Web bengali.cri.cn   
সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাবের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত : মানুষের নৈতিক উন্নয়ন ও সামাজিক সম্প্রীতি রক্ষায় রোজার গুরুত্ব অপরিসীম- ড. মীর শাহ আলম
  2017-06-17 16:39:36  cri



মানুষের নৈতিক উন্নয়ন ও সামাজিক সম্প্রীতি রক্ষায় রোজার গুরুত্ব অপরিসীম। দৈহিক শৃংঙ্খলা, পারস্পরিক সম্প্রীতি-সহানুভূতি এবং সামাজিক সাম্য ও উন্নয়নের ক্ষেত্রে রোজার ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। পবিত্র রমজানুল মোবারক উপলক্ষে সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাব, সিলেট জেলা শাখা কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা গুলি বলেন, বাংলাদেশ বেতারের পরিচালক ও ভারপ্রাপ্ত উপ-মহাপরিচালক ড. মির শাহ আলম।

৯ জুন শুক্রবার সিলেট চৌহাট্টায় নিউ লাংথুরাই চাইনিজ রেষ্টুরেন্টে এ ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বেতারের পরিচালক ড. মির শাহ আলম। সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বেতার, সিলেটের আঞ্চলিক পরিচালক মো. ফখরুল আলম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট বেতারের সহকারি পরিচালক প্রদীপ চন্দ্র দাস এবং জকিগঞ্জ লুৎফুর রহমান কলেজের অধ্যক্ষ ও সীমান্তিকের চেয়ারপার্সন মাজেদ আহমেদ চঞ্চল। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাব, সিলেট জেলা শাখার সভাপতি মো. চাঁন মিয়া। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. আশরাফ হোসেন খান এবং সিলেট বেতারের কিশলয় অনুষ্ঠানের উপস্থাপক তাহমিনা ইসলাম।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাবের ভাইস চেয়ারম্যান তাছলিমা আক্তার লিমা, ক্লাবের সিলেট শাখার সদস্য শাহানাজ হোসেন সুমি, নুসরাত জাহান, লাবীব ইকবাল, মো. নজরুল ইসলাম, শেখ মোহাম্মদ তৌহিদ, শিল্পী আক্তার মিম, আব্দুল আলীম, আল আমিন, তামীম উদ্দিন আলিফ, জান্নাতুল ফেরদৌস মিম, মো. আমির হোসেন প্রমূখ।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ বেতারের পরিচালক ও ভারপ্রাপ্ত উপ-মহাপরিচালক ড. মির শাহ আলম বেতার এবং শ্রোতা ক্লাবের উদ্দেশ্যে বলেন, শ্রোতাক্লাব গুলোকে যদি শক্তিশালী করা যায় তাহলে শ্রোতা, বাংলাদেশ বেতার এবং সরকারের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ সংযোগ স্থাপন হবে। শ্রোতা ক্লাব গুলোকে যদি ক্লাব পরিচালনার প্রয়োজনীয় উপকরণ, ডিজিটালাইজেশনের সমস্ত সুযোগ-সুবিধা, রেকর্ডিং প্যাসেলিটি, শ্রোতাক্লাবের সদস্যদের বসার এবং ক্লাবের কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য প্রয়োজনীয় আবাসন সুবিধা, শ্রোতাক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে বেতারে আসা-যাওয়ার যাতায়াত সুবিধার ব্যবস্থা করা যায় তাহলে বাংলাদেশ বেতারের অনুষ্ঠান সম্প্রচারের যে পকেট এরিয়া রয়েছে সেগুলি অত্যন্ত শক্তিশালী হবে, সরকারের ভিশন ত্বরান্বিত হবে। এ ধারণায় যদি বাংলাদেশ বেতার এগিয়ে যায় তাহলে বাংলাদেশ বেতার এবং সরকার অনেক লাভবান হবে বলে আমার বিশ্বাস। আমার মনে হয় বাংলাদেশ বেতার এলোমেলো কোন পরিকল্পনা না নিয়ে যদি শ্রোতাক্লাব গুলিকে অনেক বেশি শক্তিশালী করে, ক্ষমতায়ন করা হয়, ফরর্মেটিং করা হয় তাহলে এ শ্রোতাক্লাব গুলির মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকারের যে ভিশন রয়েছে তা বাংলাদেশ বেতারের মাধ্যমে তৃণমূলের শ্রোতাদের কাছে আরো বেশি পৌঁছাবে, এটা আরো ত্বরান্বিত হবে। বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় বেতার শ্রোতাদের সাথে ছিলো, তেমনি প্রাকৃতিক দুর্যোগ-দুর্ভোগ, দৈব দুর্ঘটনায় বেতার এবং সরকার জনগণের পাশে থাকবে। এক্ষেত্রে শ্রোতাক্লাব গুলোর সহায়তা একান্ত প্রয়োজন। আমি মনে করি শ্রোতাক্লাব গুলি যদি সজিব থাকে, বাস্তব থাকে এবং বেতারের কর্মকর্তারা তাদের দাপ্তরিক কর্মকান্ডের বাইরেও তাদের আচার-আচরণে এবং মানসিকতা যদি বেতার শ্রোতাকেন্দ্রিক হয়, যদি শ্রোতাক্লাব গুলির সাথে যোগাযোগ রাখেন, তাদের কর্মসূচি গুলিকে উৎসাহিত করেন তবে শ্রোতাক্লাব গুলি লাভবান হবে, বেতারের উদ্দেশ্য সার্থক হবে, সরকারের কর্মসূচি সফল হবে।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে বাংলাদেশ বেতার, সিলেটের আঞ্চলিক পরিচালক মো. ফখরুল আলম বলেন, আমরা সম্প্রতি সিলেটে শ্রোতাক্লাবের সদস্যদের নিয়ে দিনব্যাপী শ্রোতা সম্মেলনের আয়োজন করেছিলাম সেখানে দেখেছি তারা বেতারের প্রতি কতটুকু আগ্রহী, আন্তরিক এবং বেতার তথ্যের উপর নির্ভরশীল। আমরা চিন্তা করছি এখন থেকে প্রতি বছর কিভাবে শ্রোতাক্লাব গুলোকে নিয়ে সম্মেলনের আয়োজন করা যায় এবং শ্রোতাদের সাথে বেতারের যোগাযোগ আরো বেশি করে বাড়ানো যায়। এছাড়া শ্রোতা ক্লাব গুলি বিশেষ করে সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাবের মত আরো যেসকল শ্রোতা ক্লাব বেতার অনুষ্ঠান শুনার পাশাপাশি সামাজিক ভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে থাকে তাদেরকে আরো কিভাবে সক্রিয় করা যায় এবং তাদের দিয়ে ভালো ভালো অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যায়, বেতারের প্রচরনার কাজে সম্পৃক্ত করা যায় আমরা সে বিষয়ে চিন্তাভাবনা করছি। আমরা এই শ্রোতাক্লাব গুলোর মাধ্যমে সরকারের সকল ধরনের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের তথ্য জনগণের দোর-গোড়ায় পৌঁছে দিতে চাই।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট বেতারের সহকারি পরিচালক প্রদীপ চন্দ্র দাস বলেন, শ্রোতাক্লাবরে ধারণাটি আজকের নয়, এটি অনেক আগের ধারণা। আমি যখন ছোট বেলায় ভয়েস অব আমেরিকা, বিবিসি বাংলা, চীন আন্তর্জাতিক বেতারের অনুষ্ঠান শুনতাম সে সময় সে সব আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে শ্রোতাক্লাব গুলি প্রতিষ্ঠিত ছিলো। যদিও বাংলাদেশ বেতার সম্প্রতি শ্রোতাক্লাবের উপর বিশেষ গুরুত্বআরোপ করেছে। আমি মনে করি আমাদের আঞ্চলিক পরিচালক স্যারের সুযোগ রয়েছে বাংলাদেশ বেতারের সদর দপ্তরের কর্মকর্তাদের সাথে বিভিন্ন ওয়ার্কশপ-সভা-সেমিনারে যোগ দেওয়ার। তিনি যাতে সেখানে শ্রোতাক্লাব গুলিকে আরো কিভাবে সংগঠিত করা যায়, কাজে লাগানো যায়, সে সম্পর্কিত প্রস্তাব সদরদপ্তরে প্রেরণ করবেন, তুলে ধরনে। আরেকটি কথা না বললে নয়, সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাব যে শুধু রেডিও শুনে তা নয় তারা অনেক ধরনের সামাজিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত। তারা ত্রাণ বিতরণ, বৃক্ষ রোপণ, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ সহ নানাবিধ কর্মকান্ড সারা বছর ছালিয়ে থাকে। এ ক্লাবটির পেছনে যারা সবসময় শ্রম দিয়ে থাকেন তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি এবং তারা সবসময় বেতারের পাশে থাকবে এ প্রত্যাশা করি।

শ্রোতাবন্ধুরা,

সিয়াম সাধনার মধ্য দিয়ে মানুষের আত্মশুদ্ধি, সংবেদনশীলতা, ধনী-গরিবের মধ্যকার ভালোবাসার উপলব্ধি ঘটে এবং ইফতার অনুষ্ঠানে এটি আরও বেশি উজ্জ্বল ও উদ্ভাসিত হয়ে ওঠে।

এ মাসে প্রত্যেকে সিয়াম সাধনার মধ্য দিয়ে তাকওয়া অর্জনের জন্য আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের সকল আদেশ মানা ও নিষিদ্ধ কাজ থেকে দূরে থাকার মাধ্যমে আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভ করতে চেষ্টা করেন।

আর মাত্র ক'দিন পর অর্থাৎ এই রমজান মাসের শেষদিকে শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেলে শাওয়াল মাসের ১ তারিখে এ দেশের সকল মুসলমান ঈদুল-ফিতরের উৎসবে মেতে উঠবেন। যেটি মুসলমানদের দুটি প্রধান ধর্মীয় উৎসবের মধ্যে একটি।

আমাদের শ্রোতাবন্ধুরাও সেই উৎসবের আনন্দে মেতে উঠবে এমন প্রত্যাশা রেখে সিলেট থেকে বিদায় নিচ্ছি---

দিদারুল ইকবাল

সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাব

ঢাকা

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040