Web bengali.cri.cn   
পুবের জানালা: চীনের বসন্ত উত্সব সমাচার
  2017-02-08 08:34:47  cri



চীনে বসন্ত উত্সবের আমেজ এখনও আছে। তবে, অফিস-আদালত খুলেছে; আমাদের মতো যারা চাকরি করেন, তাদের লম্বা ছুটি শেষ হয়েছে। এখন আবার কাজ করার পালা, নিয়ম করে অফিসে আসার পালা। তবে, আজকের 'পুবের জানালা' অনুষ্ঠানে আমরা বসন্ত উত্সব নিয়েই আলোচনা করবো। আমাদের আলোচনায় উঠে আসবে এবারকার বসন্ত উত্সবের বিশেষ বৈশিষ্ট্যসমূহ। আর আলোচনায় আমরা ব্যবহার করবো কিছু উপাত্ত।

এবারের বসন্ত উত্সবে ভোগের পরিমাণ বেড়েছে

চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপাত্ত থেকে জানা গেছে, এবার বসন্ত উত্সবের ৭ দিনের ছুটিতে সারা চীনে বিভিন্ন পণ্যের খুচরা বিক্রির পরিমাণ ছিল ৮৪,০০০ কোটি ইউয়ান, যা আগের বছরের চেয়ে ১১.৪ শতাংশ বেশি। বিক্রিত পণ্যের মধ্যে ঐহিত্যিক সাংস্কৃতিক পণ্য, ঘরোয়া বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি, স্বর্ণ ও রূপার গয়না ছিল সবচেয়ে বেশি। এবার অনলাইনে কেনাকাটা ছিল তুলনামূলকভাবে বেশি। অনলাইনে খাদ্যপণ্য বিক্রির পরিমাণও বেড়েছে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় গবেষণালয়ের উপ-প্রধান ছেন লি ফেন বলেন, "দারিদ্র্যবিমোচন ও আয় বাড়ানোর নীতি কার্যকর হওয়ার দেশের মানুষের আয় টানা বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই জনগণের ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে। বসন্ত উত্সবে জনগণ অনেক ব্যয় করেছে এবং এ থেকে বোঝা যায়, ভবিষ্যতেও জনগণের ভোগের পরিমাণ ক্রমশ বাড়বে। আমাদের ভোক্তারা পণ্যের মান, স্বাস্থ্য, ফ্যাশন ও ব্যক্তিত্বের ওপর গুরুত্ব দেয়। এ থেকে প্রমাণিত হয় যে, ভোক্তাচাহিদা উন্নত হয়েছে এবং কম্পানিগুলোরা সামনে ভোক্তাদের চাহিদা পূরণার্থে নতুন পণ্য উত্পাদনের সুযোগ

বেড়েছে।"

এবারকার বসন্ত উত্সবে কম পটকা ফুটেছে

পরিবেশ সংরক্ষণ মন্ত্রণালয়ের উপাত্ত থেকে জানা গেছে, বসন্ত উত্সবের প্রথম তিন দিন পটকা ফাটানোর কারণে বেইজিং , থিয়ান চিন ও কাছাকাছি অঞ্চল, উত্তর-পূর্ব চীন, পশ্চিম ও দক্ষিণ চীনের কিছু অঞ্চলে বায়ুদূষণ হয়েছে। তবে, দেশের অন্যান্য শহরে পটকা ফুটেছে আগের বছরের তুলনায় কম।

বেইজিংয়ের স্থানীয় সরকারের সংশ্লিষ্ট কার্যালয় জানিয়েছে, এবার বসন্ত উত্সবের পঞ্চম দিন পর্যন্ত রাজধানীতে বিক্রি হয় ১ লাখ ২২ হাজার বাক্স বাজি ও পটকা, যা গত বসন্ত উত্সবের চেয়ে ৩০.৩ শতাংশ কম।

রেনমিন বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের উপ-অধ্যাপক ওয়াং সু মনে করেন, বসন্ত উত্সব চলাকালে এ ধরনের পরিবেশবান্ধব কর্মকাণ্ডে জনতার অংশগ্রহণ বৃদ্ধি প্রমাণ করে যে, পরিবেশের ব্যাপারে গণসচেতনতা বেড়েছে।

বসন্ত উত্সবে যানবাহনের ব্যবহার

পরিসংখ্যান থেকে জানা গেছে, এবার বসন্ত উত্সবে চীনে মোট ৫ কোটি ১৯ লাখ ৯৩ হাজার যাত্রী ট্রেনে ভ্রমণ করেছেন, যা আগের বছরের বসন্ত উত্সবের চেয়ে ৮.৮ শতাংশ বেশি।

অনেকে আবার উত্সব চলাকালে ভ্রমণের জন্য ট্রেন, বিমান ও বাস ছাড়া 'গাড়ি ভাগাভাগি' পদ্ধতি ব্যবহার করেন।

উদাহরণস্বরূপ, আমি বেইজিংয়ের মানুষ হলেও সাংহাইতে কাজ করি। বসন্ত উত্সবে আমি সাংহাই থেকে নিজের গাড়ি চালিয়ে বেইজিংয়ে ফিরব। যেহেতু আমি একা ভ্রমণ করছি, সেহেতু গাড়িতে ৪টি খালি আসন আছে। তাই আমি অনলাইন অ্যাপ্লিকেশনে এ তথ্য প্রকাশ করলাম। আমি কখন সাংহাই থেকে বেইজিংয়ে ফিরব এবং কতজন আমি সঙ্গে নিয়ে যেতে পারব, তাও জানালাম। ফলে চারজন লোক সাংহাই থেকে বেইজিংয়ে যেতে আমার গাড়ি ব্যবহার করল। বিনিময়ে আমি কিছু বাড়তি আয় করতে পারলাম। এটাই 'গাড়ি ভাগাভাগি' পদ্ধতি। এতে একদিকে গাড়ি মালিকের ব্যয় কমে যায়; অন্যদিকে যারা কোনো যানবাহনের টিকিট পাননি তারা উপকৃত হন। ১৩ জানুয়ারি থেকে ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চীনে ২৮ লাখ গাড়ির মালিক 'খালি আসন ভাগাভাগি' প্রকল্পে অংশ নেয়। বসন্ত উত্সরের রাতে ৭০ সহস্রাধিক মানুষ এ পদ্ধতির মাধ্যমে বাড়ি ফিরেছেন। আনুমানিক হিসেব অনুযায়ী আগামী বসন্ত উত্সবে ৮৪ লাখ মানুষ 'গাড়ি ভাগাভাগি' প্রকল্পে অংশ নেবেন।

বসন্ত উত্সবে চীনে বিপুল সংখ্যক মানুষ এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যায়। অনেক শহর হঠাত্ করে একটি খালি নগরে পরিণত হয়। এবার বসন্ত উত্সবে প্রায় জনশূন্য হয়ে পড়ে কুয়াং তুং প্রদেশের তুং কুয়ান, ফো সান এবং কুয়াং চৌ।

অন্যদিকে, পরিসংখ্যান থেকে জানা গেছে, এবার বসন্ত উত্সবের ছুটিতে চীনে স্মরণকালের সবচেয়ে বেশি মানুষ ভ্রমণ করেছেন। ৬০টি শহরে করা একটি জরিপ অনুযায়ী, ৮২ শতাংশ মানুষ বছরের শুরুর দিকে ভ্রমণ করতে চায় এবং এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি মানুষ বসন্ত উত্সবের সময়ে ভ্রমণ করতে চায়। এবার বসন্ত উত্সবের ৭ দিনের ছুটিতে চীনে ৩৪.৪ কোটি মানুষ দেশের এক স্থান থেকে অন্য স্থানে ভ্রমণ করেছেন। (শিশির/আলিম)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040