Web bengali.cri.cn   
সুর ও বাণী: অলিম্পিক গান
  2016-08-10 09:47:30  cri


বন্ধুরা, আপনারা শুনছেন 'অলিম্পিক স্তবগান'। প্রতিবার অলিম্পিক গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও সমাপনী অনুষ্ঠানে এ সংগীতটি শোনা যায়। এটি প্রাচীন গ্রিসের একটি গান। গ্রিসের সুরকার স্পায়রোস সামারাস এতে সুর করেছেন এবং গানের কথা লিখেছেন কোসটিস পালামাস। ১৮৯৬ সালে প্রথম গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ গান পরিবেশিত হয়। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি ১৯৫৮ সালে টোকিওতে অনুষ্ঠিত ৫৫তম পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে 'অলিম্পিক স্তবগান'কে অলিম্পিক অ্যানথেম হিসেবে নির্ধারণ করেছে। এ গানের সংগীতের স্কোর চিরকাল আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সদরদপ্তরে সংরক্ষিত থাকবে।

লিও অলিম্পিক গেমসের মঞ্চ

৩১তম অলিম্পিক গেমস ৫ অগাস্ট ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোয় উদ্বোধন করা হয়েছে। এই প্রথম দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের ব্রাজিলে অলিম্পিক গেমস অনুষ্ঠিত হচ্ছে। রিও অলিম্পিক গেমসের দু'টি থিম সং আছে। দুটি গান পর্তুগীজ ভাষায় রচিত। 'আত্মা ও হৃদয়' গানটি ব্রাজিলের সাম্বা নাচের তারকা থিয়াগুইনহো ও র‌্যাপ গায়ক প্রোজোতা একসঙ্গে গেয়েছেন। এ গানে পরিশ্রম করে চূড়ান্ত বিজয় অর্জনের দৃঢ়প্রতিজ্ঞার কথা ফুটে উঠেছে। শুনুন গানটি।

অলিম্পিক ইতিহাসে সবচেয়ে সফল থিম সং বললে অনেকে ভোট দেবেন ১৯৮৮ সালে সিউল অলিম্পিক গেমসের থিম সং 'হ্যান্ড ইন হ্যান্ড' গানটিকে। গানের কথা লিখেছেন মার্কিন গীতিকার টম উইকলোক; ইতালির সুরকার জর্জিও মোরোদের এতে সুর করেছেন। এ গানটি অলিম্পিক গেমসের থিম সংগুলোর মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এমনকি, আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান হুয়ান এন্তনিও সামারান্চ মনে করেন, 'হ্যান্ড ইন হ্যান্ড' হলো সবচেয়ে সফল অলিম্পিক থিম সং। তিনি এ গানকে অলিম্পিকের স্থায়ী থিম সং নির্ধারণ করতে চেয়েছিলেন। সিউল অলিম্পিক গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যান্ড কোরিনা ও ১৮০০০ লোকের পরিবেশনায় এ গানটি সত্যিই সবার হৃদয় জয় করেছিল।

দক্ষিণ কোরিয়ার কোরিনা ব্যান্ড

১৯৯২ সালে বার্সেলোনা অলিম্পিক গেমস উদ্বোধনের আগে 'বার্সেলোনা' নামের গানটি সারা বিশ্বে জনপ্রিয়তা পায়। এ গানটিতে রক ও ক্লাসিক সুরের দারুণ মিলন ঘটেছে। ব্রিটেনের গায়ক ফ্রেডি মারকারি ও স্প্যানিশ গায়িকা মন্টসেরাট কাবাল্লে গানটি গেয়েছেন। গানটি ১৯৯২ সাল বার্সেলোনা অলিম্পিক গেমসের থিম সং হিসেবে নির্ধারিত হয়। কিন্তু ১৯৯১ সালে ফ্রেডি মারকারি অসুস্থ হয়ে মারা যান। গায়িকা কাবাল্লে প্রিয় বন্ধুর মৃত্যুর পর অন্য গায়কের সঙ্গে এ গান গাওয়ার আহ্বান প্রত্যাখ্যান করেন। ফলে বার্সেলোনা অলিম্পিক গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমরা এ গান শুনতে পারিনি। তবে দর্শকদের মনে এ গানটি বার্সেলোনা অলিম্পিক গেমসের প্রধান সুর হিসেবে মর্যাদা পেয়েছে। বন্ধুরা, শুনুন বার্সেলোনা গানটি।

গায়ক ফ্রেডি মারকারি আর গায়িকা মন্টসেরাট কাবাল্লে

১৯৯৬ সালে ২৬তম আটলান্টা অলিম্পিক গেমসের থিম সং 'রিচ' শ্রোতাদের মনে গভীর ছাপ ফেলেছে। মার্কিন মিয়ামির গায়িকা গ্লোরিয়া এস্তেফান একটি গুরুতর সড়ক দুর্ঘটনায় শরীরের একপাশ অচল হয়ে পক্ষাঘাতগ্রস্ত হন। তবে তিনি নিজের দৃঢ় ইচ্ছাশক্তি দিয়ে রোগকে পরাস্ত করে আবার মঞ্চে দাঁড়ানোর শক্তি অর্জন করেন। তিনি গেয়েছেন, 'আমি আরও উঁচুতে উঠে বিশাল ওই আকাশ স্পর্শ করতে চাই।' তিনি এ গান গেয়ে ১৯৯৬ সালের গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন। বন্ধুরা, শুনুন আটলান্টা অলিম্পিক গেমসের থিম সং 'রিচ'।

চীনা গায়ক লিউ হুয়ান আর ব্রিটিশ গায়িকা সারাহ ব্রাইটমান

'আমি ও তুমি' হলো অলিম্পিক গেমসের ইতিহাসে প্রথম চীনা ভাষার থিম সং। চীনের সুরকার চেন ছি কাং এ গানের কথা লিখেছেন এবং সুর করেছেন। চীনের গায়ক লিউ হুয়ান ও ব্রিটিশ গায়িকা সারাহ ব্রাইটমান যৌথভাবে গানটি গেয়েছেন। এ গানের কথা অপেক্ষাকৃত সরল। মাত্র ৪২টি চীনা শব্দ ও ৩৩টি ইংরেজি শব্দ আছে এ গানে। লিউ হুয়ান প্রথমে চীনা ভাষায় গানের প্রথম অংশ গেয়েছেন, তারপর সারাহ ব্রাইটমান ইংরেজি অংশ পরিবেশন করেন। পরে দু'জন ইংরেজি ভাষায় গানটি গান। চীনারা ২০০৮ বেইজিং অলিম্পিক গেমসের কথা স্মরণ করলে 'আমি ও তুমি' এ গানের সুরটি মনে করেন। বন্ধুরা, শুনুন গানটি।

২০০৪ সালের এথেন্স অলিম্পিক গেমসের থিম সং 'ওশিনিয়া' অন্যান্য অলিম্পিক গেমসের তুলনায় একটু ভিন্ন ধরনের। আইসল্যান্ডের গায়িকা বিয়োর্ক এ গান গেয়েছেন। এ গানটিতে খেলাধুলার গানের মতো দ্রুত তাল ও ছন্দ নেই। এ গান শুনলে মনে হয়, অলিম্পাস পাহাড়ের দেবতাদের পরিচিত সুর।

বন্ধুরা, সুর ও বাণী আসরের শেষ প্রান্তে আপনাদের শোনাবো ২০১২ সালের লন্ডন অলিম্পিক গেমসের থিম সং 'সারভাইভাল'। ব্রিটেনের মিয়ুজ ব্যান্ড রক সংগীত ও অলিম্পিক চেতনার সমন্বয়ে এ গানটি তৈরি হয়েছে। 'সারভাইভাল' গানটি এখনো এই ব্যান্ডের জনপ্রিয় গানগুলোর অন্যতম।

শ্রোতাবন্ধুরা, এতক্ষণ আপনারা অলিম্পিক গেমসের বিভিন্ন সময়ের থিম সং শুনলেন। আশা করি, এ গানগুলো আপনাদের খেলার মাঠে যাওয়ার উত্সাহ দেবে। সুর ও বাণীর আসর আজকের মতো এখানেই শেষ করছি। সবাই ভালো থাকুন। আবার কথা হবে।

(ইয়ু/তৌহিদ)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040