Web bengali.cri.cn   
চীনা স্মৃতি-অমূল্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের ব্রিটেন সফর
  2017-08-29 14:30:16  cri
সুপ্রিয় বন্ধুরা, আপনারা শুনছেন চীন আন্তর্জাতিক বেতার থেকে প্রচারিত বাংলা অনুষ্ঠান 'সাহিত্য ও সংস্কৃতি'। আর এ অনুষ্ঠানে আপনাদের সঙ্গে আছি আমি আপনাদের বন্ধু ওয়াং ছুই ইয়াং জিনিয়া।

প্রথমে কয়েকটি সাংস্কৃতিক খবর শুনবো।

তৃতীয় প্রবাসী চীনা ও চীনা বংশোদ্ভুত বিদেশী শিল্প বাণিজ্য মেলা চলাকালে গুরুত্বপূর্ণ সাংস্কৃতিক ইভেন্ট হিসেবে গত ১৩ অগাস্ট 'চীনের ছাওসান ব্যবসা—৫'শ বছরের অপরাজিত সাংস্কৃতিক পাসওয়ার্ড' শিরোনামে ছাওসান ব্যবসা সাংস্কৃতিক সিম্পোজিয়াম-'জি জাই'র প্রথম লাইভ রেকর্ডিং' সেন জেন শহরে অনুষ্ঠিত হয়।

সেন জেন প্রবাসী চীনা ব্যবসা থিঙ্ক ট্যাংক গবেষণালয়, সেন জেন ভূনিং বণিক সমিতি জি জাই সংস্কৃতি কোম্পানিসহ বিভিন্ন সংস্থার উদ্যোগে এবারের ইভেন্ট অনুষ্ঠিত হয়। চেং তাই গ্রুপের ভাইস প্রেসিডেন্ট, পিফেংলিয়েনহুয়া'র এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান লি ওয়েন হাই, চীনা সংবাদ সংস্থার কুয়াংতুং শাখার পরিচালক চিয়াং চিয়েন ইউয়েই, সিসিটিভি'র উপস্থাপক, 'জি জাই' টিভি প্রোগ্রাম প্রযোজক লি হং মেইসহ বিভিন্ন অতিথি মিলিত হয়ে ছাওচৌ'র বাণিজ্যের উন্নয়নের প্রক্রিয়া নিয়ে মতবিনিময় করেছেন এবং ছাওসান ব্যবসা—৫'শ বছরের অপরাজিত সাংস্কৃতিক পাসওয়ার্ড ব্যাখ্যা ও পরিচয় দিয়েছেন।

অনুষ্ঠানে লি ওয়েন হাই চীনের ছিং রাজবংশ থেকে এখন পর্যন্ত ছাওসান নাগরিকদের চার বার গুরুত্বপূর্ণ ইমেগ্রেশন পর্যায় নিয়ে পরিচয় করিয়ে দেন। এত বেশী ইমেগ্রেশনের পর ছাওসান নাগরিকরা বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় জীবন শুরু করে। একই সঙ্গে বিভিন্ন জায়াগার বাণিজ্যিক মহলে গুরুত্বপূর্ণ স্থান দখল করে। লি মনে করেন, ছাওসান ব্যবসায়ীদের চরিত্রের প্রধান বৈশিষ্ট্য হলো তাদের আছে কৃতজ্ঞ হৃদয়। যদি কোন সহায়তা পায়, তাঁরা আরো বেশী ধন্যবাদজ্ঞাপন করবে। তাছাড়া অখণ্ডতা, বিষয়গুলি সাবধানে করা কিংবা নানাভাবে লাভ ও ক্ষতির বেশী চিন্তা বা হিসাব তাঁরা করে না।

ছাওসান অঞ্চলটির চারদিকে ঘিরে আছে পাহাড় ও সাগর। এর আয়তন বেশী বড় নয় কিন্তু লোকসংখ্যা বেশী। এ কারণে বিদেশে স্থানান্তরের মাধ্যমে বাইরে ব্যবসা করে স্বপ্ন বাস্তবায়নের চেষ্টা করে তাঁরা। মিং ও ছিং রাজবংশে সমুদ্র বাণিজ্য উন্নয়নের সাথে সাথে ছাওচৌ বাণিজ্য গ্রুপ ধীরে ধীরে অনেক সমৃদ্ধি পেয়েছে। হুই ব্যবসায়ীদের পর চীনের আধুনিক ইতিহাসে সবচেয়ে প্রভাবশালী ও শক্তিশালী এক বাণিজ্যগ্রুপ। এখন পর্যন্ত ছাও ব্যবসায়ীরা বিশ্বের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

এবারে শুনুন সপ্তম চীনা শিশু নাট্য উৎসব সাফল্যের সঙ্গে আয়োজন সংক্রান্ত একটি সাংস্কৃতিক খবর।

৪৫-দিনব্যাপী চীনা শিশু নাট্য উৎসবের সমাপনী অনুষ্ঠান রোববার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। এবারের উত্সবে ৯টি দেশ ও অঞ্চলের ২৭টি শিশু নাট্য গ্রুপের ২০৬টি আকর্ষণীয় প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে।

চীনা শিশু শিল্প থিয়েটারের পরিচালক ইন সিয়াও তুং বলেন, উত্সবকালে চীন, রোমানিয়া, ইসরায়েল, লেবানন, চেক প্রজাতন্ত্র, রাশিয়া, নেদারল্যান্ডস, স্পেন ও চীনের শিশু নাট্য কর্মীরা মিলে বিভিন্ন ধরণের চিত্তাকর্ষক নাটকে অভিনয় করেছে। বেইজিং ছাড়াও নাট্য দলগুলো চীনের চিনান ও ছেংতু শহরেও পারফর্ম করে। তাছাড়া সিঙ্গাপুর ও দক্ষিণ কোরিয়ায় সাংস্কৃতিক বিনিময়েও অংশ নিয়েছে তাঁরা।

জানা গেছে, এবার শিশু নাটক উত্সবের সংগঠন সংস্থা জাতীয় প্যালেস মিউজিয়ামের সঙ্গে সহযোগিতা করে সাংস্কৃতিক গ্রীষ্মকালীন ক্যাম্প আয়োজন করে।

এ বছর নিয়ে চীনা শিশু নাটক উত্সব টানা ৭ বছরের মত অনুষ্ঠিত হ্ল। মোট ২১টি দেশ ও অঞ্চলের ১৭০টিও বেশী নাট্য শিল্পদল এ আয়োজনে অংশ নিয়েছে।

এবারে শুনবেন '<লু সিয়াও ম্যান১৯২৭--সাংহাই> বইটির প্রকাশনার ওপর একটি সাংস্কৃতিক প্রবন্ধ।

২০ অগাস্ট চীনা পন্ডিত ছেন চিয়েন হুয়া রচিত 'লু সিয়াও ম্যান ১৯২৭—সাংহাই' বইটির প্রকাশনা সাংহাই বইমেলায় অনুষ্ঠিত হয়। ছেন চিয়েন হুয়া চীনের আধুনিক সাহিত্য গবেষণা মহলের বিখ্যাত পন্ডিত। তিনি হংকং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং সাংহাই যোগাযোগ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক সম্পদ সমৃদ্ধি কলেজের অধ্যাপক।

১৯১২ থেকে ১৯২৭ সাল পর্যন্ত এ সময়কালে চীনা সংস্কৃতি নিয়ে অনেক গবেষণা কাজ করে <লু সিয়াও ম্যান১৯২৭--সাংহাই> বইটি লিখেছেন ছেন চিয়েন হুয়া। তিনি বলেন, এ বইটিতে সে সময়কালে চীনের হাজার হাজার বিভিন্ন ধরনের পত্রিকা ও ম্যাগাজিনের সরাসরি উপাত্ত ও তথ্য রয়েছে। এ সময়কালকে 'মিনকুও' বলা হয়। বইয়ের প্রধান প্রধান চরিত্র লু সিয়াও ম্যান মিনকুও'র কিংবদন্তী নারী, তিনি সে ইতিহাসের যুগের প্রতিনিধি ব্যক্তি। বিশেষ করে ফ্যাশন চেনাশোনা এবং মিডিয়া শিল্পের অনেক বিষয় বইটিতে ব্যাখ্যা করা হয়েছে।

এবারে শুনুন 'চীনা স্মৃতি-অমূল্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের ব্রিটেন সফর' সংক্রান্ত একটি প্রবন্ধ।

বড় আকারের বিদেশি সংস্কৃতি প্রচার কার্যক্রম 'চীনা স্মৃতি-অমূল্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের ব্রিটেন সফর' ১৭ অগাস্ট থেকে লন্ডনে শুরু হয়েছে।

চীনের বেসরকারি শিল্পপ্রতিষ্ঠান এবং অমূল্য ঐতিহ্য সুরক্ষা সংস্থার যৌথ উদ্যোগে এই প্রচার কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আয়োজক সংস্থা ইন্টারনেট ভোটে থিয়েনচিন'র সবচেয়ে প্রতিনিধিত্বমূলক ১৫ টি পুরনো এবং বিখ্যাত শিল্পপ্রতিষ্ঠান ও অমূল্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের উত্তরাধিকরী নির্বাচিত হয়ে ব্রিটেনে সাংস্কৃতিক বিনিময়ে গিয়েছে।

এবার অনুষ্ঠানের এক সংগঠিত সংস্থা থিয়েনচিন টাইমস স্মৃতি সাংস্কৃতিক শিল্প উন্নয়ন কোং লিমিটেড কোম্পানির জেনারেল ম্যানেজার ইয়াং লি ইং বলেন, এবার বিদেশি সংস্কৃতি প্রচার কার্যক্রম 'চীনা স্মৃতি-অমূল্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের ব্রিটেন সফর' তত্পরতায় চীনের ঐতিহ্যগত অমূল্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের শিল্প প্রচার করার সঙ্গে সঙ্গে মূল্যবান সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের জন্য নতুন উন্নয়ন পথ খুঁজে পাবে।

১৭ অগাস্ট লন্ডনে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও প্রেস ব্রিফিংয়ে ১৫টি শিল্পপ্রতিষ্ঠান ও অমূল্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের উত্তরাধিকারী আলাদাভাবে দর্শকদের প্রতি নিজের ঐতিহ্যের বৈশিষ্ট্য পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন।

জানা গেছে, এবার সাংস্কৃতিক ইভেন্টে অমূল্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের উত্তরাধিকারীরা স্কটল্যান্ডেও সফর করে ওখানে চলতি বছরের এডিনবার্গ আন্তর্জাতিক শিল্পকলা উৎসবে অংশ নেবে।

প্রিয় শ্রোতা, আজকের অনুষ্ঠান আপনাদের কেমন লাগলো? আপনারা যদি 'সাহিত্য ও সংস্কৃতি' বিষয়ক কোনো কিছু জানতে বা আলোচনা করতে চান, তাহলে আমাকে চিঠি লিখবেন বা ই-মেইল করবেন। আপনাদের কাছ থেকে চমত্কার পরামর্শ আশা করছি। আর আপনাদের জানিয়ে রাখি, আমার ইমেইল ঠিকানা হলো, hawaiicoffee@163.com

চিঠিতে প্রথমে লিখবেন, 'সাহিত্য ও সংস্কৃতি' অনুষ্ঠানের 'প্রস্তাব বা মতামত'। আপনাদের চিঠির অপেক্ষায় রইলাম।

বন্ধুরা, আজকের অনুষ্ঠান এখানেই শেষ করছি। শোনার জন্য অনেক ধন্যবাদ। আগামী সপ্তাহে একই দিন, একই সময় আপনাদের সঙ্গে আবারো কথা হবে। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। চাইচিয়ান।

(জিনিয়া/মহসীন/স্বর্ণা)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040