Web bengali.cri.cn   
উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী প্রতিষ্ঠার ৪৯ তম বার্ষিকী উদযাপন
  2017-10-31 16:20:11  cri
৩১ অক্টোবর ২০১৭, মঙ্গলবার প্রচারিত

বন্ধুরা আপনারা শুনছেন চীন আন্তর্জাতিক বেতারের বাংলা অনুষ্ঠান। আমাদের নিয়মিত আয়োজন সাহিত্য ও সংস্কৃতি অনুষ্ঠানের দক্ষিণ এশিয়া অংশের কিছু খবরা খবর জানাব এবার। প্রথমেই বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের কিছু খবর।

শ্রোতা বন্ধুরা, আগামী ৯ থেকে ১১ নভেম্বর বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার বনানীস্থ আর্মি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে চলতি বছরের ঢাকা আন্তর্জাতিক লোকসংগীত উৎসব। এ বছরের উতসবে বাংলাদেশসহ ৮টি দেশের ১৪০ জন শিল্পী অংশ নিবেন।

রোববার সকালে স্থানীয় একটি হোটেলে আন্তর্জাতিক লোকসংগীত উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান আয়োজক কর্তৃপক্ষ সান কমিউনিকেশনস।

বন্ধুরা, তৃতীয়বারের মত অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এ আন্তর্জাতিক লোকসংগীত উৎসবে বাংলাদেশ ছাড়াও যোগ দিচ্ছে ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, ইরান, ব্রাজিল, তিব্বত ও মালির জনপ্রিয় শিল্পীরা।

জানা গেছে উৎসবে গান পরিবেশন করবেন বাংলাদেশের শাহজাহান মুন্সি, আরিফ দেওয়ান, ফকির শাহাবুদ্দিন, শাহনাজ বেলী, শাহ আলম সরকার, আলেয়া বেগম, লোক সঙ্গীতের ব্যান্ড বাউলা ও বাউলিয়ানা। ভারত থেকে অংশ নিবেন নুরান সিস্টার্স ও বাসুদেব বাউল। পাকিস্তান থেকে আসবেন মিকাল হাসান ব্যান্ড। নেপালের কুটুম্বা, তিব্বতের তেনজিন চোয়েগাল, ইরানের রাস্তাক, ব্রাজিলের মোরিসিও টিজুমবাহ এবং মালির গ্র্যামিজয়ী ব্যান্ড তিনারিওয়েন উতসবের বিভিন্ন দিনে গান পরিবেশন করবেন।

বন্ধুরা, সুখবর হচ্ছে, আয়োজকরা জানিয়েছেন, অনলাইন নিবন্ধনের মাধ্যমে বিনা মূল্যে যে-কেউ এ উৎসব উপভোগ করতে পারবেন। আপনি যদি এই সুযোগ গ্রহণ করতে চান তাহলে আগামী ১ থেকে ৫ নভেম্বর dhakainternationalfolkfest.com/ এই ওয়েবসাইটে নিবন্ধন করুন। নিবন্ধনের মাধ্যমে আপনি তিন দিনের উৎসবের জন্য তিনটি প্রবেশ পাস সংগ্রহ করতে পারেন।

খেয়াল রাখবেন, নির্দিষ্ট তারিখের পাস নিয়ে উৎসবস্থলে যেন প্রবেশ করেন। উৎসব চলবে প্রতিদিন সন্ধ্যা ছয়টা থেকে রাত একটা পর্যন্ত। আরও একটি ভাল খবর। উৎসবে যোগ দেওয়া সংগীতপ্রেমীদের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার জন্য থাকবে ফ্রি পরিবহনব্যবস্থা। তবে বিশেষভাবে মনে রাখতে হবে নিরাপত্তার স্বার্থে সঙ্গে কোনো ব্যাগ নিয়ে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করা যাবে না।

শ্রোতা বন্ধুরা, বাংলাদেশের সংস্কৃতি চর্চা বা আন্দলনের কথা আসলে উদীচীর নাম আসবেই। প্রগতিশীল এই সাংস্কৃতিক সংগঠন উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী তার প্রতিষ্ঠার ৪৯ তম বার্ষিকী উদযাপন করল গত ২৯ অক্টোবর। ১৯৬৮ সালের এই দিনে যাত্রা শুরু করে উদীচী।

বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক বিকাশে কিংবা সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে তাঁদের রয়েছে সুদীর্ঘ কালের গৌরবের ইতিহাস। তবে এখনো সমান তালে রয়েছে তাদের দীপ্ত পথচলা।

রোববার বিকেলে রাজধানী ঢাকার কেন্দ্রীয় গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তনে দু পর্বে অনুষ্ঠিত হয় এবারের উদযাপনী। মিলনায়তনের বাইরে উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে উৎসবের উদ্বোধন করেন প্রবীণ কৃষকনেতা কাজী সোহরাব হোসেন।

দ্বিতীয় পর্বে সফিউদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে ছিল আলোচনা। এ পর্বের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য দেন উদীচীর কেন্দ্রীয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক জামসেদ আনোয়ার। আলোচক হিসেবে অংশ নেন উদীচীর প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য ও সাবেক সভাপতি গোলাম মোহাম্মদ ইদু, সাবেক সভাপতি কামাল লোহানী, শিল্পী আনোয়ার হোসেন, কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসরের সভাপতি মাহফুজা খানম, অধ্যাপক নিরঞ্জন অধিকারী, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছসহ আরও অনেকে।

তাঁদের সবার বক্তব্যে একটা বিষয়ই ফুটে ওঠে। , বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক আন্দোলনের নানা পর্বের সংকটে, সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী আন্দোলনসহ দেশের সব গণতান্ত্রিক আন্দোলনে জনসাধারণের দাবি আদায়ের সংগ্রামে উদীচী যুগে যুগে রাজপথে থেকেছে। মানুষের মুক্তির লড়াইয়ে উদীচী আগামী দিনেও মানুষের পাশে থাকবে বলে প্রত্যাশা করেন তাঁরা।

বন্ধুরা, বাংলা চলচ্চিত্রে শিশুতোষ সিনেমার সংখ্যা খুব বেশী নয়। এবার শিশুদের নিয়ে জনপ্রিয় সাহিত্যিক মুহম্মদ জাফর ইকবালের গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে নতুন চলচ্চিত্র, 'আঁখি ও তার বন্ধুরা'। পরিচালনা করেছেন মোরশেদুল ইসলাম।

সিনেমার গল্প এরকম- আঁখি দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী। কিন্তু প্রতিবন্ধী স্কুলে না পড়ে সাধারণ স্কুলে পড়তে আসে সে। কিন্তু শিক্ষকের আচরণে আঁখি স্কুল থেকে চলে যেতে চায়। এই অবস্থায় তিতু আর তাঁর বন্ধুরা এগিয়ে আসে। তাঁরা আঁখিকে স্বাভাবিকভাবে গ্রহণ করতে চায়। আঁখি জানায়, সে অন্ধ হিসেবে বিবেচিত হতে চায় না, সে আর দশজনের মতো একজন হতে চায়। বন্ধুরা এই চ্যালেঞ্জ নেয়। তারা আঁখিকে অন্ধ হিসেবে করুণা করে না। তাঁকে বন্ধু মনে করে। একবার আঁখি আর তার বন্ধুরা ডাকাত দলের খপ্পরে পড়ে। তাদের রেঙ্গুনে বিক্রি করে দেওয়া হবে। শুরু হয় আঁখির অভিযান। এভাবেই এগিয়ে চলে সিনেমার গল্প।

সম্প্রতি ঢাকায় ইম্প্রেস টেলিফিল্মের কার্যালয়ে ছবিটির পোস্টার উম্মোচন এবং ইউটিউবে গান প্রকাশ উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রচয়িতা মুহম্মদ জাফর ইকবাল, ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লিমিটেড ও চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, ছবিটির পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার, কথা সাহিত্যিক আনিসুল হক, পরিচালক মোরশেদুল ইসলাম, অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফাসহ অন্যান্য শিল্পীরা।

সরকারী অনুদানে নির্মিত সিনেমাটি মুক্তি পাবে আগামী ২২ ডিসেম্বর।

আঁখি ও তার বন্ধুরা' ছবি নিয়ে জাফর ইকবাল বলেন, 'একজন দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী মেয়ে কীভাবে আর দশজন স্বাভাবিক ছেলেমেয়ের সঙ্গে থেকে সমানভাবে সবকিছুতে অংশ নেয়, এটাই এখানে গুরুত্বের সঙ্গে দেখানো হয়েছে।

বন্ধুরা, ইচ্ছাশক্তি আর সবার সহযোগিতা পেলে একটি দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী মেয়েও সবার মন জয় করে নিতে পারে, তারই প্রমাণ আঁখি চরিত্রটি।', এমনটাই জানালেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক বাংলায় বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী ভিত্তিক উপন্যাসের জনপ্রিয় লেখক জাফর ইকবাল। সুতরাং, প্রতিবন্ধীদের অবহেলা বা আলাদা করে না দেখে তাঁদেরকে আমরা স্বাভাবিক ভাবে গ্রহণ করব এবং তাদের প্রতিভা বিকাশে সাহায্য করব।

বন্ধুরা, বাংলাদেশের মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত আলোচিত চলচ্চিত্র 'ডুব' মুক্তি পেয়েছে অস্ট্রেলিয়ায়। অস্ট্রেলিয়ার রাজধানী ক্যানবেরায় মুক্তি পায় ছবিটি। চলচ্চিত্রটির ব্যাপারে অস্ট্রেলিয়ার প্রবাসী বাঙালিদের মধ্যে যথেষ্ট উৎসাহ তৈরি হয়েছে। আগামী ১১ থেকে ১২ নভেম্বর এবং ১৮ থেকে ১৯ নভেম্বর সিডনির প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শিত হবে চলচ্চিত্রটি।

ক্যানবেরা, সিডনিসহ অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন, অ্যাডেলেইড, ডারউইন, ব্রিসবেন ও পার্থে প্রদর্শিত হবে চলচ্চিত্রটি। অস্ট্রেলিয়ায় 'ডুব' সিনেমার পরিবেশনায় রয়েছে পথ প্রোডাকশনস, দেশি ইভেন্টস ও বাজ প্রোডাকশনস।

জাজ মাল্টিমিডিয়া ও ভারতের এসকে মুভিজের যৌথ প্রযোজনায় তৈরি 'ডুব' ছবির প্রধান চরিত্র অভিনয় করেছেন ভারতের ইরফান খান, পার্ণো মিত্র, বাংলাদেশের নুসরাত ইমরোজ তিশা, রোকেয়া প্রাচী।

'ডুব' ছবিটি শুক্রবার বাংলাদেশ আর ভারতের কলকাতার প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে।

বন্ধুরা, ভারতীয় চ্যানেল জিটিভির জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো 'সা রে গা মা পা লিটল চ্যাম্পিয়ন্স যার সংক্ষিপ্ত রুপ 'সা রে গা মা পা লিল চ্যাম্পস' এবারের প্রতিযোগিতায় যৌথভাবে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন শ্রেয়ান ভট্টাচার্য ও অঞ্জলি গায়কোয়াড়জি। ১২ বছরের শ্রেয়ান ভট্টাচার্য পশ্চিমবঙ্গের আর ১১ বছরের অঞ্জলি গায়কোয়াড় মহারাষ্ট্রের প্রতিযোগী। এবারই প্রথম এই প্রতিযোগীতায় যৌথভাবে চ্যাম্পিয়ন হলেন দু'জন প্রতিযোগী।

পুরো ১০ মাস এই প্রতিযোগিতার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন প্রতিযোগীরা। রোববার রাতে জি টিভিতে এই প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত অনুষ্ঠানে বিচারকদের রায়ে তাঁরা যৌথভাবে প্রথম হন।

ফাইনালে শ্রেয়ান ভট্টাচার্য গেয়েছে 'হাওয়ায়েঁ', 'সুরজ ডুবা' ও 'জালিমা' গানগুলো। আর অঞ্জলি গায়কোয়াড় গেয়েছে 'দিওয়ানি মাস্তানি', 'ঝাল্লা ওয়ালা' ও 'ম্যায় কোলহাপুর সে আয়ি হুঁ'।

সবাই নিশ্চয় জানেন, সা রে গা মা পা লিল চ্যাম্পস' আয়োজনে এবার প্রধান বিচারক ছিলেন হিমেশ রেশমিয়া, জাভেদ আলী ও নেহা কক্কর। সঞ্চালক ছিলেন আদিত্য নারায়ণ। প্রতিযোগীদের তৈরি করার জন্য ছিলেন ৩০ জন জুরি সদস্য।

বন্ধুরা, আপনারা যারা হিন্দি সিনেমা দেখেন তাদের নিশ্চয়ই বজ রঙ্গি ভাইজান চলচ্চিত্রের সাংবাদিক চাঁদ নেয়াজের কথা মনে আছে। হ্যাঁ, বন্ধুরা অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর কথাই বলছি। গত সপ্তাহে অনলাইনে প্রকাশিত হয় তাঁর আত্মজীবনী 'অ্যান অর্ডিনারি লাইফ: এ মেমোর'। কিন্তু বইয়ে বর্ণিত কিছু চরিত্রের সাথে নওয়াজউদ্দিনের সম্পর্কের বিবরণ নিয়ে আপত্তি ওঠেছে। ফলে প্রকাশের ছয় দিনের মাথায় তা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিলেন লেখক নিজেই।

অভিযোগ উঠেছে, তিনি আত্মজীবনীতে মিথ্যাচার করেছেন। আর এই অভিযোগ করেছেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর সাবেক দুই প্রেমিকা নীহারিকা সিং ও সুনিতা রাজওয়ার। তাঁদের অভিযোগ, বইয়ের কাটতি বাড়ানোর জন্য জীবনের গল্পগুলোতে রং চং মাখিয়েছেন নওয়াজউদ্দিন।

নীহারিকা সিংয়ের পক্ষে একজন আইনজীবী ভারতের জাতীয় নারী কমিশনে নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন।

এই প্রেক্ষিতে, সোমবার সন্ধ্যায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে নওয়াজউদ্দিন লিখেছেন, 'আমার স্মৃতিকথা ঘিরে যে বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়েছে এবং এই বইয়ের বিভিন্ন তথ্য যাঁদের অনুভূতিতে আঘাত দিয়েছে, আমি তাঁদের সবার কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। আর এ কারণে আমি আত্মজীবনীটি প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।'

প্রসঙ্গত বলে রাখা ভাল, নওয়াজউদ্দিনের 'মিস লাভলি' সিনেমার সহশিল্পী ও সাবেক প্রেমিকা নীহারিকা সিং প্রথম চাঁদ নেওয়াজ খ্যাত এই অভিনেতার বিরুদ্ধে মুখ খোলেন। নওয়াজউদ্দিন তাঁর আত্মজীবনীতে লিখেছেন, নীহারিকার বাড়িতে প্রথম যেদিন তিনি আমন্ত্রণ পান, সেদিনই নাকি তাঁকে কোলে তুলে শোবার ঘরে ঢুকেছিলেন। আত্মজীবনীর এই অধ্যায় নিয়ে গণমাধ্যমে লেখালেখি হলে বিষয়টি নীহারিকার নজরে আসে। তিনি বলেন, 'এসব তথ্য মিথ্যা, বানোয়াট ও অতিরঞ্জিত।'

এদিকে আত্মজীবনীতে নওয়াজউদ্দিন যাঁকে তাঁর প্রথম প্রেমিকা বলে দাবি করেছেন, সেই সুনিতা রাজওয়ার ফেসবুকে এই তারকার উদ্দেশে একটি খোলা চিঠি লিখেছেন। সুনিতা বলেন, 'আগে থেকেই মানুষের সহানুভূতি কুড়ানো নওয়াজউদ্দিনের স্বভাব। বইয়ে নওয়াজউদ্দিন লিখেছেন, ন্যাশনাল স্কুল অব ড্রামায় পড়ার সময় আমাদের কোনো দিন দেখা হয়নি। এটি ডাহা মিথ্যা কথা। আমরা তখন ঘনিষ্ঠ ছিলাম না ঠিকই, কিন্তু আমাদের কয়েকবার দেখা হয়েছে।'

সব কিছু মিলিয়ে বলা যায় বেশ চাপে আছেন বজ রঙ্গি ভাইজানের মাধ্যমে নজরে আসা সাধারণ দর্শনের নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী।

শ্রোতা বন্ধুরা, এই ছিল আমাদের এ সপ্তাহের সাহিত্য ও সংস্কৃতি অনুষ্ঠানের আয়োজন। আসছে সপ্তাহে আবার কথা হবে একই সময়ে। সবাই ভাল থাকবেন। সঙ্গে থাকার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040