Web bengali.cri.cn   
তোমার জন্য গান: শুধুমাত্র একটি অপেক্ষা
  2017-06-30 10:42:49  cri



মুক্তা: বন্ধুরা, আজকের অনুষ্ঠানে আমি আপনাদেরকে কয়েকটি অনুপ্রেরণামূলক গান শোনাতে চাই। প্রথমে আমি নারী কণ্ঠশিল্পী দিংদিং'র কণ্ঠে 'আমার কণ্ঠ' নামের একটি গান শোনাবো। তবে তার আগে দিংদিং'র একটু পরিচয় আপনাদের সামনে তুলে ধরতে চাই। দিংদিং ১৯৮৭ সালের ১৯ জানুয়ারি শানদং প্রদেশের চিনান শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি একজন কণ্ঠশিল্পী, অভিনেত্রী ও মডেল। ২০০৬ সালে তিনি হাইস্কুল শেষ করে বেইজিংয়ে তিন বছর বিভিন্ন বিজ্ঞাপনের মডেল হিসেবে কাজ করেন। ২০০৯ সালে তিনি একটি সংগীত প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান হন। তখন থেকে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে সংগীত মহলে প্রবেশ করেন। এরপর তিনি বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় পুরস্কার লাভ করেন। ২০১৩ সালে তিনি প্রথম ইপি প্রকাশ করেন। একই বছরে তিনি প্রথম অ্যালবাম প্রকাশ করেন। তিনি অনেক টিভি সিরিজ ও চলচ্চিত্রের থিম গান গেয়েছেন। ২০১৫ সালে তিনি চলচ্চিত্রে পরিবেশনা করা শুরু করেন।

টুটুল: 'আমার কণ্ঠ' গানটির কথা এমন, 'কত মানুষ দর্শক হিসেবে দেখছে। কত মানুষের ভালো লাগে যে, স্বপ্ন থেকে উঠে সব বাস্তবায়িত হবে। কে চিন্তা করছে সে সুন্দর কথা। কে উদ্বেগহীন নিজের স্বপ্ন হারিয়ে ফেলেছে। আমার নিজের কণ্ঠ আছে। তুমি চোখ বন্ধ করতে চাও, করবে। চমত্কার গান। বিশ্বের কেন্দ্রে দাঁড়াই। হৃদয়ে উথলা ঢেউ, চমত্কার গান। আমি মহাকাব্যে উচ্চ স্বরে গান গাইছি। সে আলো লুকানো যাবে না'। আচ্ছা, বন্ধুরা, এখন আমরা একসঙ্গে গানটি শুনবো।

(গান ১)

মুক্তা: বন্ধুরা, শুনছিলেন 'আমার কণ্ঠ' নামের গান। এখন আমি আপনাদেরকে আরেকজন তরুণ নারী কণ্ঠশিল্পীর গান শোনাতে চাই। তিনি হলেন কুয়ান সিয়াও থং। তিনি ১৯৯৭ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর বেইজিংয়ে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি এখন বেইজিং ফিল্ম একাডেমিতে লেখাপড়া করছেন। ২০০১ সালে মাত্র চার বছর বয়সে তিনি চলচ্চিত্রে পরিবেশনা শুরু করেন। যদিও তার বয়স অনেক কম,তবে তিনি অনেক চলচ্চিত্র ও টিভি সিরিজে পরিবেশনা করেছেন। ২০১৫ সালে তিনি প্রথম অ্যালবাম প্রকাশ করেন। আজ আমি তার কণ্ঠে 'আমাদের ১৮ বছর বয়স' নামের গান শোনাবো।

টুটুল: 'আমাদের ১৮ বছর বয়স' গানের কথা হল, 'আমাদের ১৮ বছর বয়স, আমি বলতে চাই, ভ্রূকুটি করবে না। সবসময় ১৮ বছর বয়স, আমি আমার মতো করে হাঁটতে চাই। তারুণ্য চিরকাল থাকা উচিত। সবাই আমাকে দেখছে, আমি যাকে পছন্দ করি, শুধু তাকে পছন্দ করবো। এটি আপনাদের ব্যাপার নয়। সুদর্শন ছেলে আমাদের কাছে ক্লাসে আছে, কিন্তু আমি শুধু দূর থেকে দেখতে পারি। হাতে বই, পড়া শেষ হয় নি, সে চলে যাবে। আগামী স্টেশনে ট্রেন পরিবর্তন করা উচিত, আমার প্রথম প্রেম অন্য মানুষের প্রেমে পরিণত হবে। এটি হল আমাদের ১৮ বছর বয়স। সুন্দর ১৮ বছর বয়স নষ্ট করো না। ভালোবেসেছি, আমি হতাশ করবো না। সবসময় ১৮ বছর বয়স'। আচ্ছা, বন্ধুরা, এখন আমরা একসঙ্গে গানটি শুনবো।

(গান ২)

মুক্তা: বন্ধুরা, শুনছিলেন 'আমাদের ১৮ বছর বয়স' নামের গান। এখন আমি 'খুশি বীর' নামের গান শোনাবো। গেয়েছেন ফান ওয়েই বো। তিনি ১৯৮০ সালের ৬ অগাস্ট যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া রাজ্যে জন্মগ্রহণ করেন। তার পৈতৃক নিবাস শাংহাই। তিনি ক্যালিফোর্নিয়া পলিটেকনিক স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে স্নাতক হন। তিনি একজন কণ্ঠশিল্পী, অভিনেতা ও উপস্থাপক। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্রের একটি সংগীত প্রতিযোগিতায় পুরস্কার লাভ করেন। ২০০১ সালে তিনি চ্যানেল ভি'র উপস্থাপক হিসেবে কাজ শুরু করেন। তখন থেকে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে বিনোদন মহলে প্রবেশ করেন। একই বছর তিনি টিভি সিরিজে কাজ শুরু করেন। ২০০৪ সালে তিনি হংকং, তাইওয়ান ও ম্যাকাও অঞ্চলের সবচেয়ে জনপ্রিয় নতুন শিল্পীর পুরস্কার লাভ করেন। এ পর্যন্ত তিনি বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় পুরস্কার লাভ করেছেন।

টুটুল: 'খুশি বীর' গানের কথা এমন, 'স্বপ্ন থাকলে তা বাস্তবায়ন করার চেষ্টা করবো। আমি সফল হবো। আমার জীবন আমি নিজে বহন করবো। আশা হল শুধুমাত্র একটি অপেক্ষা, আমি সামনে গিয়ে আমার প্রত্যাশা বাস্তবায়নের চেষ্টা করবো। বিজয়ী হওয়াই একমাত্র সাফল্য নয়। হাত তুলে শত চূড়াকে স্বাগত জানাই। এটি হল আমার স্বপ্ন'। আচ্ছা, বন্ধুরা, এখন আমরা একসঙ্গে গানটি শুনবো।

(গান ৩)

মুক্তা: বন্ধুরা শুনছিলেন 'খুশি বীর' গানটি। এখন আমি আপনাদেরকে শিল্পী জেং জুন'র সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেবো। তিনি ১৯৬৭ সালের ৬ নভেম্বর শেনসি প্রদেশের সিআন শহরে এক বুদ্ধিজীবী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার যখন সাত বছর বয়স তখন তার বাবা মারা যান। তিনি হাংচৌ দিয়ানজি ইউনিভার্সিটি থেকে স্নাতক হন। ১৯৯০ সালে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে 'বারূদ' নামের একটি ব্যান্ড প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯৯৪ সালে তিনি নিজের প্রথম রক গান অ্যালবাম প্রকাশ করেন। অ্যালবামটির বেশ কয়েকটি গান এখনো চীনে খুব জনপ্রিয়। এছাড়া তিনি একজন লেখকও। তিনি ১৯৯৬ সালে নিজের প্রথম উপন্যাস প্রকাশ করেন। ২০০৯ সালে তিনি নিজের প্রথম কমেডি বই 'রক ডগ' প্রকাশ করেন। আজকের অনুষ্ঠানে আমি জেং জুন'র কণ্ঠে 'গভীর ভালোবাসা' নামের গান শোনাবো।

টুটুল: 'গভীর ভালোবাসা' নামের গানটির কথা এমন, 'সব সময় হঠাত্ সুন্দর বিষয়ের সঙ্গে দেখা হয়। মাঝে মাঝে ঠাণ্ডা মানুষের সঙ্গে দেখা হয়। তোমার দুঃখ লাগে, আমরা দুঃখকে সুখ হিসেবে দেখি। আমরা সাহসী মানুষের সঙ্গে থাকতে চাই। আমি একটি পুরোন গিটার নিয়েও সুখী হই। এ অবস্থায়ও আমরা বিশ্ব পরিবর্তন করতে পারি। প্রতিটি পথের লক্ষ্য বাস্তবায়িত হবে না। কিন্তু এ পথেও সুন্দর দৃশ্য হবে। ভালোবাসা দখল করার বিষয় নয়। হয়তো কোনো কোনো মানুষ তোমাকে ধোঁকা দেবে, কিন্তু আমি কখনো তা করবো না। আমি আজীবন তোমার কাছে থাকবো। আমরা এই জীবন অপচয় করবো না'। আচ্ছা, বন্ধুরা একসঙ্গে গানটি শুনবো।

(গান ৪)

মুক্তা: বন্ধুরা, শুনছিলেন 'গভীর ভালোবাসা' নামের একটি গান। আশা করি, সবাই গানটি পছন্দ করেছেন। আচ্ছা, আজকের অনুষ্ঠানে আমরা আপনাদেরকে চারটি চীনা গান শুনিয়েছি। এখন কয়েকটি বাংলা গান শোনাবো, কেমন?

(বাংলা গান)

টুটুল: প্রিয় শ্রোতা, এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের সবাইকে জানাই অসংখ্য ধন্যবাদ। যদি আপনারা আমাদের অনুষ্ঠানে কোনো পছন্দের গান শুনতে চান, তাহলে আমাদের জানাবেন। আমাদের ই-মেইল ঠিকানা হচ্ছে ben@cri.com.cn

মুক্তা: এবং আমার নিজস্ব ইমেইল ঠিকানা হলো caiyue@cri.com.cn। 'গানের অনুরোধ' সম্পর্কিত ইমেইল আমার নিজস্ব ইমেইল ঠিকানায় পাঠালে ভালো হয়।

টুটুল: আজ তাহলে এ পর্যন্তই। আশা করি, আগামী সপ্তাহের একই দিনে, একই সময়ে আবারো আপনাদের সঙ্গে কথা হবে। ততক্ষণ সবাই ভালো থাকুন, আনন্দে থাকুন।

মুক্তা/টুটুল: চাই চিয়ান। (ছাই/টুটুল)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040