Web bengali.cri.cn   
পান্ডার সঙ্গে বসন্ত উত্সব উদযাপন
  2018-02-28 15:20:43  cri

 



১৯ ফেব্রুয়ারি, বসন্ত উত্সবের চতুর্থ দিন, শাং তুং প্রদেশের ওয়ে হাই শহরের লিউ কং দ্বীপের পান্ডা ভবনে বিশেষ একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করা হচ্ছে। শান তুং প্রদেশের ওয়ে হাই, লিয়াও ছেং ও ইয়ান থাইসহ নানা শহর থেকে আসা ৮টি পরিবার এসেছে লিউ কং দ্বীপ জাতীয় বন পার্কে। তাঁরা 'পান্ডার সঙ্গে বসন্ত উত্সব উদযাপন করা'নামে একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে এসেছেন এখানে। পান্ডা ভবনে এসে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করে চতুর পান্ডারা। দুটি পান্ডা যেন বুঝে যে বিশেষ অতিথি বাসায় এসেছে এবং চতুর আচরণের মাধ্যমে সবাইকে স্বাগত জানায়। পান্ডার 'বাবা', পালক ফাং ছেং চিয়া দুটি পান্ডার মৌলিক অবস্থা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, দুটি পান্ডা সি ছুয়ান পান্ডা সংরক্ষণ গবেষণালয় থেকে এসেছে।

একটি পান্ডার নাম জু লিং, ১০ বছর বয়সি জু লিং বড় বোন। তার ছোট ভাই নিং। নিং ৯ বছর বয়সি। জু লিং শুয়ে খাবার খেতে পছন্দ করে। নিং নিং তার বোনের চেয়ে প্রাণচঞ্চল। সে দাঁড়িয়ে খেতে পছন্দ করে এবং দু হাত দিয়ে দুটো খাবার নিয়ে খায়। বড় বোন শান্ত একজন মেয়ে। এক খাবার শেষ না হলে দ্বিতীয়টা নেবে না।

৮টি পরিবার পান্ডা পালকের সঙ্গে পান্ডার জন্য লাঞ্চ তৈরি করে। পান্ডার লাঞ্চ ভাপে তৈরি ভুট্টার ব্রেড। সবাই ব্যাকটেরিয়া রোধক পোশাক পরে প্রবেশ করে রান্নাঘরে। জানা গেছে, প্রতিদিন পান্ডা অনেক বেশি খায়। একটি পান্ডা এক দিনে ৪ বারের মতো ভাপে তৈরি ভুট্টার ব্রেড খায়। ভাপে তৈরি প্রতিটি ভুট্টার ব্রেড প্রায় ২০০-৩০০ গ্রাম। তারপর তাঁরা কয়েকবারের মতো গাজর ও আপেল খায়। আসলে তাদের মূল খাবার বাঁশ। প্রতিদিন একটি পান্ডা ২০-২৫ কেজি বাঁশ খায়!

বসন্ত উত্সবের সময় পান্ডা কোন বিশেষ খাবার খায় কিনা? পালক জানিয়েছেন

নববর্ষ উপলক্ষ্যে পান্ডার জন্য বিশেষ খাবার প্রস্তুত করি আমরা। আমরা কিছু আখ কিনেছি। পান্ডা বেশি মিষ্টি আখ খেতে পারে না তাই আমরা বসন্ত উত্সবের বিশেষ খাবার হিসেবে তাদেরকে অল্প আখ দেই।

পালক ফাং চিয়াং ছেং আরোও জানিয়েছেন, পান্ডার খাওয়া খুব ভাল লাগে। আপনি তাকে খাবার দেখালে পান্ডা আপনাকে অনুরণ করবে। তাছাড়া, পান্ডার জন্য গরমের চেয়ে শীতের আবহাওয়া ভাল তাই ওয়ে শহর তাদের জন্য উপযোগি একটি জায়গা। কারণ ওয়ে হাই একটি উপকূলীয় শহর। গ্রীষ্মকালে বেশী গরম না। উত্তর চীনে তুষার বেশি। পান্ডা শীত আবহাওয়া পছন্দ করে। তুষারে খেলা তাদের প্রিয়। গ্রীষ্মকালে তারা ছাড়া থাকে অথবা গাছের উপরে উঠে এবং বসে।

 

সব শিশুরা মনে দিয়ে পালকের কথা শুনেছে। ইয়ান থাই শহরের ১১ বছর বয়সি কাও তাই ওয়ে সাংবাদিককে জানিয়েছে

আমি মনে করি পান্ডা খুব সুন্দর এবং দুষ্টু একটি পশু। আমি এখন বুঝি কেন সবাই পান্ডা সংরক্ষণ করতে চায়।

পালকের নেতৃত্বে ৮টি পরিবার পান্ডাকে খাবার খাওয়ায় এবং পান্ডাকে নববর্ষের কার্ড লিখে।সবাই চায় অনুষ্ঠান যেন শেষ না হয়।

ওয়ে হাই শহরের মিঃ ইউয়ু বলেন, বসন্ত উত্সবের ছুটি সাধারণত বন্ধু বা আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে দেখা ও খাওয়া দাওয়া হয়। এ অনুষ্ঠানের তথ্য শুনে আমি ভাবছি শিশু নিয়ে অংশ নেওয়া উচিত্। একদিকে পশু সংরক্ষণে তাদের সচেতনতা বাড়বে অন্য দিকে মানুষের মধ্যে যে ভালবাসা বুঝতে পারবে।

অংশগ্রহণকারী পরিবার মনে করে ২০১৮ সালের বসন্ত উত্সব পান্ডার সঙ্গে উদযাপন করা খুব অর্থবহ একটি ব্যাপার। লিয়াও ছেং শহরের নাগরিক ছাং রান বলেন

এবারের অনুষ্ঠান আমার মনে গভীর ছাপ ফেলেছে। আমরা জানতে পেরেছি পান্ডা কী কী খেতে পছন্দ করে, তাদের খাবার কীভাবে তৈরি করা হয় এবং তাদের প্রিয় ফল কী, তাদের অভ্যাস কী ইত্যাদি। আশা করি পান্ডার সঙ্গে সুন্দর একটি বছরকে অভ্যর্থনা জানাতে পারব।

বিশেষ অতিথি ছাড়া, পান্ডা চু লিং ও নিং নিং প্রতি বসন্ত উত্সব তাদের বাবাদের সঙ্গে উদযাপন করে। এখন লিউ কং দ্বীপে তিনজন পান্ডা বাবা আছেন। বসন্ত উত্সবে তাঁরা ছুটি না নিয়ে আগের মতো ব্যস্ত ছিলেন। পান্ডার বাসা পরিষ্কার করা, বাঁশ ও অন্য খাবার দেয়া,পান্ডার আচরণ পর্যবেক্ষণ করা, পান্ডাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া এবং তাদের যত্ন নেয়া পান্ডা বাবার কাজ। পান্ডা বাবা ছাং ইউয়ু ওয়েন বলেন, চু লিং ও নিং নিংকে নিয়ে যেন তাদের পরিবার এবং তাদের সঙ্গে বসন্ত উত্সব উদযাপন করা খুব সাধারণ একটি ব্যাপার। তিনি বলেন

পান্ডা ও আমদের সম্পর্ক পরিবারের মতো। তাকে ডাকলে আমার কাছে আসে পান্ডা। আমাদের মধ্যে মন দিয়ে যোগাযোগ করি এবং পান্ডা বুদ্ধিমান একটি পশু। নিং নিং ও চু লিং নিজের নাম বুঝে। তারা ঠিক জানে আমি কাকে ডাকছি।

ছাং ইউয়ু ওয়েন আরও বলেন, পেশাদার এবং প্রযুক্তিগত কর্মী পান্ডার জন্য প্রয়োজন এবং পান্ডার সঙ্গে থাকলে মনে শান্তি পাওয়া যায়। এবার বসন্ত উত্সবের সময়ও পরিবারের বদলে পান্ডার সঙ্গে ছিলেন ছাং ইউয়ু ওয়েন। তিনি বলেন

বাড়িতে থাকলেও পান্ডার কথা মনে পড়ে। এখানে তাদেরকে দেখা এবং কিছু সময় কাটালে আমার মনে শান্তি পাই।

এখন অনেক পরিবার বসন্ত উত্সব সময়ে বাইরে ভ্রমণ করতে পছন্দ করে। এমন প্রক্ষাপটে উপহার দেয়া হয় 'পান্ডার সঙ্গে বসন্ত উত্সব উদযাপন করা' অনুষ্ঠানটি। এ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পর্যটকদের মধ্যে বিশেষ একটি বসন্ত উত্সবের স্মৃতি সৃষ্টি করা হয়। ১০০ জনের বেশি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী এবার অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের নাম তালিকাভুক্তি করে এবং অনুষ্ঠানটি ইন্টারনেটেও সরাসরি প্রচারিত হয় যা ১১২ হাজার পার্সন টাইমস লাইভ দেখা হয়েছে।

(শিশির/মহসীন)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040