Web bengali.cri.cn   
"পর্বত শহর" ছোং ছিং
  2016-02-19 18:12:24  cri

 

ছোং ছিং হচ্ছে চীনের কেন্দ্রশাসিত মহানগরগুলোর মধ্যে অন্যতম। ছোং ছিংয়ের আয়তন ৮২ হাজার ৩শ' বর্গকিলোমিটার এবং জনসংখ্যা প্রায় ৩ কোটি। এ ছাড়া "শান ছেং" অর্থাত্ "পর্বত শহর" ছোং ছিংয়ের অন্য একটি নাম। নাম অনুযায়ী, সহজেই বোঝা যায়, ছোং ছিংয়ের ভূখণ্ড পর্বতময়। তাই এখানে রেলপথ, রাজপথ ও নৌপথের তুলনায় আকাশপথ তুলনামূলকভাবে সুবিধাজনক ও নিরাপদ। ছোং ছিং থেকে সারা দেশের ৪০টির বেশি বড় ও মাঝারি শহরের বিমান-যোগাযোগ আছে। চিয়াং পেই বিমানবন্দরটি শহর থেকে ২৩ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। সেখান থেকে লাইট রেলে করে সরাসরি শহরে যাওয়া যায়। ট্যাক্সিতে করে প্রায় ৫০ ইউয়ান লাগে। অবশ্যই রেলপথ ও রাজপথ ছাড়া ছোং ছিংয়ের নৌপথও আছে। তার মানে, নৌপথেও সেখানে যাতায়াত করা যায়। কিন্তু বর্তমানে ই ছাংগামী ছাড়া ইয়াংসি নদীর মধ্য ও নিম্ন অববাহিকার শহরগামী সাধারণ যাত্রী জাহাজ আর নেই। ছোং ছিং-ই ছাং যাত্রীবাহী জাহাজ রাত ১০টা ছাড়ে। টিকিটের দাম ৩৩২ ইউয়ান।

বিশেষ ভূ-প্রকৃতির কারণে শহরে সাইকেল দেখা যায় না বললেই চলে। তবে এখানকার গণ-পরিবহন ব্যবস্থা খুব উন্নত। বাস হোক, মিনিবাস হোক বা ট্যাক্সি হোক, যাতায়াত খুব সহজ।

ছোং ছিং-এ দেখার অনেক কিছু আছে। এখন আমি যেখানে গিয়েছি, সেখানকার দৃশ্য নিয়ে একটু বলি।

চিয়ে ফাং বেই অর্থাত্ মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিসৌধ

ছোং ছিং-এ চিয়ে ফাং বেই'কে চীনের রাজধানী বেইজিংয়ের থিয়ান আন মেন মহাচত্বরের সাথে তুলনা করা চলে। এ অঞ্চল সমৃদ্ধ ও আধুনিক ব্যবসাকেন্দ্র। আশপাশে অনেক সুস্বাদু খাবার পাওয়া যায়। ছোং ছিং-এ আসলে পুরো একদিন বা অন্তত অর্ধেক বেলা হাতে নিয়ে আসতে হবে। সুন্দর ছোং ছিংয়ের মেয়েরা অনেক সুন্দর। মনে করা হয়, উঁচু-নিচু পথ ধরে হাঁটাচলা করে বলেই এখানকার মেয়েদের ফিগার অনেক সুন্দর হয়। এখানকার মেয়েদের সৌন্দর্যের কথা মাথায় রেখে একটি কথা প্রচলিত আছে। কথাটি হচ্ছে: বিবাহিতরা ছোং ছিং-এ আসার পর নিশ্চয়ই অনুতাপ করবে এই ভেবে যে, কেন আগে বিয়ে করেছিলাম।

ছোং ছিংয়ের স্থানীয় বাসিন্দারা সিছুয়ান উপভাষা বলেন। কিন্তু কেন্দ্রশাসিত মহানগরে ম্যান্ডারিনের চর্চা আছে। ফলে তাদের সঙ্গে ম্যান্ডারিন ভাষায়ও যোগাযোগ করা যায়।

হোং ইয়া তোং

হোং ইয়া তোং ছোং ছিংয়ের কেন্দ্রীয় এলাকায় অবস্থিত। এখানে পাহাড়ে নির্মিত একটি ভবন ঐতিহ্যবাহী এবং সুন্দর। দিনের বেলা এখানে বিভিন্ন ধরনের সুস্বাদু খাবার খাওয়া এবং রাতে দু'টো নদীর মিলন স্থল দেখা যায়। এ ছাড়া, এখানে বার স্ট্রিট ও বৈশিষ্ট্যময় কফিবার আছে। নদীর তীরে হাঁটলে আপনার গায়ে লাগবে মৃদুমন্দ বাতাস। আপনার মন ভালো হয়ে যাবে।

চি ছি খৌ প্রাচীন শহর

প্রাচীন শহর ও সেখানকার রীতিনীতির ব্যাপারে যাদের আগ্রহ বেশি, তারা চি ছি খৌ পছন্দ করবেন। এ শহরটি চিয়া লিং নদীর তীরে ১ হাজার ৭শ' বছর আগে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। সুস্বাদু খাবার অনুরাগীদের জন্য এটা একটি আকর্ষণীয় জায়গা। ছোং ছিং-এর নামের সাথে "ঝাল" ও 'হটপট' শব্দদুটি জড়িত। এখানকার ঝাল খাবার ও হটপট বিখ্যাত। চীনের সিছুয়ানের খাবার সাধারণ বেশি ঝাল হয়। অনেক নতুন খাবার আইটেমের উত্সস্থান এটি। বর্তমানে সারা চীনে ছোং ছিং হটপট খাওয়া হয়।

রাতে ছোং ছিং-এ বেড়ানো একটি সুন্দর অভিজ্ঞতা। বাতি ও নদীর পানি মিলেমিশে এক অপার সৌন্দর্য সৃষ্টি করে। ছোং ছিং-এ এলে আপনি এখানকার রাতে মোহনীয় দৃশ্য উপভোগ করতে পারবেন।

হু কুয়াং গিল্ড হল

গিল্ড হলটি ছিং রাজবংশের ছিয়ান লোং আমলে ২৪ সালে নির্মিত হয়। এটা চীনের মিং ও ছিং সময়পর্বের দক্ষিণাঞ্চলের স্থাপত্যশিল্পের প্রতিনিধিত্ব করে। পাশাপাশি বর্তমানে চীনের বৃহত্তম প্রাচীন গিল্ড হল কমপ্লেক্স হচ্ছে এটি। এখানে প্রবেশ করতে ৩০ ইউয়ান দিয়ে আপনাকে টিকিট কাটতে হবে। (প্রেমা/আলিম)

© China Radio International.CRI. All Rights Reserved.
16A Shijingshan Road, Beijing, China. 100040