Web bengali.cri.cn   
সুর ও বাণী: গীতিকার ইয়াও রো লোং
  2017-03-12 17:07:15  cri


বন্ধুরা, প্রথমে শুনুন 'আমার মনে পড়ে' নামের গান। গেয়েছেন লিন জুন চিয়ে। ২০০৭ সালে এ গানটি মিউজিক রেডিও চীনের সেরা দশটি গানের তালিকায় হংকং ও তাইওয়ানের বার্ষিক স্বর্ণ গান এবং ত্রয়োদশ সিঙ্গাপুর স্বর্ণ গানের পুরস্কারসহ অনেক পুরস্কার লাভ করে। এ গান শুনলে পুরোনো স্মৃতিগুলো সামনে চলে আসে। গানের শুরুতে পরিবেশন করা সরল ছন্দ আমাদের এক সহজ বিশ্বে নিয়ে যায়। গান বাজতে বাজতে গল্পের উত্তাল জোয়ার সৃষ্টি হয়। অতীতের প্রেম মনে পড়ে, প্রেমিকার প্রতি গভীর ভালোবাসা জেগে ওঠে।

ইয়াও রো লোং

বন্ধুরা, আপনারা শুনলেন লিন জুন চিয়ের গাওয়া 'আমার মনে পড়ে' নামের গান। তাইওয়ানের গীতিকার ইয়াও রো লোং এ গানের কথা লিখেছেন। ইয়াও রো লোংকে 'প্রণয়গীতির মাস্টার' বলে ডাকা হয়। তার গানের উষ্ণ কথাগুলো শ্রোতাদের সান্ত্বনা দেয় এবং মানুষের আবেগপূর্ণ অনুভূতিকে জাগিয়ে তোলে। তার অনেক গান চীনের তাইওয়ান, হংকং ও সিঙ্গাপুরের গায়ক গায়িকাদের প্রতিনিধিত্বশীল কর্মে পরিণত হয়েছে।

চাং লিয়াং ইং

বন্ধুরা, এবার শুনুন তাইওয়ানের রক ব্যান্ড সিনের গান 'বিদায়'। ২০০৩ সালের এপ্রিলে গানটি প্রকাশিত হয়। গানের কথা লিখেছেন ইয়াও রো লোং, সুর করেছেন চিন চিয়ান মো।  গানটি ২০০৫ সালে দ্বিতীয় চীনের গোল্ডেন ডিস্ক পুরস্কার পায়।

গানে বলা হয়েছে,

'প্রথমে বিশ্বাস ছিলো শক্তি,

অনুভূতির প্রতি ছিলো শ্রদ্ধা!

অসহায় হয়ে বুঝেছি,

নিয়তি অনেক শক্তিশালী।

তুমি ফিরে যেতে চেয়েছিলে।

নিয়তির আঘাতেও তুমি জেগে ওঠোনি!

তুমি বলতে, প্রেম হলো স্বপ্নের মতো!

নীরবে তোমায় জড়িয়ে ধরি।

মৃদু হৃত্স্পন্দনে তোমাকে বিদায় জানাই।'

ইয়াও রো লোং ১৯৬৫ সালে তাইওয়ানে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি সোছৌ বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগ থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৮৬ সালে বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে তিনি প্রথম গান 'শীতল গ্রীষ্মকাল' লিখেন। এরপর তিনি হাজারখানেক গান রচনা করেছেন এবং অনেক পুরস্কার পেয়েছেন। তবে মজার বিষয় হলো, ইয়াও রো লোং কখনো অনুষ্ঠানে গিয়ে পুরস্কার নেননি। পুরস্কার নিতে তিনি সবসময় অন্যজনকে অনুষ্ঠানে পাঠিয়েছেন। তিনি সাধারণত গণমাধ্যমে সাক্ষাত্কার দেন না, নিজের ছবি প্রকাশ করতে চান না। তিনি অনেকটা অন্তর্মুখী স্বভাবের মানুষ। তবে তার গানের কথায় আমরা তার আবেগপূর্ণ, সমৃদ্ধ ও স্পর্শকাতর চরিত্রের খোঁজ পাই।

১৯৯৪ সালে ইয়াও রো লোং তাইওয়ানের গায়িকা চাও ইয়ো হুয়ার জন্য 'সবচেয়ে রোমান্টিক কাজ' নামের গান লিখেন। এ গানের জন্য ইয়াও রো লোং ষষ্ঠ গোল্ডেন মেলোডি অ্যাওয়ার্ডসের শ্রেষ্ঠ গীতিকারের পুরস্কার পান। ইয়াও রো লোং গান লেখার সময় গায়ক বা গায়িকার দৃষ্টিকোণ থেকে গানের কথা ভাবেন। তিনি মনে করেন, কেবল এভাবে গানে প্রাণ দেওয়া সম্ভব। গায়িকা চাও ইয়ো হুয়াকে দেখলে মনে হয়, 'সঠিক প্রেমের জন্য তিনি সব বিলিয়ে দিতে পারেন!' ফলে তার প্রেমিকও তাকে শতভাগ ফেরত দেন। এমন বিষয় চিন্তা করে ইয়াও রো লোং 'সবচেয়ে রোমান্টিক কাজ' গানটি লিখেন। এটি একটি স্নেহপূর্ণ প্রেমের গান।

গানের কথা এমন, 'আমরা পিঠে পিঠ ঠেকিয়ে গালিচায় বসে আছি। গান শুনতে শুনতে আমরা ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখি। তুমি চাও আমি দিন দিন আরো স্নেহময় হবো। আমি ভাবি, তুমি সবসময় আমাকে তোমার মনের মধ্যে রাখবে। আমার সবচেয়ে রোমান্টিক কাজ হলো তোমার হাত ধরে বার্ধক্যের দিকে এগিয়ে যাওয়া। বৃদ্ধ হওয়ার পরও সব আনন্দ-হাসি-খুশি আমি যত্নে লালন করবো। বৃদ্ধ বয়সে আমরা এসব স্মৃতি স্মরণ করবো।'

ইয়াও রো লোং তার কাজে খুব মনোযোগ দিতেন। তবে কাজের জন্য প্রাণপণ চেষ্টা করা পছন্দ করতেন না। তিনি ভাবতেন, তার সবচেয়ে প্রিয় সংগীতটি লেখার পর গানের জগত্‌ ছেড়ে দেবেন। তিনি গোটা জীবনে মাত্র আট মাস একটি কোম্পানিতে চাকরি করেছিলেন। এরপর তিনি স্বাধীন জীবন বেছে নেন। এখন পর্যন্ত তিনি সপ্তাহে সর্বোচ্চ মাত্র তিনটি কাজ করেন। যাতে তার লেখা প্রতিটি গানের মান ভালো হয় এবং নিজের জীবনের যথেষ্ঠ সময় উপভোগ করতে পারেন। তার এমন স্বাধীন জীবনাচরণ গান সৃষ্টিতে অনেক বেশি প্রেরণা দেয়।

ফান ওয়েই ছি আর তার স্বামী

বন্ধুরা, এখন শুনুন 'সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত' নামের গান। ২০১১ সালে তাইওয়ানের গায়িকা ফান ওয়েই ছি'র বিয়েতে উপহার হিসেবে গানটি লিখেন ইয়াও রো লোং। ফান ওয়েই ছি প্রেমের ঘোষণার মতো এ গানটি গেয়ে তার দীর্ঘ দশ বছরের প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে করেন। এ গান ২০১২ সালে হিট এফএম বার্ষিক শত জনপ্রিয় গানের তালিকায় নির্বাচিত হয়।

গানের কথা এমন, 'আমি প্রায়শই ভাবি, এ বিশ্বে তোমার মতো আমার যত্ন নেওয়ার কোনো লোক আর খুঁজে পাবো না। আমার পরিবার তোমাকে ভালোবাসে। আমার বন্ধুরা সবাই তোমার পক্ষে। তোমার অনেক ত্রুটিও আছে। কিন্তু মানুষের জীবন তো নিখুঁত নয়। আমাদের চাওয়াতে সবকিছু হবে না। তুমি হলে আমার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত। আমি চাই, প্রতিদিন তোমার পাশে ঘুম থেকে জেগে উঠতে। সঠিক প্রেমে জয়-পরাজয় নেই, আছে শুধু ঘনিষ্ঠতা! সুখী জীবন লাভের সোজা পথ নেই, শুধু পরিশ্রমেই সুখ ধরা দেয়!' বন্ধুরা, শুনুন ফান ওয়েই ছি'র গাওয়া 'সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত' নামের এ প্রেমের গান।

ইয়াও রো লোং বলেন, 'গানের কথা লেখা শব্দ দিয়ে অভিনয় করার মতো। আমরা প্রথমে এক গল্প ও দৃশ্য নির্ধারণ করি, তারপর নাটকের মধ্যে প্রবেশ করি। এ গল্প থেকে প্রতিফলিত আবেগ আঁকড়ে ধরি। তিনি মনে করেন, একটি ভালো গান লিখতে গায়ক ও গায়িকার বৈশিষ্ট্য ও স্বভাব-চরিত্র চিন্তা করতে হয়। ফলে তিনি সবসময় নানা তথ্যের ওপর মনোযোগ দেন। তার মাথায় এক তথ্য ভাণ্ডার তৈরি হয়েছে। ফলে গান লেখার সময় তার অবিরাম অনুপ্রেরণা তৈরি হয়।

বন্ধুরা, এবার শুনুন 'প্রতিদিন তোমাকে একটু বেশি ভালোবাসি' নামের গান। গেয়েছেন চাং শুয়ে ইয়ো। গানটি ১৯৯১ সালে হংকংয়ের সেরা দশটি চীনা গানের স্বর্ণ পুরস্কার পায়।

ইয়াও রো লোংয়ের সহকারী সুরকার চেন সিয়াও সিয়া জানান, ইয়াও রো লোং জনসম্মুখে হাজির হতে চান না। তিনি একাই থাকতে পছন্দ করেন। তিনি খুব ভালোভাবে নিজের যত্ন নেন। তবে তিনি স্থির-মস্তিষ্কে বাস্তবসম্মতভাবে কোনো কাজ করেন।

ইয়াও রো লোং বলেন, সারাদিনের কাজ শেষে ঘরে ফিরে একাকী অবস্থায় কিছু গান আমাদের মুগ্ধ করে। আরো কিছু গানের কথা বা সুর শুনে মিউজিক ভিডিওয়ের মতো বিশেষ দৃশ্য, ঋতু বা স্থানের স্মৃতি মনে করিয়ে দেয়। আপনি মনে করেন, এ মুহূর্তে এ গান আপনারই জন্য, আপনার মনের কথাই বলছে, গানে আপনার কথাই ফুটে উঠছে। যদি এমন হয়, তাহলেই গানটি সফল!

জৌ হুই

বন্ধুরা, অনুষ্ঠানের শেষপ্রান্তে শুনুন 'প্রতিশ্রুতি' নামের গান। গায়িকা চৌ হুই গেয়েছেন, 'দূর থেকে ঘণ্টাধ্বনি বৃষ্টির মধ্যে ভেসে আসে। আমরা জানালার কার্নিসের পাশে হাতে হাত রেখে তা শুনছি। কল্পনায় দেখি, গির্জায় বিয়ের অনুষ্ঠানে আমাদের শুভকামনার প্রস্তুতি চলছে। আমরা কর্দমাক্ত পথে হেঁটে চলি। তাতে বর্তমানের সুন্দর দৃশ্য ভেসে উঠছে। আমরা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি যে, অতীতের দুঃখ-কষ্টের কথা ভাববো না। কখনও একে অপরকে প্রতিপক্ষ মনে করবো না। আমরা কথা দিয়েছি, ঝগড়া হলে শীগগির থামিয়ে দেবো। পরস্পরের কাছে গোপন করবো না। আমি ভালোভাবে তোমাকে ভালোবাসবো। ন্যায় ও অন্যায় কখনো চিন্তা করব না।'

বন্ধুরা, আজ তাইওয়ানের গীতিকার ইয়াও রো লোংয়ের সঙ্গে আপনাদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিলাম। তার কিছু চমত্কার প্রেমের গানও আপনারা শুনলেন। আশা করি সবাই উপভোগ করেছেন। 'সুর ও বাণী' আসর আজকের মতো এখানে শেষ করছি। ভালো থাকুন সবাই। আবার কথা হবে।

(ইয়ু/তৌহিদ)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040