Web bengali.cri.cn   
গাড়ি শিল্পে চীনের অগ্রণী ও শীর্ষ ব্র্যান্ড:কেরি
  2018-03-14 15:03:10  cri



সাম্প্রতিক কয়েক বছরে চীনের ব্র্যান্ড দ্রুত উন্নয়ন হচ্ছে। তার মান ও প্রভাব শক্তি দিন দিন বাড়ছে এবং দেশ বিদেশের ভোক্তাদের স্বীকৃতি পেয়েছে। চেরি, গাড়ি শিল্পে চীনের অগ্রণী ও শীর্ষ ব্র্যান্ড হিসেবে সৃজনশীলতা ও গবেষণার ওপর গুরুত্ব দেয়। আন্তর্জাতিক বাজার এবং নতুন ধরনের জ্বালানি চালিত গাড়ি ও বুদ্ধিমান উত্পাদন ক্ষেত্রে প্রসারিত করার জন্য হ্য নান প্রদেশের খাই ফেং শহরে প্রতিষ্ঠিত হয় খাই ফেং কেরি গাড়ি কোম্পানি।

কেরি হল চেরির অধীনস্থ কৌশলগত ব্র্যান্ডের অন্যতম। ২০১০ সালে এ প্রকল্প হ্য নান প্রদেশের খাই ফেং শহরে চালু হয়। এর ব্যবসা হল বিশেষ গাড়ির গবেষণা ও উন্নয়ন, বিশেষায়িত বিক্রয়,গাড়ির খুচরা যন্ত্রাংশের গবেষণা ও উত্পাদন ইত্যাদি। এ প্রকল্পের মোট বিনিয়োগ পরিমাণ প্রায় ১ হাজার কোটি ইউয়ান এবং আন্তর্জাতিক মানদন্ডের উত্পাদন লাইনও আছে। চেরি কোম্পানির সদর দপ্তার আন হুই প্রদেশের উ হু শহরে এবং তা লিয়ান, কুই ইয়াং, এরডসসহ নানা শহরে গাড়ি উত্পাদন কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করেছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে চেরি বৃহত্তম বিনিয়োগে প্রতিষ্ঠিত কোম্পানির অন্যতম হিসেবে কেরি কোম্পানির অবস্থান খুব গুরুত্বপূর্ণ। কারণ হ্য নান প্রদেশ ঠিক চীনের মাঝামাঝি অঞ্চলে অবস্থিত একটি প্রদেশ।

কেরি কোম্পানির একজন দায়িত্বশীল ব্যাক্তি জানিয়েছেন, খাই ফেং শহর এবং সারা হ্য নান প্রদেশ কেন্দ্রীয় চীনের একটি পরিবহণ যাতায়াতের সংযোগস্থল বলে আমাদের পণ্য সহজে সারা চীন এমনকি বিশ্বে পাঠানো যায় এবং পরিবহণ ব্যয় অনেক সাশ্রয় হয়। তাছাড়া, কেরি'র প্রধান ভোক্তা বাজার চীনের তৃতীয় স্তরের শহর ও গ্রামীণ অঞ্চল। কোম্পানিটি প্রধানত ট্রাক, হালকা ট্রাক, ভ্যান উত্পাদন করে। হ্য নান একটি কৃষিপ্রধান প্রদেশ এবং তার আশেপাশে শান তুং, শ্যান সি প্রদেশের তৃতীয় স্তরের শহর বেশি। সবকিছু বিবেচনা করে খাই ফেং শহরে কারখানা চালু করে কোম্পানি।

তাছাড়া খাই ফেং হল হ্য নান প্রদেশের তিনটি অবাধবাণিজ্য পরীক্ষামূলক অঞ্চলের অন্যতম। খাই ফেং অবাধবাণিজ্য পরীক্ষামূলক অঞ্চল চালু হয় ২০১৭ সালের এপ্রিল মাসে। অবাধবাণিজ্য পরীক্ষামূলক অঞ্চল একদিকে খাই ফেং শহরের অর্থনীতির উন্নয়ন ভিত্তি তৈরি করে অন্য দিকে কোম্পানিগুলোর জন্য আন্তর্জাতিক ও সুবিধাজনক ব্যবস্থাপনা ও উত্পাদন পরিবেশ সৃষ্টি করে। কেরি অবশ্যই এ সুযোগ ধরে নিজের উন্নয়ন দ্রুততর করতে চায়।

কোম্পানির দায়িত্বশীল ব্যক্তি বলেন, তাঁরা অবাধবাণিজ্য পরীক্ষামূলক অঞ্চল চালু হবার আগে এসেছে খাই ফেংতে। তখন তাদের মূল উদ্দেশ্য ছিল খাই ফেং এর ভৌগোলিক সুবিধা ব্যবহার করে কোম্পানির লজিস্টিকস ব্যয় কমিয়ে আনা। এখন অবাধবাণিজ্য অঞ্চল তাদের জন্য আরও বেশি সুবিধা সৃষ্টি করেছে। যেমন এক অঞ্চল এক পথ সংশ্লিষ্ট দেশ এবং এশীয়, আফ্রিকা ও লাতিন আমেরিকার দেশে তাঁরা গাড়ি রপ্তানি করলে শুল্ক সুবিধা পেতে পারে।

জানা গেছে, মিনি বাস ও ট্রাক ছাড়া, কেরি নতুন ধরনের জ্বালানি চালিত গাড়ি, বৈদ্যুতিক গাড়িসহ ভবিষ্যত প্রবণতার ক্ষেত্র নিয়ে গবেষণা করছে। কেরিসহ চেরি কোম্পানির সব ব্র্যান্ড নিজের গবেষণা ও নকশা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে সহযোগিতা করে নতুন পণ্যের গবেষণায় বেশি অর্থ ও ব্যক্তি বিনিয়োগ করে।

এখন তাঁরা হ্য নান বিশ্ববিদ্যালয়,খাই ফেং বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে সহযোগিতা করছে। কোম্পানি ধারণা উত্থাপন করে এবং তারপর বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে এ ধারণা নিয়ে গবেষণা চালায়।

জ্বালানি সম্পদ সাশ্রয় ও দূষিত পদার্থের নির্গমন কমানো এবং দূষণ-বিহীন জ্বালানি নিয়ে কোম্পানি প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। যেমন তাদের কারখানার বিদ্যুত ফোটোভোলটাইক বিদ্যুৎ উৎপাদন থেকে আসে এবং কয়েকবার প্রযুক্তি সংস্কার করার পর উত্পাদন প্রক্রিয়ায় প্রায় শূন্য নির্গমন বাস্তবায়ন করা হয়েছে। কেরি কোম্পানি হ্য নান প্রদেশের প্রথম কোম্পানি যারা কারখানায় ফোটোভোলটাইক বিদ্যুৎ ব্যবহার করছে।

এখন সারা শিল্প পার্কের অর্ধেক বিদ্যুত চাহিদা পূরণ করে ফোটোভোলটাইক বিদ্যুৎ। পরে পার্কিং অঞ্চল, গাড়ির আসন ও বিশেষায়িত কারখানায় ফোটোভোলটাইক বিদ্যুৎ ব্যবহার করা হবে। আগামী বছর, ফোটোভোলটাইক বিদ্যুৎ অতিরিক্ত থাকলে তা সরাসরি জাতীয় গ্রিডকে দেবে। অন্য একটি কোম্পানির সঙ্গে সহযোগিতা করে সৌর প্যানেল তৈরি করে কেরি এবং বিদ্যুত্ ব্যবহারের খরচ বাজারের চেয়ে অনেক কমে রাখতে পেরেছে।

কোম্পানির নবায়ন ও নিজস্ব গবেষণা ছাড়া, কর্মীদেরকে প্রত্যেক পদক্ষেপ উন্নয়নসাধন করতে উত্সাহ দেয় কোম্পানি। নিয়মিতভাবে শ্রেষ্ঠ কর্মী নির্বাচন করে এবং তাদেরকে পুরস্কার দেয়। একজন কর্মীর ধারণা যদি কোম্পানি বেশী মুনাফা আনতে পারে তাহলে তাকে জীবনব্যাপী পুরস্কার ও মাসিক অতিরিক্ত বোনাস দেবে। এ ব্যবস্থার মাধ্যমে প্রযুক্তি ও গবেষণার নবায়নে কর্মীরা অংশগ্রহণে উত্সাহ পায়।

চেরির অধীনস্থ গাড়ির ব্র্যান্ড টানা ১৪ বছরে চীনা গাড়ি রপ্তানিতে প্রথম স্থান অর্জন করে এবং সাম্প্রতিক কয়েক বছরে এক অঞ্চল এক পথ সংশ্লিষ্ট দেশে গাড়ি রপ্তানি করছে কোম্পানিটি। লাতিন আমেরিকার ব্রাজিলে দুটি কারখানা এবং ফোর এস দোকান খুলেছে তাঁরা। আর্জেন্টিনা, চিলি, ইকুয়েডর, ভেনিজুয়েলাসহ নানা দেশে তাদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা ক্ষমতা দিন দিন বাড়ছে। বিদেশে চীনা ব্র্যান্ডের গাড়ির প্রতিদ্বন্দ্বিতা ক্ষমতা ও প্রভাবও দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040