Web bengali.cri.cn   
পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে চীন আন্তর্জাতিক বেতারের বিশেষ আয়োজন-"ঘরে ঘরে ঈদের আনন্দ"
  2017-06-24 15:48:33  cri


শ্রোতাবন্ধুরা আর মাত্র ১ কিংবা ২ দিন পর বাংলাদেশে উদযাপিত হতে যাচ্ছে মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মিয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর।

এ উপলক্ষ্যে চীন আন্তর্জাতিক বেতার বাংলা বিভাগ আয়োজন করেছে বিশেষ অনুষ্ঠান "ঘরে ঘরে ঈদের আনন্দ"। আজকের এই বিশেষ অনুষ্ঠানে আপনাদের স্বাগত এবং অগ্রিম ঈদের শুভেচ্ছা জানাচ্ছি আমি দিদারুল ইকবাল।

ঈদুল ফিতর ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের দুটো সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসবের একটি। দীর্ঘ এক মাস রোযা রাখা বা সিয়াম সাধনার পর মুসলমানেরা এই দিনটি ধর্মীয় কর্তব্যপালনসহ খুব আনন্দের সাথে পালন করে থাকে। হিজরি বর্ষপঞ্জী অনুসারে রমজান মাসের শেষে শাওয়াল মাসের ১ তারিখে ঈদুল ফিতর উৎসব পালন করা হয়। বাংলাদেশ সহ অন্যান্য মুসলিম-প্রধান দেশে ঈদুল ফিতরই হচ্ছে বৃহত্তম বাৎসরিক উৎসব। ঈদের দিন প্রত্যেকে ঘরে ঘরে সাধ্যমত বিশেষ খাবারের আয়োজন করে থাকেন। এছাড়া ছুটির দিনগুলিতে অনেকে পরিবার-পরিজন নিয়ে বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে বেড়াতে বা ঘুরতে যান।

এবার বাংলাদেশে রমজান যদি ৩০টি পালিত হয় তাহলে ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে ২৭ জুন মঙ্গলবার আর যদি রোজা ২৯টি হয় তাহলে ঈদ হবে ২৬ জুন সোমবার।

আর এই ঈদকে সামনে রেখে বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্তে জমে উঠেছে ঈদের কেনাকাটা। সবদিকে ছড়িয়ে পড়েছে ঈদের অগ্রীম আনন্দের ছোঁয়া। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বিভিন্ন মার্কেটগুলোতে চলছে কেনাকাটার উৎসব। ঈদে প্রিয়জনকে নতুন পোশাক উপহার দিতে সকলেই ছুটছেন সাধ্যমত কেনাকাটা করতে। মার্কেটগুলোতে চলছে ক্রেতা-বিক্রেতাদের মধ্যে দর কষাকষি। বাহারী ডিজাইন আর নামের পোশাকের মধ্য থেকে ক্রেতারা বেছে নিচ্ছেন তাদেঁর পছন্দের কেনাকাটা। রমজান মাসে ধনী-গরীব প্রায় প্রতিটি পরিবারে ছোট-বড় সকলের জন্য নিজেদের সাধ্যমত নতুন পোশাক কেনা-কাটা হয়ে থাকে। আমাদের শ্রোতাবন্ধুদের মাঝেও অগ্রীম ঈদের আনন্দের ছোঁয়া লেগেছে। তাঁরা অনেকে ইতিমধ্যে ঈদের কেনাকাটা শেষ করে ফেলেছেন। আবার কেউ এখনো অপেক্ষায় বসে আছেন ঈদের পূর্বে চাঁদ রাতে কেনাকাটা করতে।

আমরা ফোনের মাধ্যমে কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তি, বাংলাদেশ বেতারের কর্মকর্তা এবং শ্রোতাবন্ধুদের সাথে কথা বলেছি এবং তাদেঁর কাছ থেকে জানার চেষ্টা করেছি এবারের ঈদকে ঘীরে তাঁরা কি ধরনের কেনাকাটা করেছেন, কি কি কিনেছেন এবং ঈদের উৎসব তিনি বা তারা কোথায়, কিভাবে, কার সাথে উদযাপন করবেন, এসব কিছু।

এখন শুনুন তাদের কথা..............

(০১) ড. মির শাহ আলম, পরিচালক, বাংলাদেশ বেতার।

(০২) তানজিলা আক্তার রুমা, নেত্রকোণা।

(০৩) এম.এ.ছালাম, কিশোরগঞ্জ।

(০৪) আব্দুল্লাহ আল জুবায়ের, যশোর।

(০৫) ইয়াকুব আলী, শরীয়তপুর।

(০৬) আবিদা সুলতানা ডালিয়া, ঠাকুরগাঁও।

(০৭) এম. ফোরকান, চট্টগ্রাম।

(০৮) আরিফুল ইসলাম, সিরাজগঞ্জ।

(০৯) মো. শাহীন পাটোয়ারী, ঝিনাইদহ।

(১০) মো: চাঁন মিয়া, সিলেট।

(১১) মানিক মাহমুদ, রাজশাহী।

(১২) মনির হোসেন মনির, ময়মনসিংহ।

(১৩) এস.এম.আক্তারুল ইসলাম, সাতক্ষীরা।

(১৪) মো. হায়দারুল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গা।

শ্রোতাবন্ধুরা,

আপনারা এতক্ষণ শুনছিলেন বাংলাদেশের কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তি, বাংলাদেশ বেতারের কর্মকর্তা এবং শ্রোতাবন্ধুর ঈদ উদযাপনের পূর্বপ্রস্তুতি সম্পর্কে নানান কথা। সব মিলিয়ে সর্বস্তরের মানুষের মাঝে ঈদ উৎসব জমে উঠুক, অনেক আনন্দময় হোক, ধনী-গরিব সবার মাঝে ভালোবাসা ছড়িয়ে পড়ুক এ প্রত্যাশা রেখে এখানেই শেষ করছি চীন আন্তর্জাতিক বেতারের বিশেষ আয়োজন "ঘরে ঘরে ঈদের আনন্দ"।

সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ্য থাকুন। সবাইকে অগ্রীম ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক, ঈদ মোবারক, ঈদ মোবারক।

দিদারুল ইকবাল

চীন আন্তর্জাতিক বেতার

বাংলাদেশ।

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040