Web bengali.cri.cn   
কুয়াংচৌতে 'ফরচুন' বিশ্বব্যাপী ফোরামে অভিনন্দনবার্তা পাঠিয়েছেন সি চিন পিং
  2017-12-07 14:56:59  cri
ডিসেম্বর ৭: ২০১৭ সালের 'ফরচুন' বিশ্বব্যাপী ফোরাম গতকাল (বুধবার) চীনের কুয়াংচৌতে শুরু হয়েছে। চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং ফোরামে অভিনন্দনবার্তা পাঠিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, কানাডা, সুইজারল্যান্ড, সুদান ও চীনের প্রতিনিধিরা সি চিন পিংয়ের বক্তব্যের প্রশংসা করেছেন। তারা মনে করেন, চীনের অব্যাহত উন্নয়ন সারা বিশ্বের জন্য সহায়ক। এসব দেশ চীনের সঙ্গে অর্থনৈতিক বিশ্বায়ন এগিয়ে নিতে আগ্রহী। আজকের অনুষ্ঠানে আমি ছাই ইউয়ে মুক্তা এ বিষয়ে আপনাদের কিছু কথা বলবো।

প্রেসিডেন্ট সি তাঁর বার্তায় বলেছেন, চীনের অর্থনীতি স্থায়ীভাবে উন্নত হচ্ছে এবং এর স্থিতিশীল উন্নয়নের ভিত্তি, পরিবেশ ও চালিকাশক্তি রয়েছে। এ সম্পর্কে চীনে নিযুক্ত কানাডার রাষ্ট্রদূত জন ম্যাক্‌কুলাম বলেন, বর্তমানে বিভিন্ন ক্ষেত্রে চীন অনেক এগিয়েছে। তাই চীনের সঙ্গে সহযোগিতা করতে চায় কানাডা। আমি মনে করি, দু'দেশের সহযোগিতা অন্যান্য বছরের চেয়ে আরো ঘনিষ্ঠ হয়েছে। আন্তর্জাতিক শৃঙ্খলা, অবাধ বাণিজ্য উন্নয়ন ও বিশ্বায়নের ক্ষেত্রে আমাদের একই ধারণা ও চিন্তা রয়েছে।

প্রেসিডেন্ট সি বলেন, চীন বিশ্বব্যাপী অংশীদারি সম্পর্ক উন্নয়ন করতে, বিভিন্ন দেশের সঙ্গে অভিন্ন স্বার্থ উন্নত করতে, বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সুবিধা জোরদার করতে এবং আরো উন্মুক্ত, ব্যাপক অভিন্ন স্বার্থ ও অভিন্ন কল্যাণের বৈশ্বিক অর্থনীতি উন্নয়ন করবে। বিশ্বখ্যাত জনসংযোগ কোম্পানি রুডার ফিন-এর এশিয়া শাখার চেয়ারম্যান জিন-মাইকেল ডুমোন্ট এ সম্পর্কে বলেন, বর্তমান বিশ্বে অনিশ্চয়তা অনেক বেড়েছে। বিশ্বায়নের মাধ্যমে বিভিন্ন পক্ষের অভিন্ন স্বার্থ বাস্তবায়িত হবে। আমি মনে করি, বিশ্বায়ন ব্যবস্থা উন্নত করা উচিত।

প্রেসিডেন্ট সি তাঁর বার্তায় আরো বলেছেন, চীনা কমিউনিস্ট পার্টির ঊনবিংশ জাতীয় কংগ্রেসের প্রতিনিধি সম্মেলনে নতুন যুগে চীনা বৈশিষ্ট্যময় সমাজতান্ত্রিক কার্যক্রম ও উন্নয়নের পরিকল্পনা নির্ধারিত হয়েছে। চীন দৃঢ়ভাবে জনগণকেন্দ্রিক উন্নয়নের ধারণায় অবিচল থাকবে, নতুন উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন ও আধুনিক অর্থনৈতিক ব্যবস্থা নির্মাণ করবে, সার্বিকভাবে সংস্কার ও সব ধরণের নবায়ন ধারণা বাড়াতে এবং আরো উচ্চ পর্যায়ের উন্মুক্ত অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও 'এক অঞ্চল, এক পথ' উদ্যোগ জোরদার করবে, যাতে সার্বিক উন্মুক্ত ব্যবস্থা গড়ে ওঠে।

সুইজারল্যান্ডের ডাকাডু কোম্পানির চেয়ারম্যান ও সিইও পিটার ওহনেমুস বলেন, প্রেসিডেন্ট সি'র কথায় আমি স্পষ্টভাবে চীনের ভবিষ্যত্ দেখতে পারি। আমি বিশ্বাস করি, চীনের ভবিষ্যত্ আরো সুন্দর হবে।

চীনের লাংছাও গোষ্ঠীর চেয়ারম্যান সু ফি রু বলেন, প্রেসিডেন্ট সি তাঁর বার্তায় বহুবার উন্মুক্তকরণের কথা বলেছেন। আমার মনে হয়, এতে কয়েকটি ধাপ রয়েছে। এক, চীনের উন্মুক্ত দরজা কখনো বন্ধ হবে না। চীন অব্যাহতভাবে বিদেশি অর্থ সংগ্রহ করবে। দুই, চীনা প্রতিষ্ঠানগুলোও বিদেশে বিনিয়োগ করবে। আমরা চীনের অভিজ্ঞতা সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দিতে চাই। আমরা অন্যান্য দেশকেও সহায়তা করতে ইচ্ছুক। আমরা একটি পারস্পরিক কল্যাণ ও স্বার্থের সম্পর্ক গড়ে তুলতে চাই।

কুয়াংচৌতে সুদানের জেনারেল কনসাল আদম ইউসুফ বলেন, চীনের অব্যাহত উন্নয়ন সারা বিশ্বের জন্য সহায়ক। চীনের 'এক অঞ্চল, এক পথ' উদ্যোগ বিশ্বের উন্নয়নের জন্য সহায়ক। এ পরিকল্পনা বিশেষ করে আফ্রিকার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আমরা প্রেসিডেন্ট সি'র বক্তব্যের প্রশংসা করি।

(ছাই/তৌহিদ)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040