Web bengali.cri.cn   
আর্থিক বিষয়ে প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠানে চীনের অর্থমন্ত্রী
  2016-03-07 19:19:50  cri


চীনের অর্থমন্ত্রী লৌ চি ওয়েই

চীনের দ্বাদশ জাতীয় গণকংগ্রেসের চতুর্থ অধিবেশনের সাংবাদিক সম্মেলন আজ (সোমবার) সকালে বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। চীনের অর্থমন্ত্রী লৌ চি ওয়েই আর্থিক বিষয়াদি নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। কেউ কেউ প্রশ্ন করেন, আর্থিক ঘাটতির হার বৃদ্ধির উদ্দেশ্য কি? রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের মন্দ ঋণের হার বাড়ানোর ব্যাপারে তার মন্তব্য কি? শুল্ক ব্যবস্থার সংস্কারের পরবর্তী পদক্ষেপ কী? এসব প্রশ্নের উত্তরে লৌ চি ওয়েই বলেন, ঘাটতির হার বাড়ানোর পর খরচের কাঠামো সুবিন্যাস এবং জনগণের জীবিকার ব্যয় ভালোভাবে বন্দোবস্ত করা হবে।

চীনের রাষ্ট্রীয় পরিষদের দাখিল করা বাজেট প্রতিবেদনে দেখা যায়, চলতি বছর ঘাটতি হবে ৩ শতাংশ, এটা গত বছরের বাস্তব ঘাটতির চেয়ে ০.৬ শতাংশ বেশি। কেন্দ্রীয় সরকার ও স্থানীয় সরকারের ঘাটতির হারের মোট পরিমাণ ২.১৮ ট্রিলিয়ন ইউয়ান রেনমিনপি।

এ প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী লৌ চি ওয়েই বলেন, ঘাটতির হার বাড়ানো গত বছর কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থনৈতিক কর্ম সম্মেলনে দেওয়া প্রস্তাবের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ। অর্থাত্ প্রয়োজনীয় ও উপযোগী সম্প্রসারণের ভিত্তিতে সরবরাহ খাতে গঠনমূলক সংস্কারের ওপর গুরুত্ব দেয়া হবে। তিনি উল্লেখ করেন, এখন অর্থনীতি নতুন স্বাভাবিক অবস্থার সম্মুখীন। এ অবস্থায় নানা পক্ষের মধ্যে মতভেদ দেখা যাচ্ছে। এসব দীর্ঘকালীন মতভেদ সমাধান করা দরকার। এ পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় কমিটির নির্ধারিত নীতি অনুসারে বাজেট গ্রহণ করা উচিত।

লৌ চি ওয়েই বলেন, 'উপযোগী ঘাটতির হার বাড়ালে অর্থনীতির মধ্য ও উচ্চ গতির প্রবৃদ্ধির পথ অবলম্বন করা দরকার। পাশাপাশি আমরা কাঠামোগত সংস্কার জোরদার করবো। এটিই হলো মূলনীতি।'

০.৬ শতাংশ ঘাটতির হার বাড়লে কী হবে? এর জবাবে লৌ চি ওয়েই বলেন, 'প্রথমে গুরুত্বপূর্ণ ব্যয়গুলো নিশ্চিত করতে হবে।'

তিনি বলেন, 'প্রধান ব্যয়গুলো নিশ্চিত করতে হলে ব্যয়ের কাঠামো সুবিন্যাস করতে হবে। টেকসই ও মৌলিক নীতি অনুসারে ভালোভাবে জনগণের জীবিকার ব্যয়ের ব্যবস্থা নিতে হবে। কঠোরভাবে 'তিন ধরণের সরকারি ব্যয়' বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। যাতে মৌলিক গণসেবা ও প্রধান জীবিকা খাতে ব্যয়ের জন্য আরো বেশি অর্থ পাওয়া যায়।'

বহির্বিশ্ব চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের মন্দ ঋণের হার প্রবৃদ্ধি নিয়ে আশঙ্কা করে। লৌ চি ওয়েই স্বীকার করেন যে, বর্তমানে চীনের ব্যাংকে মন্দ ঋণ বৃদ্ধির প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। তবে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক হওয়ায় সরকার এজন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেবে না। তিনি বলেন, 'এখন রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলো সবই শেয়ার বাজারে উন্মুক্ত হয়েছে। সরকারই তার শতভাগের অংশীদার নয়। শুধুমাত্র বড় অংশীদার। আমরা কেবল রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক বলে বিশেষ ব্যবস্থা নেবো না। আমরা গোটা পরিস্থিতি বিবেচনা করে ব্যবস্থা নেবো।'

'শুল্ক সংস্কারের গতি ধারণার চেয়ে মন্থর' এ প্রসঙ্গে লৌ চি ওয়েই বলেন, চীনের কমিউনিস্ট পার্টির ১৮তম কেন্দ্রীয় কমিটির তৃতীয় পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে জানানো হয়েছে যে, এ কাজের অগ্রগতি হয়েছে। তবে বিক্রয় করের পরিবর্তে মূল্য সংযোজন কর আদায় করা এবং কেন্দ্রীয় সরকার ও স্থানীয় সরকারের সংশ্লিষ্ট কাজের অধিকার ও ব্যয়ের দায়িত্ব-বিষয়ক সংস্কার প্রকৃতপক্ষেই পূর্ব পরিকল্পনার চেয়ে ধীর গতির হয়েছে।

তিনি উল্লেখ করেন, এ বছর বিক্রয় করের পরিবর্তে মূল্য সংযোজন কর আদায়ের কাজ সম্পন্ন করতে হবে। স্থানীয় কর ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে। রিয়েল এস্টেট কর আইন প্রণয়নের প্রক্রিয়া চলছে। ব্যক্তিগত আয়কর সংস্কারের খসড়া প্রস্তাব করা হয়েছে। আরো কিছু স্থানীয় করের ক্ষেত্রেও সংস্কার চলছে।

লৌ চি ওয়েই জোর দিয়ে বলেন, অর্থ হচ্ছে দেশ প্রশাসনের মৌলিক ও গুরুত্বপূর্ণ স্তম্ভ। এক্ষেত্রে বিভিন্ন বিভাগের যৌথ সহযোগিতা দরকার।

(ইয়ু/তৌহিদ)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040