দাঁড়িয়ে দু'হাত বাড়িয়ে দিয়ে চায়ের কাপ নেন এবং ধন্যবাদ জানান। দক্ষিণ চীনের কুয়াংতুং প্রদেশে মেজবানের কাছ থেকে চায়ের কাপ নেওয়ার পর মেহমানরা সাধারণত ডান হাতের আঙুল দিয়ে টেবিলে তিন বার টোকা দিয়ে ধন্যবাদ জানান। চীনের কিছু অঞ্চলে অতিথিরা কাপের চা শেষ না করে কাপের ভিতর কিছু চায়ের পানি অবশিষ্ট থাকলে তার কাপে ফের পানি দেওয়া হয়। অতিথিরা কাপের চা শেষ করলে, মেজবানরা বুঝতে পারেন যে তিনি আর চা পান করবেন না।

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040