Web bengali.cri.cn   
হ্যালো চায়না: ২২. পশ্চিমদেশ অভিমুখে যাত্রা
  2016-06-03 17:02:40  cri

'পশ্চিমদেশ অভিমুখে যাত্রা' প্রাচীনকালের একটি উপন্যাস। উপন্যাসে সুন উ খুং, চু পা চিয়ে আর ভিক্ষু সার সঙ্গে হিউয়েন সাংয়ের পশ্চিমদেশে বৌদ্ধশাস্ত্র সংগ্রহে সহায়তার কাহিনী বর্ণনা করা হয়েছে। অনেকে মনে করেন যে, এ উপন্যাসে একজন মানুষ, একটি বানর, একটি শূকর ও একটি দৈত্যের একসঙ্গে যাত্রার গল্প। আসলে মোটেও তা নয়। আপনি কি জানেন, 'পশ্চিমদেশ অভিমুখে যাত্রা' কি ধরনের কাহিনী?

এটি সঠিক ইতিহাসের ওপর ভিত্তি করে তৈরি হয়েছে। প্রাচীনকালে চীনের থাং রাজবংশের একজন বৌদ্ধভিক্ষুর নাম হিউয়েন সাং। তত্কালীন ভারতে বৌদ্ধশাস্ত্র সম্পর্কে জ্ঞান লাভ করার জন্য তিনি দশ হাজার কিলোমিটারেরও বেশি পায়ে হেঁটে পার হন। যাত্রাপথে নানা ধরনের কষ্ট মোকাবিলা করে অবশেষে বৌদ্ধশাস্ত্র সম্পর্কে জানতে পারেন। উপন্যাস 'পশ্চিমদেশ অভিমুখে যাত্রায়' বৌদ্ধভিক্ষু হিউয়েন সাংয়ের প্রশংসার পাশাপাশি আরো তিন ব্যক্তির কথা বলা হয়েছে। তাদের মধ্যে সবচেয়ে বিখ্যাত হলো, হিউয়েন সাংয়ের প্রথম শিষ্য সুন উ খুং। সুন উ খুং হলো একটি শক্তিশালী বানর, সে খুব সাহসী ও ন্যায়পরায়ণ এবং সে ৭২টি প্রাণী ও বস্তুতে রূপান্তরিত হতে পারতো। বৌদ্ধশাস্ত্র সংগ্রহের সময় সে দানবের সঙ্গে লড়াই করেছে। তিন শিষ্যের মধ্যে তার দক্ষতা ছিল সবচে শক্তিশালী। চীনে নারী, পুরুষ, শিশু ও বৃদ্ধ সবাই তাকে পছন্দ করে। চু পা চিয়ের চরিত্র সহৃদয় ও অলস, নিজে কিছুটা অংহকারী এবং একটু চালাক, ভিক্ষু শা ন্যায়বান ও কঠিন কাজ করতো। সে হিউয়েন সাং আর দুই শিষ্যের যত্ন নিতো। বৌদ্ধশাস্ত্র সংগ্রহের পথে তারা মোট ৮১টি কষ্টকর বাধার মুখোমুখি হয়েছিলো।

'পশ্চিমদেশ অভিমুখে যাত্রা' চীনের বিখ্যাত কাহিনীর মধ্যে অন্যতম। এ উপন্যাসে নিজেকে ছাড়িয়ে, বাধা-বিপত্তি মোকাবিলা করার গল্প বর্ণনা করা হয়েছে, যা সবসময় চীনাদের প্রভাবিত করে।

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040